২০০ বছরের পুরনো কলকাতার গোবিন্দপুর খাল বুজিয়ে হয়েছিল বউবাজার, বিপত্তি হল তাতেই!

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 19, 2019 08:51 PM IST
২০০ বছরের পুরনো কলকাতার গোবিন্দপুর খাল বুজিয়ে হয়েছিল বউবাজার, বিপত্তি হল তাতেই!
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 19, 2019 08:51 PM IST

#কলকাতা: জলাজমি বুজিয়ে তৈরি শহর। গোবিন্দপুর খালের পথ ধরেই ইস্টওয়েস্ট মেট্রোর রুট। মেট্রোর ইনজিনিয়ররা মাথায় না রাখায় বউবাজারে বিপর্যয়। বলছেন বিশেষজ্ঞরা। সতর্কতা ছিল। পালটা দাবি মেট্রোর। নিউজ এইটিন বাংলার স্পেশাল রিপোর্ট।

প্রায় ২০০ বছর আগে বোজানো হলেও গোবিন্দপুর খাল ২২০০ বছরের বেশি পুরানো। ১৭৩৭-সালের বিদ্ধংসী ভূমিকম্প আর সাইক্লোন। বদলে যায় গঙ্গা বেসিনের ভূগোল। নইলে গোবিন্দপুর খালই শহরের প্রধান জলপথ হত। পরে বুজিয়ে দেওয়া সেই খালের ওপরই তৈরি হয় শহর। এখন সেখান দিয়েই যাচ্ছে ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রোর টানেল।

বিশেষজ্ঞদের দাবি, সম্ভবত গোবিন্দপুর খালের অস্তিত্বই মাথায় ছিল না মেট্রোর ইঞ্জিনিয়ারদের। আর ঠিক উলটো অবস্থানে দাঁড়িয়ে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, সবরকম তথ্য সন্ধান করা হয়েছিল। বিশ্বের সেরা স্ট্র্যাকচারাল ইঞ্জিনিয়ারদের পরামর্শ মেনেই হচ্ছিল কাজ। মেট্রোর দাবি, ভূমিস্তর থেকে জল নেমেই তৈরি হয়েছিল অ্যাক্যুইভার। আর তাতেই বিপত্তি।

আর একটা কারণ অবশ্যই দীর্ঘদিনের জরাজীর্ণ বসতি। বউবাজারের বাড়িগুলোর বয়স একশ’-দেড়শ’। পুরোন চুন সুড়কির গাঁথনি। ফলে, মাটির ভারসাম্য সামান্য টলে গেলেই ধসের আশঙ্কা। আর সেটাই হয়েছে। প্রায় একই সমস্যার মুখোমুখি হয়েছিল মুম্বই মেট্রোর তৃতীয় লাইন তৈরির সময়। কোলাবার মাটির নীচে ১৯ মিটার পর্যন্ত শক্ত পাথুরে জমি থাকা সত্ত্বেও কেঁপেছিল মাটির উপরের ঘরবাড়ি।

৯৩ বছর আগে লন্ডনে টিউব রেল হওয়ার সময়, কলকাতাতেও টিউব রেলের পরিকল্পনা করেছিল ব্রিটিশরা। সেই ডিপিআরেও, বহুবাজারের রুট বর্জন করার কথা বলেছিলেন প্রযুক্তিবিদরা। হাউস অব কমন্সএ আলোচনাও হয়েছিল।

Loading...

বাড়ি ভাঙার পর দ্রুত পদক্ষেপ রাজ্য সরকারের। মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা, বাড়ির বদলে বাড়ি, দোকানের বদলে দোকান পাবেন ক্ষতিগ্রস্থরা।

হিসেবের বাইরে দুর্ঘটনা। সুতরাং, প্রয়োজনীয় বাজেট বরাদ্দ না থাকাটাই দস্তুর। এখন দেখার কত দ্রুত ক্ষতি আর বাধা সামলে কাজ শেষ করতে পারে ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রো। কবে চালু হয় কলকাতা মেট্রোর দ্বিতীয় লাইন।

First published: 11:05:13 PM Sep 17, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर