• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • রেশনের কুপন দেওয়া শুরু সোমবার থেকে

রেশনের কুপন দেওয়া শুরু সোমবার থেকে

প্রত্যেক জেলাশাসকদের কাছে এই বিশেষ কুপন পৌঁছে গিয়েছে।

প্রত্যেক জেলাশাসকদের কাছে এই বিশেষ কুপন পৌঁছে গিয়েছে।

প্রত্যেক জেলাশাসকদের কাছে এই বিশেষ কুপন পৌঁছে গিয়েছে।

  • Share this:

#কলকাতা: যে সমস্ত রেশন গ্রাহকদের হাতে এখনও কুপন পৌঁছয়নি, তাদের সোমবার থেকে কুপন দেওয়া শুরু হবে। বুধবার পর্যন্ত দেওয়া হবে কুপন। রাজ্য সরকারের তরফে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, আগামী ১০ এপ্রিল থেকে গ্রহীতাদের রেশন সামগ্রী দেওয়া হবে। কলকাতায় বরো চেয়ারম্যানদের কাছে পৌছে গেছে কুপন। প্রয়োজনে কাউন্সিলরা সাহায্য করবেন। জেলার প্রতিটি ব্লকে ব্লকে ব্লক লেভেল অফিসাররা এই কুপন দেওয়ার কাজ করবেন।

প্রত্যেক জেলাশাসকদের কাছে এই বিশেষ কুপন পৌঁছে গিয়েছে। ব্লক উন্নয়ন আধিকারিকদের কাছেও পৌঁছে গিয়েছে। রাজ্য সরকার ইতিমধ্যেই বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তার পরিপ্রেক্ষিতেই গোটা রাজ্যে প্রতিদিন রেশন দেওয়া চলছে। কিন্তু একাধিক জায়গায় সেই রেশন নিতে গিয়ে বেশ হুড়োহুড়ি পড়ে যাচ্ছে। এরই মধ্যে অভিযোগ মিলছে না রেশনে আটা। একাধিক জায়গা থেকে আসা অভিযোগ মেনে নিচ্ছে খাদ্য দফতর।

খাদ্য মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন, "রাজ্যে ৯৯ খানা আটাকল রয়েছে। তারমধ্যে ৪৭ খানা আটাকল বন্ধ রয়েছে। এখানে যারা কাজ করেন তাদের অনেকেই  আটাকলে কাজ করতে আসতে চাইছেন না। যে ৫২টি আটাকল খোলা হয়েছে সেখানেও আসা যাওয়ার অসুবিধা হচ্ছে বলে জানাচ্ছেন কর্মীরা।"

এর ফলে জেলাগুলিতে দোকান পিছু আটা'র পরিমাণ অত্যন্ত কমে গিয়েছে। যদিও মন্ত্রী অনুরোধ করছেন, ১৫ দিনের বেশি করে যেন কেউ আটা রেশন দোকান থেকে সংগ্রহ না করে। কারণ এই গরমের সময়ে আটা নষ্ট হয়েও যেতে পারে। তবে চাল যেন যথাযথ সময়ে দিয়ে দেওয়া হয় সেই আদেশ দেওয়া হয়েছে। সোমবার থেকে ব্লক লেভেল অফিসারদের কুপন দেওয়ার কাজ শুরু করে দিতে বলা হয়েছে। ৩৪১ জন ব্লক উন্নয়ন আধিকারিকদের সাথে গোটা বিষয়টি দেখবেন আট জন অফিসার। তারা প্রত্যেকটি বিষয় মনিটরিং করবেন। অন্যদিকে আগামী সপ্তাহের শুরুতেই খাদ্যমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্স করবেন অতিরিক্ত জেলাশাসক খাদ্য দফতরের সাথে। সেখানে মহকুমাশাসকদের থাকার কথা।কলকাতায় ২ লাখ ৭৩ হাজার গ্রাহক রয়েছেন যাদের কাছে কাড নেই। সেই সমস্ত গ্রাহকদেরও সোমবার থেকে কুপন দেওয়া হবে। এদিন খাদ্যভবনে তা নিয়ে বৈঠক করেন কলকাতার মেয়র ও খাদ্যমন্ত্রী। বৈঠকে ছিলেন বিভিন্ন দফতরের আধিকারিকরা। মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলেন, "আমরা কথা বলে নিয়েছি। রেশন পেতে সমস্যা হবে না।" তবে দোকানে বা বাজারে যারা ভিড় করছেন তাদের আবারও সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে অনুরোধ করছে সরকার।

Abir Ghoshal

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: