Rajib Banerjee: রাজীবের ফুলবদল জল্পনার নেপথ্যে কি 'পোর্টফোলিও'? 

মোহভঙ্গ রাজীবের

Rajib Banerjee: কী এমন ঘটল মাত্র ৪ মাসে, যার জেরে বিজেপিতে মোহভঙ্গ রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের? চাটার্ড জার্নির জড়তা এত তাড়াতাড়ি কেন গ্রাস করল তাঁকে?

  • Share this:

#কলকাতা: আগামী সপ্তাহেই রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ফুলবদল? জল্পনা আরও তীব্র হয়েছে রবিবার কুনাল ঘোষের সঙ্গে রাজীবের মুখোমুখি সাক্ষাতের পর থেকে। তবে রাজীবের প্রত্যাবর্তন জল্পনা বাড়ছে কেন? কী এমন ঘটল মাত্র ৪ মাসে, যার জেরে বিজেপিতে মোহভঙ্গ? চাটার্ড জার্নির জড়তা এত তাড়াতাড়ি কেন গ্রাস করল তাঁকে ?

গত ২ মে ভোটের ফলপ্রকাশ ও তাতে ডোমজুড় কেন্দ্রে বিপুল ভোটে রাজীবের পরাজয়ই একমাত্র এর কারণ নয়। সূত্রের খবর, দলে "পদবিহীন" নেতার গুস্সা চড়েছে একটু একটু করে। সময় দিয়েছেন, ধৈর্য্য দেখিয়েছেন, তবু সাড়া আসেনি দলের শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে। উল্টে দিল্লির দরবারে কিছু নেতার ঘনঘন দেখা মুখ বিরক্তি বাড়িয়েছে অচিরেই। সূত্রের খবর, রাজ্য বিজেপির একটা অংশ মনে করে, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে দলে প্রয়োজন । স্বচ্ছ ভাবমূর্তি, শিক্ষিত মুখের দরকার দলে। তবে অন্য একটা অংশ এই ভাবনার পুরো বিপরীতে। তাদের মতে রাজীবের কোনও জনভিত্তি নেই। বিধানসভার টিকিট নির্বাচনে যে গুরুত্ব রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় পেয়েছেন, তা অনেক পুরোনো রাজ্য নেতার কপালে জোটেনি। এই অংশটির মতে, কার্যত ফুরিয়ে গিয়েছেন রাজীব।

সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টের পর রবিবার প্রকাশ্যে যে বিবৃতি দিয়েছেন রাজীব, তাতে ইঙ্গিত স্পষ্ট বিজেপিতে আর মন নেই তাঁর। কিন্তু কেন এমনটা ঘটল?  সূত্রের দাবি, রাজীব এখনও একজন নামমাত্র বিজেপি কর্মী। কোনও পোর্টফোলিও নেই তাঁর। অথচ শুভেন্দু অধিকারীর পর তিনিও রাজ্যের মন্ত্রিত্ব ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন। বালুমাটির নেতার মতন তিনিও তৃণমূল সরকারের দুর্নীতি নিয়ে সরব হন। তবে ২ মে পেরোতেই তাঁকে ক্রমেই গুরুত্বহীন করার চেষ্টা হয়েছে বলে একটি অংশের দাবি। কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনী দেওয়া হয়েছে, এটুকুই বলার মতো। আদতে কাজের পরিধি নির্দিষ্ট হয়নি। যে পথে জোড়াফুল ছেড়ে পদ্মে যোগদান, সেই পথের অনেকেই এখন অচেনা ঠেকছেন বলে ওই সূত্রের দাবি। পদ্ম শিবিরে থেকে ঠিক কী কাজ তাঁর, এটাই স্পষ্ট করা হয়নি ভোটের ফল বেরোনোর ১মাস পরেও। তাই মুকুলের দেখানো পথ অনেক গেরুয়া নেতাকে এখন বেসুরো করছে। দলের সর্বভারতীয় সহসভাপতি হওয়া সত্ত্বেও মুকুল রায় যেমন বলেছেন, বিজেপি করতে পারলাম না। এখন এমন বলা মানুষের সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে দ্রুত গতিতে।

Published by:Suman Biswas
First published: