শুভেন্দুর পথেই এগোচ্ছেন রাজীব, বিদ্রোহ বাড়ছে হাওড়ায়

শুভেন্দুর পথেই এগোচ্ছেন রাজীব, বিদ্রোহ বাড়ছে হাওড়ায়
শুভেন্দুর পথেই এগোচ্ছেন রাজীব?

  • Share this:

    #কলকাতা: ঠিক যেন শুভেন্দু অধিকারী পর্বের চিত্রনাট্য৷ সেই পথেই কি এগোচ্ছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়? জল্পনা উস্কে দলের সঙ্গে দূরত্ব তৈরির পর এবার পদত্যাগ করলেন বনমন্ত্রী৷ ঠিক যে পথে এগিয়েছিলেন শুভেন্দু৷ প্রথমে মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা, তার পর একে একে বিধায়ক, দলীয় সদস্যপদ ত্যাগ করে বিজেপি-তে যোগদান৷ শুভেন্দুর পথে এগিয়ে মন্ত্রিত্ব ছাড়লেন রাজীব, এর পরে তিনি কী করবেন সেটা সময়ই বলবে৷ আপাতত তৃণমূলে শুভেন্দু পর্বের পুনরাবৃত্তিই দেখছে রাজনৈতিক মহল৷

    তবে শুধু রাজীব একা নন, হাওড়ায় তৃণমূলে বিদ্রোহীদের সংখ্যাও দিনে দিনে বাড়ছে৷ রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ইস্তফার পর তা ফের একবার প্রকাশ্যে এসেছে৷ শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূলে যোগদানের পর পূর্ব মেদিনীপুরে তৃণমূলের সংগঠনে বড়সড় ধাক্কা লেগেছিল৷ হাওড়াতেও সেই একই প্রস্তুতি নিতে হচ্ছে শাসক দলকে৷

    মন্ত্রিত্ব থেকে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ইস্তফার পরই সরব হয়েছেন বালির বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়া৷ এর আগে লক্ষ্মীরতন শুক্লার ইস্তফার পরও সরব হয়েছিলেন বৈশালী৷ ক্ষোভের সঙ্গে তিনি বলেন, 'রাজীবদাকে দিনের পর দিন ক্রমাগত ছোট করা হচ্ছিল, অপমানিত করা হচ্ছিল৷ এ ভাবে কতদিন চলবে জানি না৷ হাওড়ায় একজনের জন্য বাকিরা দল ছেড়ে চলে যাবে, এটা হতে পারে না৷ ধৈর্য ধরে আছি, কিন্তু কতদিন ধৈর্য ধরব জানিনা৷ যে নেতারা বলছেন যে বাকিরা চলে গেলে চলে যাক, তাঁদের কিন্তু মানুষ পছন্দ করেন না৷' স্পষ্টতই হাওড়ায় শাসক দলের নেতা এবং মন্ত্রী অরূপ রায়ের দিকে আঙুল তুলেছেন বৈশালী৷


    হাওড়ার আর এক বিক্ষুব্ধ নেতা এবং প্রাক্তন মেয়র রথীন চক্রবর্তী অবশ্য সরাসরি সমস্যার জন্য রাজ্য নেতৃত্বের দিকেই আঙুল তুলেছেন৷ তিনি বলেন, 'মনে হচ্ছে ছাত্রের ফিডব্যাক মাস্টারমশাইয়ের কাছে পৌঁছচ্ছে না৷ দিনের পর দিন আমরা এই অরাজকতার বিরুদ্ধে দলীয় নেতৃত্বকে আমরা অভিযোগ জানিয়েছি৷ কিন্তু তার পরেও তো ব্যবস্থা নেওয়া হল না৷' রথীনবাবুর দাবি, এর ফলে হাওড়ায় মানুষের মধ্যেও দলের বিরুদ্ধে ব্যাপক ক্ষোভের সঞ্চার হচ্ছে৷

    কয়েক দিন আগেই হাওড়ার আর এক মন্ত্রী এবং জেলা সভাপতি লক্ষ্মীরতন শুক্লা মন্ত্রিত্ব থেকে পদত্যাগ করেছেন৷ যদিও বৈশালী, রথীনের মতো প্রকাশ্যে সরব হননি তিনি৷ তবে লক্ষ্মীর ইস্তফার পিছনেও গোষ্ঠীকোন্দলই মূল কারণ বলে মত রাজনৈতিক মহলের৷যদিও এই সমস্ত অভিযোগকে আমল দিতে নারাজ হাওড়ার মন্ত্রী অরূপ রায়৷ তিনি বলেন, '১৯৯৮ সাল থেকে দলটাকে হাওড়ায় তৈরি করেছি৷ তখন পতাকা ধরার লোক ছিল না৷ ২০০৮ সাল থেকে জয়যাত্রা শুরু হয়েছে৷ আগামী দিনেও তা বজায় থাকবে৷ ফলে কে এলো কে গেল তাতে কিছু যায় আসে না৷ '

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    লেটেস্ট খবর