ট্রেন দেখলেই পাথর-প্রস্রাব ছোঁড়া! দাওয়াই নিয়ে হাজির ‘জানাদাদু’

ট্রেন দেখলেই পাথর-প্রস্রাব ছোঁড়া! দাওয়াই নিয়ে হাজির ‘জানাদাদু’
পলাশের সঙ্গে জানাদাদু৷

ট্রেন লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়ার ঘটনা প্রতিদিন বেড়েই চলেছে শিয়ালদহ ডিভিশনে। গত পাঁচ মাসে প্রায় ২৭টি ঘটনা ঘটেছে৷ শুধুমাত্র বনগাঁ বিভাগে ঘটেছে ১১টি ঘটনা৷

  • Share this:

#কলকাতাঃ লোকাল ট্রেন দেখলেই পাথর ছোঁড়ার ঘটনা। কখনও বা মহিলা কামরা লক্ষ্য করে প্যাকেটে বা বোতলে করা প্রসাব বা নোংরা জল ছোঁড়ার ঘটনা। প্রতিদিন শিয়ালদহ ডিভিশনের একাধিক স্টেশনে চলছে এরকমই নানা ঘটনা। সম্প্রতি এমনই কুকর্মের সাক্ষী হয়েছিলেন এক সাংবাদিক৷ এই সমস্যার সঙ্গে লড়া শুরু করল জানা দাদু৷

কে এই জানা দাদু?  আসলে, জানা দাদু একটা পুতুল। পাঁচ মাস আগেই নিউ জার্সি থেকে কলকাতায় এসে পৌছেছে এই পুতুল। খড়দহের বাসিন্দা পলাশ অধিকারীর বাড়িতে ঠাঁই হয়েছে জানা দাদু। পলাশ রোজ জানা দাদুকে নিয়ে বেরিয়ে পড়ছেন৷ ট্রেন দেখলেই পাথর ছোঁড়ার বিরুদ্ধে নিরলসভাবে  প্রচার চলছে।

সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ও বিভিন্ন স্টেশনে চলছে এই প্রচার৷ প্রচারের ভূয়সী প্রশংসা করেছে রেল মন্ত্রক। জানাদাদুকে সাদরে বরণ করে নিয়েছে তারা৷

পর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক নিখিল চক্রবর্তী জানাচ্ছেন, “আমরা অনেকবার প্রচার চালয়েছি। রেল পুলিশ কয়েকজনকে আটক করলেও মেটেনি সমস্যা। তাই বাধ্য হয়ে আমরা পলাশ ও জানাদাদুর মাধ্যমে প্রচার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। সেই প্রচার বিভিন্ন স্টেশনে ও সোশ্যাল মিডিয়ায় চলছে। আশা করি মানুষের সম্বিত ফিরবে।”

আপাতত  ৩০ সেকেন্ড এর ভিডিও তৈরি করা হয়েছে। সেই ভিডিও বিভিন্ন স্টেশনে শোনানো ও দেখানো হচ্ছে। এই ভিডিও আপলোড হয়েছে পূর্ব রেলের ফেসবুক ও ট্যুইটারেও।

ট্রেন লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়ার ঘটনা প্রতিদিন বেড়েই চলেছে শিয়ালদহ ডিভিশনে। গত পাঁচ মাসে প্রায় ২৭টি ঘটনা ঘটেছে৷ শুধুমাত্র বনগাঁ বিভাগে ঘটেছে এমন ১১টি ঘটনা। দমদম থেকে ট্রেন ছেড়ে বেরোনোর পর ঘটে চলেছে এই পাথর ছোঁড়া। শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখাতেই এমন ১৬টি ঘটনা ঘটেছে।

কিছুদিন আগেও পাথর ছোঁড়া আটকাতে জি আর পি ও আর পি এফ কর্তাদের নিয়ে বৈঠক করেছেন পূর্ব রেলের জেনারেল ম্যানেজার। সেখানেও সচেতনতা বৃদ্ধি করার জন্য একাধিক ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়। যদিও তারপরেও পাথর ছোঁড়ার ঘটনা ঘটেই চলেছে।

কী বলছেন পলাশ? তাঁর কথায়, ‘‘আমার বন্ধু ক্যানসার গবেষক ডা: অরিন্দম মন্ডল এই পুতুলটা আমাকে পাঠান। রেল যখন আমার সাথে যোগাযোগ করল আমি ভাবলাম এই পুতুল দিয়েই সচেতনতার কাজটা করি। আর যাই হোক সবাই এই দাদুর কথা শুনবে।”

জানাদাদুর কথা সবাই শুনবে কি না সেটা সময় বলবে। তবে রেল কর্তারা স্বীকার করে নিচ্ছেন, পাথর ছোঁড়ার ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় যাত্রীদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। তাই প্রচারের কাজে এই অভিনব পন্থা তাঁরা বেছে নিয়েছেন।

যে যাই বলুক জানা দাদু কিন্তু খোশ মেজাজে আছেন। শুধু সচেতনতার প্রচার নয়,দুষ্টুমি দেখলে তিনি বকেও দেবেন।

Abir Ghosal

First published: March 13, 2020, 1:34 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर