চোখে জল, ‘আপনি যাবেন না,’ উপাচার্যকে কাতর অনুরোধ রবীন্দ্রভারতীর পড়ুয়াদের

চোখে জল, ‘আপনি যাবেন না,’ উপাচার্যকে কাতর অনুরোধ রবীন্দ্রভারতীর পড়ুয়াদের
উপাচার্যকে ফেরাতে উদ্যোগ পড়ুয়াদের৷

শনিবার উপাচার্য সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী বিশ্ববিদ্যালয় দূরশিক্ষা পরীক্ষা ব্যবস্থা খতিয়ে দেখতে হঠাৎ হাজির হন। খবর পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা চলে আসেন ক্যাম্পাসে।

  • Share this:

#কলকাতা: উপাচার্যের পদত্যাগপত্র পাঠানোর পরে ২৪ঘন্টাও পার হয়নি। এবার অন্য এক মর্মস্পর্শী ছবি দেখল রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়। শনিবার ক্যাম্পাসে যাওয়া মাত্রই পড়ুয়ারা ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে উপাচার্যের সামনে হঠাৎ হাজির হয়ে গেলেন। হাজির হয়েই উপাচার্যের কাছে পড়ুয়াদের কাতর আবেদন, তিনি যেন রবীন্দ্রভারতী ছেড়ে না যান।

শনিবার উপাচার্য সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী বিশ্ববিদ্যালয় দূরশিক্ষা পরীক্ষা ব্যবস্থা খতিয়ে দেখতে হঠাৎ হাজির হন। খবর পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা চলে আসেন ক্যাম্পাসে। উপাচার্যের উত্তর, তিনি পুনর্বিবেচনা করবেন৷ এই আবেদন পেয়ে তিনি অভিভূত বলেও জানান।

বৃহস্পতিবার রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় বসন্ত উৎসবে কিছু ছবি সোশ্যাল সাইটে ছড়িয়ে পড়াকে কেন্দ্র করে তুমুুুুল আলোড়ন পড়ে যায়।মেয়েদের খোলা পিঠে আবির দিয়ে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গান  বিকৃত করে অশ্লীল শব্দ লেখা হয়। শুধু তাই নয়়়, ছেলেদের বুকেও আবির দিয়ে অশ্লীল শব্দ লেখা হয়। ছবিগুলি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই তুমুল বিতর্ক শুরু হয়। নিন্দার ঝড় ওঠে৷

এর পরে, শুক্রবার রাতেই উপাচার্য পদ থেকে নিজের ইস্তফা পাঠিয়ে দেন সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী। যা নিয়ে শুরু হয় টানাপোড়েন। বসন্ত উৎসবের সামগ্রিক ঘটনার  নৈতিক দায় নিয়েই নিজের পদ থেকে শিক্ষামন্ত্রী ও উচ্চ শিক্ষাসচিবের কাছে নিজের ইস্তফাপত্র পাঠিয়ে দেন। শুক্রবার রাত পর্যন্ত ইস্তফার কারণ হিসাবে মুখ না খুললেও শনিবার তিনি জানান "বসন্ত উৎসবের যা যা ঘটেছে তার নৈতিক দায় নিয়েই আমি ইস্তফা পাঠিয়েছি। সরকার কি করবে সেটা সরকারের ব্যাপার।"

এদিন রবীন্দ্রভারতী অবশ্য অন্য ছবি তুলে ধরেছে৷ পড়ুয়ারা অনেকেই উপাচার্যকে পাশে পেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন। উপাচার্য নিজেও শনিবারের এই ছবি দেখে কিছুটা হলেও অবাক হয়ে যান।পড়ুয়াদের এই আবেদন দেখেই তিনি পুনর্বিবেচনার সিদ্ধান্ত নেন৷

সোমরাজ বন্দোপাধ্যায়।

First published: March 7, 2020, 3:39 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर