corona virus btn
corona virus btn
Loading

দরজা বন্ধ না হলে ট্রেন চলারই কথা নয়! তা সত্ত্বেও কেন ছুটল মেট্রো? তদন্তে কমিটি

দরজা বন্ধ না হলে ট্রেন চলারই কথা নয়! তা সত্ত্বেও কেন ছুটল মেট্রো? তদন্তে কমিটি
  • Share this:

#কলকাতা: পার্কস্ট্রিট থেকে ময়দানের দিকে যাচ্ছে মেট্রো। দরজা বন্ধ হতে দেখে তৎক্ষণাৎ হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন এক যাত্রী। তবুও দরজা খুলল না ! আর যাত্রীর হাত আটকানো অবস্থাতেই ময়দানের দিকে ছুটল মেট্রো। টানেলের দেওয়ালে ধাক্কা খেয়ে লাইনে ছিটকে পড়ে বেঘোরে প্রাণ গেল যাত্রী সজল কাঞ্জিলালের। কিন্তু কেন এই দুর্ঘটনা? মেট্রোর দরজায় যাত্রীর হাত আটকে যাওয়ার পরও কেন খুলল না দরজা? স্পষ্ট হচ্ছে মেট্রোর একাধিক গাফিলতিই।

চেন্নাই থেকে আনা মেধা কোচ এমআর চারশ দুই। এই সিরিজের কোচে প্রথম থেকেই সেন্সরের কাজ না করা নিয়ে সমস্যা ছিল। তা সত্ত্বেও ওই কোচ বদলানো হয়নি। এদিনও মেধা কোচই ছিল। প্রশ্ন উঠছে, গাফিলতির। তাহলে কি রেকেই যান্ত্রিক সমস্যা?  চুলের ক্লিপ, পেনের ঢাকনা বা ব্যাগের হ্যান্ডেল দরজার মাঝে পড়ে গেলে দরজা বন্ধ হওয়ার কথা নয় এক্ষেত্রে হাত আটকে থাকলেও কেন সেন্সর কাজ করল না? মোটরম্যান ও গার্ডকে ইতিমধ্যেই সাসপেন্ড করা হয়েছে।

তাছাড়াও মেট্রোর মোটরম্যান সিগনাল পেয়ে ট্রেন চালু করেন। গার্ড দেখে নেন যাত্রীরা উঠেছে কি না । সব ঠিক থাকলে গার্ড মোটরম্যানকে টকব্যাকে জানান ।  যাত্রী দরজার বাইরে ঝুললেও কী করে মোটরম্যান ও গার্ডের নজর এড়িয়ে গেল? সমস্ত মেট্রো প্ল্যাটফর্ম সিসি ক্যামেরায় মোড়া থাকে। যাঁরা সিসি ক্যামেরা মনিটর করেন, তাঁরা কেন দেখতে পেলেন না?দরজার বাইরে এক যাত্রী ঝুললেও কেন আরপিএফ দেখতে পেল না?ঘটনার তদন্তে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গড়েছে মেট্রো। রেক পরীক্ষার জন্য চেন্নাই থেকে আসছেন ইঞ্জিনিয়ররা। প্রশাসনিক তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন মেয়র ফিরহাদ হাকিমও।

First published: July 14, 2019, 10:02 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर