কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

স্কুল বন্ধই, পেশা রাখাই দায় পুলকার মালিকদের, দিন গুণছেন...

স্কুল বন্ধই, পেশা রাখাই দায় পুলকার মালিকদের, দিন গুণছেন...
বিগত সেই সব দিনের ছবি।

করোনা হামলার শুরু থেকে অর্থাৎ মার্চ মাস থেকেই এ রাজ্যে বন্ধ যাবতীয় স্কুল-কলেজ। আর তখন থেকেই রোজগার বন্ধ পুলকার মালিকদের।

  • Share this:

#কলকাতা: কলকাতার রাস্তায় স্কুলটাইমে ওদের সামাল দিতে হিমশিম খেতে হত পুলিশকে। এখন সেই পুলকার মালিক, চালকেরা হিমশিম খাচ্ছেন নিজেদের সংসার চালাতে।

করোনা হামলার শুরু থেকে অর্থাৎ মার্চ মাস থেকেই এ রাজ্যে বন্ধ যাবতীয় স্কুল-কলেজ। আর তখন থেকেই রোজগার বন্ধ পুলকার মালিকদের। পুলকার ওনার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোশিয়েসনের অরূপম দত্ত বলেন, "কলকাতা শহরে অন্তত ২০০০ পুলকার প্রতি দিন রাস্তায় নামত। আর পুলকারের সঙ্গে যুক্ত অন্তত চার হাজার জনের সংসার। তাঁদের সবারই সংসারের বেহাল দশা।"

অরূপমবাবুরা জানাচ্ছেন, মার্চ মাস থেকে টানা স্কুল বন্ধ থাকায় গাড়ি রাস্তায় কার্যত নামেনি। কারণ, পুলকার গাড়ির মালিকদের অন্য কোনও বাণিজ্যিক কারণে গাড়ি চালানোর অনুমোদন নেই। " এই অবস্থায় বেশির ভাগ গাড়িই বসে যাওয়ার জোগাড়। কেউ কেউ চোরাগোপ্তা অন্য ভাড়া খাটছে। এ ছাড়া কোনও উপায় নেই", বলছেন এক মালিক।

অরূপ সিংহ নামের এক চালক বলেন, "কোনও রকমে আমাদের সংসার চলছে। অনেকে তো সবজি বিক্রি করছেন। কবে যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে কে জানে!"

পুলকার অ্যাসোশিয়েশনের সম্পাদক সুদীপ দত্ত বলেন,"পরিস্থিতি এত খারাপ যে, আমরা অভিভাবকদের ৫০% বেতন দেওয়ার অনুরোধ করেছি। যাতে আমরা অন্তত সংসার চালাতে পারি। কিন্তু তাতে বেশির ভাগ অভিভাবক রাজি নন।"

পুলকারে নিজের সন্তানকে স্কুলে পাঠান, এমন এক অভিভাবক নিবেদিতা বন্দ্যোপাধ্যায় পাল্টা বলছেন, "আমাদেরও তো বেতন অমে গিয়েছে। দিনের পর দিন পরিষেবা নেই। আমরাই বা টাকা দেব কী করে!"

Published by: Arka Deb
First published: November 8, 2020, 11:33 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर