পুবের শহরে ‘পশ্চিমী হাওয়া’, বিদেশের পুজো এবার স্বদেশের মাটিতে

পুবের শহরে ‘পশ্চিমী হাওয়া’, বিদেশের পুজো এবার স্বদেশের মাটিতে

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Sep 03, 2017 10:03 AM IST
পুবের শহরে ‘পশ্চিমী হাওয়া’, বিদেশের পুজো এবার স্বদেশের মাটিতে
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Sep 03, 2017 10:03 AM IST

 #কলকাতা: পশ্চিমী হাওয়া। এবার সেই হাওয়াতেই মন্ডপ সাজাচ্ছেন শিল্পী পূর্ণেন্দু দে। অনাবাসী ভারতীয়দের প্রবাসের পুজো পরিবেশই বাদামতলা আষাঢ় সঙ্ঘের মণ্ডপে। উনআশিতম বছরে এটাই থিম। বিদেশের পুজো যারা দেখেননি তাঁদের কাছে অভিনব। আর যারা দেখেছেন, তাঁদের নস্ট্যালজিয়া।

পুজোর বাজি পশ্চিমী হাওয়া। মণ্ডপে ঢুকেই মনে হতেই পারে, চলে এসেছেন, মার্কিন মুলুকে। কোন এক প্রবাসী বাঙালি আড্ডায়। যেখানে চলছে দুর্গা আরাধনা। যেভাবে প্রবাসিরা পুজো করেন আর কি। উদ্যোক্তারা দু’হাজার সতেরকে ঘোষণা করা হয়েছে ভারত-মার্কিন পর্যটন বছর হিসেবে। সেই পর্যটনের একটা বড় দিক মার্কিন মুলুকের বং কানেকশন।

শুধু মণ্ডপসজ্জাই নয় এবার আলোকসজ্জাতেও কলকাতাবাসীকে চমক দেবে বাদামতলা আষাঢ় সঙ্ঘ। দাবি উদ্যোক্তাদের। সেখানেও থাকবে মার্কিনী টাচ। পুবের শহরে পশ্চিমী হাওয়া।

গত বছর ৬৬ পল্লিতে ছিলেন। এবার শিবির বদলে কয়েক পা দূরেই বাদামতলা আষাঢ় সঙ্ঘের পুজোর মণ্ডপসজ্জার দায়িত্ব নিয়েছেন শিল্পী পূর্ণেন্দু দে। শিল্পীর দাবি, অতি আধুনিক শহরের অনাবাসী ভারতীয়দের প্রবাসের পুজোর পরিবেশকে কলকাতার রাস্তার তুলে আনার চেষ্টা করছেন তিনি। এটাই পশ্চিমী হাওয়া।

প্রবাসী পুজোর পরিবেশ তুলে ধরতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি শহরের পুজো পরিবেশকে বেছে নিয়েছেন শিল্পী। সেখানকার আধুনিক স্থাপত্যকে তুলে ধরতে আর্ট কলেজের ছাত্রদেরও কাজে লাগাচ্ছেন শিল্পী পূর্ণেন্দু দে। কিন্তু কোন শহরের সঙ্গে এই আত্মীয়তা। সেটা জানা যাবে কাজ শেষ হওয়ার পর।

First published: 10:03:01 AM Sep 03, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर