‘‘ জিএসটি চালু হলে শুধু বাংলা নয়, গোটা আঞ্চলিক ইন্ডাস্ট্রিতেই এর প্রভাব পড়বে ’’: প্রসেনজিৎ

আগামী ১ জুলাই থেকে কেন্দ্রীয় সরকারের জিএসটি চালুর সিদ্ধান্তে ভালমতোই হতাশ টলিউডের কলাকুশলীরা ৷

Siddhartha Sarkar
Updated:Jun 11, 2017 05:24 PM IST
‘‘ জিএসটি চালু হলে শুধু বাংলা নয়, গোটা আঞ্চলিক ইন্ডাস্ট্রিতেই এর প্রভাব পড়বে ’’: প্রসেনজিৎ
Siddhartha Sarkar
Updated:Jun 11, 2017 05:24 PM IST

#কলকাতা: সিনেমার টিকিট ১০০ টাকার কম দাম হলে তাতে ১৮ শতাংশ জিএসটি এবং ১০০ টাকার বেশি হলে তাতে ২৮ শতাংশ জিএসটি লাগু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার ৷ করের হারের এই ‘রিভিউ’-এর পরেও অবশ্য একেবারেই খুশি নন বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির তারকারা ৷ আগামী ১ জুলাই থেকে কেন্দ্রীয় সরকারের জিএসটি চালুর সিদ্ধান্তে ভালমতোই হতাশ টলিউডের কলাকুশলীরা ৷

অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের মতে, ‘‘ জিএসটি চালু হলে বাংলা শুধু নয়, গোটা আঞ্চলিক ফিল্ম-ইন্ডাস্ট্রিতেই এর ব্যাপক প্রভাব পড়বে ৷ আঞ্চলিক সিনেমাকে জিএসটি-র সর্বাধিক স্ল্যাবেই ফেলা হয়েছে ৷ এটা সত্যি দুর্ভাগ্যজনক ৷ সোনার মতো ৩ শতাংশ করলে আপত্তি নেই ৷ আমাদের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে নেশার জিনিস এক করা হচ্ছে কেন ? এরকম হলে কাজ বন্ধ হয়ে যাবে ৷ ’’

অন্যদিকে অভিনেত্রী পার্নো মিত্রের কথায়,  ‘‘ আমাদের ইন্ডাস্ট্রি খুব ছোট ৷ প্রত্যেকেই যথেষ্ট স্ট্রাগল করেন ৷ এই সময় জিএসটি চালু করা সত্যি অবাক করার মতোই ঘটনা ৷ সিনেমার টিকিটের দাম পড়লে তার সবচেয়ে বড় প্রভাব পড়বে দর্শকদের উপর ৷ আমি তাই এর সম্পূর্ণ বিরোধীতা করছি ৷ ’’  

বিশেষজ্ঞদের মতে এই পণ্য পরিষেবা করের বোঝা সহ্য করতে পারবে না বাংলা ছবি। এমনিতেই বেশ কয়েকবছর ধরে বাংলা ছবিতে লাভ তো দূর অস্ত, লগ্নির টাকা উদ্ধার করতেই হিমশিম খেতে হচ্ছে প্রযোজকদের। শুধু প্রযোজনাই নয়, জিএসটি-র প্রভাব পড়বে বাংলা ছবির সঙ্গে যুক্ত লক্ষ লক্ষ মানুষের রুটি রুজিতেও বলে মনে করা হচ্ছে।

First published: 05:21:25 PM Jun 11, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर