Home /News /kolkata /
বেড়েছে ফার্স্ট ক্লাসের সংখ্যা, স্নাতকোত্তর স্তরে ছাত্র ভর্তিতে জায়গা মিলবে? উদ্বিগ্ন অধ্যাপকরাই

বেড়েছে ফার্স্ট ক্লাসের সংখ্যা, স্নাতকোত্তর স্তরে ছাত্র ভর্তিতে জায়গা মিলবে? উদ্বিগ্ন অধ্যাপকরাই

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের মূলত স্নাতকোত্তর স্তরের ছাত্র ভর্তিতে আসন সংখ্যা নির্দিষ্ট । বিএ এবং বিএসসিতে যতসংখ্যক ফার্স্ট ক্লাস পড়ুয়া পেয়েছে কত সংখ্যক আসন আদৌও পূরণ করা সম্ভব তা নিয়ে সংশয়

  • Share this:

#কলকাতা: ষষ্ঠীর দিনে বি.কম এর ফলাফল এবং সপ্তমীর দিনে বিএ এবং বিএসসি পার্ট থ্রি অনার্স এর অর্থাৎ স্নাতক স্তরের চূড়ান্ত বর্ষের ছাত্রছাত্রীদের ফলাফল প্রকাশ করেছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। ফলাফলের নিরিখে বেড়েছে ফার্স্ট ক্লাসে উত্তীর্ণ সংখ্যা।আর তা নিয়েই চিন্তিত খোদ বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপকরাই। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের মূলত স্নাতকোত্তর স্তরের ছাত্র ভর্তিতে আসন সংখ্যা নির্দিষ্ট । বিএ এবং বিএসসিতে যতসংখ্যক ফার্স্ট ক্লাস পড়ুয়া পেয়েছে কত সংখ্যক আসন আদৌও পূরণ করা সম্ভব তা নিয়ে সংশয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকদের একাংশ। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর গত কয়েক বছরের তুলনায় এ বছর অনেক বেশি ফাস্ট ক্লাস পেয়েছেন ছাত্রছাত্রীরা বিএ বিএসসি অনার্স এ।

কথা ছিল ৩১ অক্টোবরের মধ্যেই রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলি স্নাতক স্তরের চূড়ান্ত বর্ষের ছাত্রছাত্রীদের ফলাফল প্রকাশ করবে। কিন্তু তার আগেই কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় স্নাতক স্তরের বিএ, বিএসসি ও বিকম এর ফাইনাল ইয়ারের ফলাফল প্রকাশ করে দিল। অক্টোবরের ১ থেকে ১৮ তারিখ পর্যন্ত বাড়িতে বসেই ছাত্রছাত্রীরা পরীক্ষা দিয়েছেন।

মূলত অনলাইনেই প্রশ্নপত্র ডাউনলোড করে বাড়িতে বসেই ওপেন বুক সিস্টেমে পরীক্ষা দিয়ে আবার উত্তরপত্র আপলোড করে পাঠিয়ে দিয়েছেন ছাত্র-ছাত্রীরাই। সে ক্ষেত্রে যে সমস্ত ছাত্র-ছাত্রী অনলাইনে উত্তর পত্র পাঠাতে পারেনি তারা অফলাইনে কলেজে গিয়ে তাদের অভিভাবকরা উত্তর পত্র জমা দিয়েছেন। যদিও অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার সমস্যার জন্য কলকাতারই একটি কলেজ আবার ছাত্র-ছাত্রীদের কলেজের ক্লাস রুমে বসে এই পরীক্ষা নিয়েছে। যদিও খুব কমসংখ্যক ছাত্র-ছাত্রীদের এক্ষেত্রে অনুমতি দেওয়া হয়েছিল কলেজের ক্লাস রুমে বসে পরীক্ষা দেওয়ার।

তবে শুধু কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় নয়, ষষ্ঠীর দিন এই রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় ফাইনাল ইয়ারের ছাত্র ছাত্রীদের ফলাফল প্রকাশ করে দিয়েছে স্নাতক স্তরের। ফাইনাল ইয়ারের ফলাফল প্রকাশ করা হলেও স্নাতকোত্তর স্তরের ভর্তি কবে থেকে হবে সেই বিষয়ে অবশ্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলির তবে এখনো পর্যন্ত নির্দিষ্টভাবে কিছু জানানো হয়নি।

সূত্রের খবর, দূর্গা পূজার পর বিশ্ববিদ্যালয়গুলি খুললেই সে ক্ষেত্রে স্নাতকোত্তর স্তরের ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু করে দিতে পারে বিশ্ববিদ্যালয়গুলি। যদিও ৩১ অক্টোবরের মধ্যেই স্নাতক স্তরের চূড়ান্ত বর্ষের ছাত্রছাত্রীদের ফলাফল প্রকাশ করার কথা ফলে নভেম্বর মাসের আগে স্নাতকোত্তর স্তরের ভর্তি প্রক্রিয়া কার্যত শুরু হওয়া যে অসম্ভব তা মেনে নিচ্ছেন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকরাই।

 সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Elina Datta
First published:

Tags: Graduation Result

পরবর্তী খবর