বেতন নির্দেশিকা পুনর্বিবেচনার আর্জি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যপালকে চিঠি অধ্যাপক সংগঠনগুলির

বেতন নির্দেশিকা পুনর্বিবেচনার আর্জি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যপালকে চিঠি অধ্যাপক সংগঠনগুলির

গত ৩০ শে ডিসেম্বর কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকদের বেতন বাড়ানোর নির্দেশিকা জারি করে উচ্চ শিক্ষা দপ্তর। ইউজিসির সপ্তম পে কমিশন ম

  • Share this:

#কলকাতা: এবার বেতন নির্দেশিকার পুনর্বিবেচনার আর্জি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যপালের দ্বারস্থ রাজ্যের অধ্যাপক সংগঠনগুলি। গত ৩০ শে ডিসেম্বর রাজ্যের উচ্চশিক্ষা দফতরের তরফে ইউজিসির সপ্তম পে-স্কেল মেনে নয়া বেতনক্রম চালুর কথা নির্দেশিকা আকারে জারি করা হয়। চলতি বছরের পয়লা জানুয়ারি থেকে তা দেওয়ার কথা বলা হলেও সন্তুষ্ট নন অধ্যাপক সংগঠনগুলি। ইউজিসি র সপ্তম পে কমিশন মানা হচ্ছে না বলেই অভিযোগ অধ্যাপক সংগঠনগুলির। আর তাই রাজ্যের তরফে জারি করা বেতন নির্দেশিকা ফের পুনর্বিবেচনা আর্জি রাখল রাজ্যের সব বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যাপক সংগঠনগুলি। শুক্রবার ই মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যপালকে চিঠি পাঠিয়ে দ্রুত বিবেচনা করতে বলেছে সংগঠনগুলি।

গত ৩০ শে ডিসেম্বর রাজ্যের কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকদের বেতন বাড়ানোর নির্দেশিকা জারি করে উচ্চ শিক্ষা দফতর। ইউজিসির সপ্তম পে কমিশন মেনে অধ্যাপকদের বেতন বাড়ানোর কথা বলা হলেও চলতি বছরের পয়লা জানুয়ারি থেকে তা কার্যকর করার কথা বলা হয় উচ্চ শিক্ষা দপ্তরের তরফে। কিন্তু ইউজিসি সপ্তম পে কমিশন মানেনি রাজ্য এমনটাই অভিযোগ ওঠে অধ্যাপক সংগঠনগুলির তরফে। মূলত ইউজিসি পয়লা জানুয়ারি ২০১৬ থেকে এই বেতনক্রম দেওয়ার কথা বললেও রাজ্য তা মানেনি বলে অভিযোগ করে অধ্যাপক সংগঠনগুলি। মূলত রাজ্যের এই বেতন বাড়ানোর নির্দেশিকা নিয়ে সম্প্রতি আলোচনায় বসেন অধ্যাপক সংগঠনগুলি। শুক্রবার ই রাজ্যের সব বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজগুলির অধ্যাপক সংগঠনগুলি তরফে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকার কে পাঠানো হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়েছে মূলত রাজ্য যে বেতনক্রম কার্যকর করেছে ইউজিসি সপ্তম বেতন পে কমিশন মেনে করা হয়নি। রাজ্যের বেতনক্রম এর এই নির্দেশিকা র জেরে অধ্যাপকরা ২০১৬ র পয়লা জানুয়ারি থেকে বকেয়া পাওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। শুধু তাই নয় অধ্যাপকদের পিএইচডি, এমফিল এর বেতন বাড়ানোর টাকা দেওয়া হচ্ছে না। অধ্যাপক সংগঠন গুলির দাবি এই সুবিধা গুলি না দিলে অনেক যুবকরা এই চাকরি থেকে আগ্রহ হারাচ্ছেন। শুক্রবার পাঠানো চিঠিতে দ্রুত এই নির্দেশিকা পুনর্বিবেচনা র আবেদন রাখা হয়েছে অধ্যাপক সংগঠনগুলির তরফে। এ বিষয় শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন"চিঠি পেলে অধ্যাপক সংগঠনগুলির সঙ্গে কথা বলা হবে।"

সোমরাজ বন্দোপাধ্যায়

First published: January 17, 2020, 8:03 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर