corona virus btn
corona virus btn
Loading

১লা জানুয়ারি থেকে বেতন বৃদ্ধি হলেও সন্তুষ্ট নয় অধ্যাপক সংগঠনগুলি

১লা জানুয়ারি থেকে বেতন বৃদ্ধি হলেও সন্তুষ্ট নয় অধ্যাপক সংগঠনগুলি
  • Share this:

Somraj Bandopadhya 

#কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা মত রাজ্যের কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকদের বেতন বাড়ছে ২০২০র পয়লা জানুয়ারি থেকে। সোমবার এই মর্মে নির্দেশিকা জারি করল উচ্চ শিক্ষা দফতর। ইউজিসির সপ্তম বেতন ক্রোম মেনে রাজ্যের উচ্চ শিক্ষা দপ্তর বেতন বাড়ানোর নির্দেশিকা জারি করেছে। তবে ইউজিসির সুপারিশ মত ১লা জানুয়ারি ২০১৬ থেকে বকেয়া বা এরিয়ারের টাকা না দেওয়ায় অসন্তুষ্ট অধ্যাপক সংগঠনগুলি। নতুন বছরের শুরু থেকেই আন্দোলনে জোরদার প্রস্তুতি শুরু করছেন তারা।

সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সব অধ্যাপকদের নিয়ে নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে সভা করেছিলেন। সভাতেই রাজ্যের কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকদের বেতন বাড়ানোর ঘোষণা ও করেছিলেন তিনি। কিন্তু বেতন বাড়ানোর ঘোষণা করলেও সেই সময় মুখ্যমন্ত্রী বকেয়া বা এরিয়ার টাকার বিষয়ে কোনো স্পষ্টট ঘোষণা করেননি। তা নিয়ে অধ্যাপকদের মধ্যে অসন্তোষ ছিল। বিভিন্ন অধ্যাপক সংগঠনের তরফে বকেয়া টাকা দেওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রী ও শিক্ষা মন্ত্রীকে চিঠি লেখা হয়েছিল। অবশেষে সোমবার বেতন বাড়ানোর নির্দেশিকা জারি করে রাজ্যের উচ্চ শিক্ষা দফতর। নির্দেশিকায় ইউজিসির সপ্তম বেতন ক্রম মেনে বেতন বাড়ানোর কথা বলা হয়েছে। পয়লা জানুয়ারি ২০২০ থেকে এই নয়া বেতনক্রম কার্যকরী হবে। নয়া এই বেতনক্রম কার্যকরের ফলে এক লাফে অনেকটাই বেতন বাড়ছে রাজ্যের কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকদের।

উচ্চশিক্ষা দফতর সূত্রে খবর অ্যাসিস্ট্যান্টট প্রফেসরদের বেতন বাড়ছে এক ধাপে ১২ থেকে ১৫হাজার টাকা। অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর দের বেতন বাড়ছে প্রায় ১৮ থেকে ২০ হাজার টাকা। এবং প্রফেসরদের বেতন বাড়ছে ২৮ হাজার টাকা। তবে নির্দেশিকায় ইউজিসির সপ্তম বেতন ভাতা ১লা জানুয়ারি ২০১৬ থেকে কার্যকরী করার কথা বলা হলেও তা নির্দিষ্টভাবে নেই নির্দেশিকায়। নির্দেশিকায় বলা হয়েছে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর স্তরের কলেজগুলির অধ্যক্ষদের বেতন ক্রম পৃথক-পৃথক হবে।

এ দিকে এই বেতন বাড়লেও খুশি নন রাজ্যর অধ্যাপক সংগঠনগুলি। এ প্রসঙ্গে জুটা র সাধারণ সম্পাদক পার্থ প্রতিম রায় এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন "এই নির্দেশিকা অধ্যাপকদের অর্থনৈতিক বঞ্চনার শিকার করছে। মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পর আমরা কর্মবিরতি পালন করেছিলাম। কিন্তু বকেয়া টাকা না পাওয়ায় আমরা আন্দোলনের আরো প্রস্তুতি নিচ্ছি।"বিবৃতিতে অধ্যাপক সংগঠন কুটা একই কথা রেখেছে।

Published by: Pooja Basu
First published: December 30, 2019, 10:38 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर