• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগে নয়া নিয়ম

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগে নয়া নিয়ম

চতুর্থ দফা কাউন্সেলিংয়ের পর এই শূন্যপদে প্রার্থীদের নিয়োগ করা হবে । ওয়েটিং লিস্টে থাকা প্রার্থীদের নিয়োগ করা হবে ।

চতুর্থ দফা কাউন্সেলিংয়ের পর এই শূন্যপদে প্রার্থীদের নিয়োগ করা হবে । ওয়েটিং লিস্টে থাকা প্রার্থীদের নিয়োগ করা হবে ।

আইনি জট কাটিয়ে বহু প্রতীক্ষার পর বুধবারই হাইকোর্টের রায়দানের এক ঘণ্টার মধ্যেই নজিরবিহীনভাবে টেটের রেজাল্ট প্রকাশ করে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: আইনি জট কাটিয়ে বহু প্রতীক্ষার পর বুধবারই হাইকোর্টের রায়দানের এক ঘণ্টার মধ্যেই নজিরবিহীনভাবে টেটের রেজাল্ট প্রকাশ করে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ ৷ আদালতের নির্দেশ ও সরকারের প্রতিশ্রুতি মতো ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই শুরু হয়ে গেল প্রাথমিকে নিয়োগের প্রক্রিয়া ৷ প্রাথমিক শিক্ষা দফতর সূত্রে খবর, প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে এবছর নয়া নিয়ম চালু করতে চলেছে পর্ষদ ৷ ইন্টারভিউতেই চাকরিপ্রার্থীদের দিতে হবে টিচিং ডেমোস্ট্রেশন ৷

    ফল প্রকাশের পর দ্রুতই সফল পরীক্ষার্থীদের ইন্টারভিউয়ের জন্য ডাকবে পর্ষদ ৷ কিন্তু তার আগে নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে বৃহস্পতিবার বৈঠকে বসেছেন পর্ষদ আধিকারিকরা ৷ বহুদিন ধরে আটকে থাকার পর এবার ৪০ হাজার শূন্য শিক্ষকপদে শুরু হবে নিয়োগ ৷ কিন্তু নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরুর আগেই পর্ষদ সূত্রে খবর, এবার থেকে নতুন নিয়মে হবে নিয়োগ ৷

    টেট পরীক্ষায় পাস করার পর এবার সফল পরীক্ষার্থীরা ইন্টারভিউ পর্বে অংশগ্রহণ করবেন ৷ সেখানে চলবে চুড়ান্ত পর্যায়ের বাছাই প্রক্রিয়া ৷ এবছর ইন্টারভিউ বোর্ডেই টিচিং ডেমোস্ট্রেশন দিতে হবে প্রার্থীদের ৷ তার উপর থাকবে পাঁচ নম্বর ৷ প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক পদে নিয়োগের আগে পরীক্ষার্থীদের যোগ্যতা ও দক্ষতা যাচাইয়ের জন্যই এই নয়া নিয়ম শুরু করছে পর্ষদ ৷

    আরও পড়ুন

    হাইকোর্টের নজিরবিহীন নির্দেশ, উচ্চতর বেঞ্চে যাওয়া যাবে না

    পর্ষদ সূত্রে জানা গিয়েছে, সার্টিফিকেট দেওয়ার পরেই নিয়োগের জন্য আলাদাভাবে আবেদন করতে হবে সফল প্রার্থীদের।

    তবে নিয়োগে অগ্রাধিকার পাবেন প্রশিক্ষিতরাই ৷ ২০১৫-এ টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ও প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের সবার আগে চাকরি দেবে সরকার। এরপর শূন্যপদ থাকলে প্রশিক্ষণহীনদের চাকরি দেওয়ার ব্যাপারে ভাবা হবে। নথি অনুযায়ী, এ পর্যন্ত ১৯ হাজার প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থী রয়েছেন। ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ করবে রাজ্য।

    আরও পড়ুন

    হাইকোর্টের রায়ে পথ খুলল বহু কর্মসংস্থানের

    অনেক প্রশ্ন জিইয়ে রেখে, হাইকোর্টের রায়ের ঘণ্টাখানেকের মধ্যে বুধবার টেট ও উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগের জোড়া ফল প্রকাশ করল রাজ্য। ফল বেরোতেই নিয়োগের আশায় বুক বাঁধছেন সফলরা। যদিও, এখনও স্পষ্ট নয় নিয়োগের প্রক্রিয়া। সাফল্যের হার কত তাও সামনে আসেনি।

    ফল বেরোলেও, পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে ঘোরাফেরা করছে বহু প্রশ্ন। উত্তর পাওয়া যায়নি, কত জন প্রশিক্ষিত ও প্রশিক্ষণহীন পরীক্ষা দিয়েছিলেন বা সফল হয়েছেন তা স্পষ্ট হয়নি। নিয়োগ প্রক্রিয়া কী হবে তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে। টেট উত্তীর্ণদের সার্টিফিকেট দেওয়া হবে। কবে তা শুরু হবে তা জানানো হয়নি।

    মামলা উঠে গেলে ১৫ দিনে ৬৫ লক্ষ চাকরি দেওয়ার ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই কথা মাথায় রেখে দুই ক্ষেত্রেই দ্রুত নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করতে চায় কমিশন ও পর্ষদ।

    First published: