টাকা না দেওয়ায় প্রসূতির পেটে 'লাথি'! অভিযুক্ত আরজি করের নিরাপত্তারক্ষী

টাকা না দেওয়ায় প্রসূতির পেটে 'লাথি'! অভিযুক্ত আরজি করের নিরাপত্তারক্ষী

শুক্রবার খাস কলকাতায় সরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠল, তা শুনে যে কেউ শিউড়ে উঠবেন৷ টাকা দিতে অস্বীকার করায় দুই অন্তঃসত্ত্বাকে মারধরের অভিযোগ উঠল আরজি করের এক নিরাপত্তারক্ষী ও আয়ার বিরুদ্ধে৷

  • Share this:

#কলকাতা: সরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ নতুন নয়৷ নতুন নয় রোগী ও তাঁর পরিবারের হয়রানির অভিযোগও৷ হাসপাতালের একশ্রেণীর কর্মীদের দালালচক্রের খবরও মাঝেমধ্যে শোনা যায়৷ কিন্তু শুক্রবার খাস কলকাতায় সরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠল, তা শুনে যে কেউ শিউড়ে উঠবেন৷ টাকা দিতে অস্বীকার করায় দুই অন্তঃসত্ত্বাকে মারধরের অভিযোগ উঠল আরজি করের এক নিরাপত্তারক্ষী ও আয়ার বিরুদ্ধে৷

ঘটনার সূত্রপাত শুক্রবার দুপুরে৷ আরজি করের মেডিসিন বিভাগে ভর্তি বেলগাছিয়ার বাসিন্দা মহম্মদ নাসির৷ তাঁকে দেখতে হাসপাতালে যান পরিবারের সদস্য়রা৷ তাঁদের মধ্যেই ছিলেন দুই অন্তঃসত্ত্বা, অঞ্জু বিবি ও মঞ্জু বিবি৷ অভিযোগ ভিজিটিং আওয়ার্স পেরিয়ে যাওয়ায়, রোগীর সঙ্গে দেখা করতে ২০ টাকা চায় ওয়র্ডের নিরাপত্তারক্ষী৷ টাকা দিতে অস্বীকার করায় প্রথমে বচসা ও তারপর হাতাহাতির শুরু৷ অভিযোগ, সেসময় ছ'মাসের অন্তঃসত্ত্বা মঞ্জু বিবির পেটে লাথি মারে নিরাপত্তারক্ষী৷ তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা অঞ্জু বিবিকেও মারধরের অভিযোগ ওঠে হাসপাতালের আয়ার বিরুদ্ধে৷ দু'জনই অসুস্থ হয়ে পড়লে, তড়িঘড়ি তাঁদের আরজি করের মহিলা বিভাগে ভর্তি করা হয়৷

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার পরিস্থিতি তৈরি হয় হাসপাতলে। পরে টালা ও মানিকতলা থানার বিশাল পুলিশবাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। নিরাপত্তারক্ষী ও আয়ার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে আক্রান্ত মহিলাদের পরিবার৷ দোষ প্রমাণিত হলে কাউকে রেয়াত করা হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আরজি করের অধ্যক্ষ শুদ্ধধন বটব্যাল৷

ABHIJEET CHANDRA

First published: January 31, 2020, 7:14 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर