পাতে টান পড়েছে পোস্তর পদে, পোস্তর দাম নিয়ে উদ্বিগ্ন রাজনৈতিক নেতারাও

পাতে টান পড়েছে পোস্তর পদে, পোস্তর দাম নিয়ে উদ্বিগ্ন রাজনৈতিক নেতারাও

পোস্তর দাম বৃদ্ধি নিয়ে শুরু কেন্দ্র-রাজ্য চাপানউতোর।

  • Share this:

#কলকাতা: মঞ্চে গরম ভাষণ। মিটিং-মিিছলে গরম গরম বক্তৃতা। দিনভর তপ্ত কর্মসূচির মধ্যে নিজেকে ঠান্ডা না রাখলে তো চলবে না। শরীর ঠান্ডা রাখতে পোস্তর জুড়ি মেলা ভার। রাজনৈতিক নেতারাও তাই পাতে পোস্তকে এগিয়েই রাখছেন। গত কয়েকদিনে পোস্তর দাম বেড়েছে অনেকটাই। পোস্তর দাম বৃদ্ধি নিয়ে শুরু কেন্দ্র-রাজ্য চাপানউতোর।

শুনতে পেলাম পোস্তা গিয়ে, পোস্তর নাকি দাম বেড়েছে? ঠাট্টা করে বললেও, শুধু পোস্তায় নয়, রাজ্যজুড়েই মহার্ঘ পোস্ত। পোস্তর আগুন দামে হাত পুড়ছে বাঙালির। বর্ধমান, বীরভূম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম মেদিনীপুরের মত রাঢ়বঙ্গের জেলার মানুষের কাছে পোস্ত প্রায় প্রতিদিনের খাবার। এইসব জেলার রাজনৈতিক নেতারাও বলছেন, পোস্ত না হলে চলে না। যেমন, প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। তাঁর পছন্দ ডাল আর পোস্ত ৷ তিনি বলছেন পোস্ত পেলে আর কী লাগে? প্রিয় পোস্তর নাম শুনেই কৃষিমন্ত্রী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখেও মুচকি হাসি।

পোস্তর দামে আমবাঙালির এহেন কাঁদো কাঁদো অবস্থার জন্য দুই মন্ত্রীই দুষছেন কেন্দ্রকে। তাঁরা বলছেন, সব পণ্যেরই লাগামছাড়া দাম বেড়েছে। পোস্তর বড়া আর রসা রসা করে আলু পোস্ত। বিজেপি রাজ্য সভাপতি ও সাংসদ দিলীপ ঘোষও পোস্তপ্রেমী। তিনি বলছেন, রাজ্যে চাষ করলেই দাম কমবে পোস্তর। পোস্ত খেয়ে পস্তেছেন, এমন বাঙালি তো নেই। কিন্তু পোস্ত কিনে পস্তেছেন, এখন কি এই অবস্থাই হবে? গরম ভাতে পোস্ত ছাড়া কি পেট ভরবে রাঢ়বাংলার?

First published: August 20, 2019, 8:23 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर