corona virus btn
corona virus btn
Loading

গঙ্গা দূষণ সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করতে পুলিশের জলযাত্রা

গঙ্গা দূষণ সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করতে পুলিশের জলযাত্রা

মানুষকে সচেতন করতে ২৮০ কিলোমিটার দূরত্ব জলপথে পাড়ি দিয়ে মানুষকে সচেতন করার চেষ্টা করল পুলিশ। প্রথমবার পুলিশের পক্ষ থেকে এরকম উদ্যোগ নেওয়া হল

  • Share this:

Sujay Pal

#কলকাতা: গঙ্গা কীভাবে দূষিত হয় সে সম্পর্কে নদীপাড়ের বাসিন্দাদের অনেকেই হয়তো সঠিকভাবে জানেন না। নিজের অজান্তেই তাঁরা হয়ত দূষণ ছড়িয়ে ফেলেন। তাই সেই সকল মানুষকে সচেতন করতে ২৮০ কিলোমিটার দূরত্ব জলপথে পাড়ি দিয়ে মানুষকে সচেতন করার চেষ্টা করল পুলিশ। প্রথমবার পুলিশের পক্ষ থেকে এরকম উদ্যোগ নেওয়া হল।
গত ১ ডিসেম্বর মুর্শিদাবাদ থেকে শুরু হয় বাইচ। শনিবার কলকাতার বাজা কদমতলা ঘাটে যাত্রা শেষ করে পুলিশের বাইচ। এই দীর্ঘ ২৮০ কিলোমিটার যাত্রাপথ সাতদিনে শেষ করা হয়। রোজ ৪০ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করেছে ৯ জনের দলটি। রোজ যেখানে শেষ হয়েছে পরদিনই ওই এলাকার স্কুল-কলেজের পড়ুয়া ও এলাকার মানুষদের নিয়ে সচেতনতা শিবির আয়োজন করা হয়েছে। গঙ্গায় মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করেন এমন মানুষদেরও বোঝানো হয়েছে কিভাবে দূষিত হচ্ছে গঙ্গা। কিভাবে দূষণের হাত থেকে বাঁচাতে হবে গঙ্গাকে তাও বোঝানো হয়েছে।পুলিশের যে দলটি মুর্শিদাবাদ থেকে কলকাতা পর্যন্ত বাইচ করেছে, তাঁদের মধ্যে একজন বলেন, "সচেতনতা শিবিরে অনেকেই এসেছিলেন যাঁরা মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করেন। তাঁরা জানিয়েছেন আগে জাল ফেললে কয়েক কিলো মাছ উঠতো। এখন তেমন মাছ ওঠে না। কিছু লোক জলে বিষ ছড়িয়ে মাছ মেরে বেশি মাছ তুলে নিচ্ছে। এভাবেও দূষণ ছড়াচ্ছে।"তবে মানুষকে সচেতন করেই গঙ্গাকে দূষণের হাত থেকে বাঁচানো যাবে না সে ব্যাপারে বারবার সতর্ক করেছেন পরিবেশবিদরা। গঙ্গা লাগোয়া বিভিন্ন কারখানা থেকে উৎপন্ন বর্জ্য পদার্থও কোনও ভাবে যাতে গঙ্গায় না ফেলা হয়, তাও সুনিশ্চিত করতে হবে। কলকাতা পুলিশের কমব্যাট ফোর্সের ডিসি কর্নেল নাগেন্দ্র সিংহ পল বলেন, "নদী দূষণ রোধের উদ্দেশ্যে আমরা এই জলপথে অভিযান করেছি। এরপর হাজার কিলোমিটার জলপথে যাত্রা করবে আমাদের দল। মানুষের মধ্যে নদী দূষণ সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে এরকম জলযাত্রা চলবে।"
First published: December 7, 2019, 9:40 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर