• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • PLAN TO PARTY OVERNIGHT WITH DRINKS AND DRUGS IN PARK HOTEL WOWS KOLKATA POLICE SB

Kolkata Police: রুম বুক করে মদ-গাঁজা সহ পার্টির প্ল্যান! পার্কস্ট্রিট কাণ্ডে হতবাক পুলিশও

বাজেয়াপ্ত এই দুটি গাড়িও...

Kolkata Police: পার্ক হোটেলে যে এভাবে পার্টি চলছে, সেই খবর গোপন সূত্রে কলকাতা পুলিশের কাছে যায়। এরপরই শনিবার গভীর রাতে ৩ জন আইপিএস-র নেতৃত্বে ৫০ জনের একটি দল তল্লাশি অভিযান চালায়।

  • Share this:

    #কলকাতা: করোনা আবহে বন্ধ নাইট ক্লাব। কিন্তু অভিজাত হোটেলের করিডোরে লাউড সাউন্ড সিস্টেম ব্যবহার করে চলছিল উইকএন্ড পার্টি। কলকাতা পুলিশের অভিযানে ওই অভিজাত হোটেল থেকে গ্রেফতার ৩৭। হোটেল কর্তৃপক্ষ ও ধৃতদের বিরুদ্ধে বিপর্যয় মোকাবিলা আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে। পুলিশের কাজে বাধা দান ও পুলিশকে হেনস্থার অভিযোগ রয়েছে ধৃতদের বিরুদ্ধে।

    করোনা পরিস্থিতিতে রাজ্য জুড়ে জারি রয়েছে কড়া বিধি নিষেধ। বিধিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে গত কয়েকদিন ধরে পার্ক স্ট্রিট থানা এলাকায় অভিজাত হোটেলে রুম বুক করে রীতি মতো হুল্লোর পার্টি। এই তথ্য হাতে আসতেই খোঁজ নিতে শুরু করে লালবাজার। শনিবারও ওই হোটেলের তিন ও চার তলায় রুম বুকিং আছে। সন্ধ্যার পর থেকে করিডোরে নাইট পার্টির প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। এই তথ্য লালবাজারে আসতেই অভিযান চালানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়। সেই মোতাবেক রাত সাড়ে ১২টার পর কলকাতা পুলিশের গুন্ডা দমন শাখা ও পার্ক স্ট্রিট থানার পুলিশ অভিযান চালায় ওই হোটেলে। গোয়েন্দাদের দাবি, সেই সময় হোটেলের ভিতরে করিডোরে ডিজে ডিস্ক ব্যবহার করে লাউড সাউন্ড সিস্টেম বাজিয়ে পার্টি চলছিল। সঙ্গে মদ থেকে হুক্কা, বাদ নেই গাঁজাও। ঘটনাস্থল থেকেই ৩৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে দুটি বিলাসবহুল গাড়ি।

    হোটেল করিডোর থেকে মিলেছে মদের বোতল। এমনকি গাঁজা সেবন করা হচ্ছিল বলেও অভিযোগ। মিলেছে গাঁজাও। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে দুটি ডিজে ডিস্ক, লাউড সাউন্ড সিস্টেম। পুলিশ উদ্ধার করেছে গেস্ট লিস্টও। কী ভাবে পার্টি চলত? গোয়েন্দারা জানাচ্ছেন, একই গ্রুপের দু-তিন জন আলাদা আলাদা রুম বুক করতেন। এরপর প্রতিটি রুম পিছু দুএকজন গেস্ট আসবে বলা হত। আর এই সুযোগে বুকিং থাকা প্রতিটি রুমে ৬/৭ জন করে গেস্ট ঢুকে পড়তেন। সব মিলিয়ে কখনও গেস্টের সংখ্যা ২৫, আবার কখনও ৩০ থেকে ৪০। এর পর হোটেলের ভিতরে করিডোরে ব্যবস্থা হত পার্টির। সেই পার্টির ব্যবস্থা করত হোটেল কর্তৃপক্ষ, দাবি লালবাজারের। পুরো বিষয়টাই পরিকল্পনা করে চলছিল বলে জানিয়েছেন যুগ্ম কমিশনার (অপরাধ) মুরলিধর শর্মা। শহরের আর কোনও অভিজাত হোটেলে এমন পার্টি চলছে কিনা, তা নিয়ে খোঁজ খবর শুরু হয়েছে। আগামি দিনে অভিযান চালানো হবে বলে লালবাজার সূত্রে খবর। যদি কোনও হোটেলে এমন বিষয় ধরা পড়ে, তাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেবে পুলিশ।

    ---অমিত সরকার

    Published by:Suman Biswas
    First published: