Home /News /kolkata /

এবার PhD ও এমফিলরাও আবেদন করছেন প্রধান শিক্ষকের পদে

এবার PhD ও এমফিলরাও আবেদন করছেন প্রধান শিক্ষকের পদে

রধান শিক্ষক নিয়োগের নিয়মাবলিতে নয়া সংযোজন ৷ এবার প্রধান শিক্ষকের পদে আবেদন করতে পারবেন পিএইচডি ও এমফিল প্রার্থীরা

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা:  প্রধান শিক্ষক নিয়োগের নিয়মাবলিতে নয়া সংযোজন ৷ এবার প্রধান শিক্ষকের পদে আবেদন করতে পারবেন পিএইচডি ও এমফিল প্রার্থীরা ৷ এখনও পর্যন্ত পিএইচডি ও এমফিল প্রার্থীরা প্রধান শিক্ষকের পদে আবেদন করতে পারলেও, বেশি ডিগ্রি থাকায় কোনও বাড়তি সুবিধা পেতেন না তারা ৷ কিন্তু এবার নিয়মাবলিতে নয়া সংযোজন আসতে চলেছে ৷ আবেদনপ্রা‍র্থীদের যদি পিএইচডি ও এমফিল ডিগ্রি থাকে তাহলে তার জন্য থাকবে বাড়তি নম্বর ৷ এর ফলে অনেকটাই লাভবান হতে চলেছেন পিএইচডি ও এমফিল প্রার্থীরা ৷ বেশ অনেকটা নম্বরে তারা এগিয়ে থাকবেন বাকি প্রার্থীদের থেকে ৷ সম্প্রতি এমনটাই জানানো হয়েছে শিক্ষা দফতরের তরফে ৷ সাধারণত PhD/MPhil বা সমতুল অন্য কোনও উচ্চশিক্ষাগত ডিগ্রি থাকলে কলেজে আবেদন করে থাকেন প্রার্থীরা ৷ কিন্তু রাজ্যের চাকরির বেহাল অবস্থা দেখে এখন স্কুলেও আবেদন করছেন অনেক প্রার্থীরা ৷ কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনার জন্য পিএইচডি আবশ্যিক। কিন্তু ডিগ্রি থাকলেও চাকরি মিলছে না ৷ তাই বাধ্য হয়েই স্কুলে আবেদন করছে তারা ৷ তবে অন্য প্রার্থীরা এই সিদ্ধান্তে বেশ ক্ষুব্ধ ৷ তাদের মতে উচ্চশিক্ষাগত ডিগ্রি থাকায় তারা এবার থেকে অনেকটাই এগিয়ে থাকবে ৷ তাই কেবল স্নাতকোত্তর ও বিএড করা প্রার্থীরা প্রতিযোগিতার দৌড়ে অনেকটাই পিছিয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে ৷ সম্প্রতি পিএইচডি করানোর ক্ষমতা ফের কলেজের অধ্যাপকদের হাতে তুলে দিয়েছে ইউজিসি। ফলে, এবার থেকে রিসার্চ সুপারভাইজার হিসেবে কাজ করতে পারবেন কলেজের পূর্ণ সময়ের অধ্যাপক-অধ্যাপিকারাও। এর জন্য অবশ্য নূন্যতম একটু যোগ্যতামানও রেখেছে UGC ৷ এর জেরে রাজ্যে PhD প্রার্থীর সংখ্যা বাড়তে চলেছে বলে মনে করা হচ্ছে ৷ স্নাতকোত্তর স্তরে পড়াশোনার পর গবেষণার যোগ্যতা থাকলেও বঞ্চিত হতেন অনেকেই। কারণ, বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে রিসার্চ সুপারভাইজারের সংখ্যা কম হওয়ায় অনেক মেধাবী ছাত্রই সুযোগ পেতেন না পিএইচডি করার। সেই সমস্যা দূর করতে ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণের পথে হেঁটেছে ইউজিসি। শিক্ষা দফতরের নতুন নিয়মের ফলে আরও বেশি পিএইচডি ও এমফিল প্রার্থীরা প্রধান শিক্ষক পদের জন্য আবেদন করবেন বলে মনে করা হচ্ছে ৷ এর ফলে একইসঙ্গে, পড়াশোনার মান ধরে রাখার বিষয়টিও বজায় রাখতে সুবিধা হবে ৷

    First published:

    Tags: Bengali News, ETV News Bangla, PhD/MPhil Candidates, PhD/MPhil Candidates Applying for Head Master Posts, School HeadMaster Recruitment, Teacher Recruitment

    পরবর্তী খবর