corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাস্তায় আলো, বাড়িতে অন্ধকার! এভাবে আর কতদিন! বিদ্যুৎ বিক্ষোভে ফুঁসছেন ওঁরা

রাস্তায় আলো, বাড়িতে অন্ধকার! এভাবে আর কতদিন! বিদ্যুৎ বিক্ষোভে ফুঁসছেন ওঁরা
দক্ষিণ কলকাতার বহু পাড়ার ছবিটা এখন এমনই।

বিষয়টা এমন, বিদ্যুৎ আছে আবার নেইও। চড়া দামে জেনারেটর ভাড়া করে মোটর পাম্প জলের ব্যবস্থা, মোবাইল চার্জ করতে করতে হাঁপিয়ে উঠেছেন মানুষ।

  • Share this:

#কলকাতা: আমফানে গাছ কি শুধু দক্ষিণ কলকাতায় উপড়েছে, উত্তর  কোলকাতায় নয়?  উত্তর যদি 'না' হয় তবে কেন আমফান ঘূর্ণিঝড়ের ৬ দিন পড়েও বিদ্যুৎ আসবে না?  উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর প্রশ্নে কিছুটা অস্বস্তিতে পড়ে গেলেন  সিইএসসি কর্মী। গোদের ওপর বিষফোঁড়া হয়ে রাস্তার আলো জ্বলছে আর পাশেই ফ্ল্যাটের বারান্দাগুলো অন্ধকার।

বিষয়টা এমন, বিদ্যুৎ আছে আবার নেইও। চড়া দামে জেনারেটর ভাড়া করে মোটর পাম্প জলের ব্যবস্থা,  মোবাইল চার্জ করতে করতে হাঁপিয়ে উঠেছেন মানুষ।পাড়ার ছেলেরা একজোট হয়ে করাত, কুড়ুল কিনে গাছ সাফ করেছে। তারপরও সিইএসসি দেখা নেই।

৯৮ নম্বর ওয়ার্ডের শাসক দলের ব্লক সভাপতি বিশ্বনাথ চক্রবর্তীর কথায়, "স্থানীয় বিধায়কের চেষ্টায় কাটোয়া থেকে বিদ্যুৎ কর্মীরা কাজে নেমেছেন। কিন্তু প্রয়োজনীয় মাল না থাকার কারণে ছেঁড়া তার মেরামত করে বসে থাকছেন তারা। মনে হচ্ছে সোমবার রাতেও বিদ্যুৎ ঘরে পৌঁছাবে না।"

নেতাজিনগর, বিজয়গড়, রানিকুঠির রাস্তার মোড়ে মোড়ে সোমবার সন্ধেয় যুদ্ধকালীন তৎপরতায় কাজ করছেন বিদ্যুৎ কর্মীরা। সিইএসসি বিভিন্ন জেলা থেকে বিদ্যুৎ কর্মীদের ভাড়া করে কাজ সামাল দেওয়ার চেষ্টা করছে। কর্মরত বিদ্যুৎ কর্মী জানালেন, "তার টেনে ঠিক করে দিচ্ছি কিন্তু এরপরের কাজ সম্পূর্ণ করার জন্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম লাগবে।"

চলছে বিদ্যুৎ সংযোগ ফেরানোর কাজ। চলছে বিদ্যুৎ সংযোগ ফেরানোর কাজ।

কিন্তু তাতেও বিদ্যুৎ আসেনি বহু বাড়িতে। স্থানীয় বাসিন্দা, পেশায় আইনজীবী শমীক চট্টোপাধ্যায় জানাচ্ছেন, "আয়লার সময়ে এত বেগ পেতে হয়নি। বাড়িতে বিদ্যুৎ-জল নেই। ইন্টারনেট না থাকায় অতি প্রয়োজনীয় মামলার ড্রাফট তৈরি করতে পারছি না।" স্থানীয় ক্লাব সভাপতি শঙ্কর চক্রবর্তীর গলাতেও খেদ। বলছেন,  " কাউন্সিলর উধাও। পাড়ার ছেলেরাই গাছ কাটছে। বিদ্যুৎ কর্মীদের এলাকায় নিয়ে আসছে। তাদের খাওয়ার ব্যবস্থা করছে। আনকোরা হাতে গাছ কাটতে গিয়ে একজনের আঙুল কেটে গেছে। সিইএসসি বিদ্যুৎ বিল দেই দেশের অন্যান্য শহরের তুলনায়। ইতিমধ্যে অবরোধ করেছি। আজ বিদ্যুৎ না হলে আরও বড় কিছু হবে। "

Published by: Arka Deb
First published: May 25, 2020, 10:25 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर