• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • বিজেপির অভিনন্দন যাত্রার জেরে তীব্র যানজট শহর জুড়ে, দুর্ভোগে স্কুল পড়ুয়া থেকে অফিস যাত্রীরা

বিজেপির অভিনন্দন যাত্রার জেরে তীব্র যানজট শহর জুড়ে, দুর্ভোগে স্কুল পড়ুয়া থেকে অফিস যাত্রীরা

বেলা দুটোয় মিছিল শুরুর পরই ধর্মতলা থেকে শ্যামবাজার পর্যন্ত গোটা সেন্ট্রাল এভিনিউ অবরুদ্ধ হয়ে যায়।

বেলা দুটোয় মিছিল শুরুর পরই ধর্মতলা থেকে শ্যামবাজার পর্যন্ত গোটা সেন্ট্রাল এভিনিউ অবরুদ্ধ হয়ে যায়।

বেলা দুটোয় মিছিল শুরুর পরই ধর্মতলা থেকে শ্যামবাজার পর্যন্ত গোটা সেন্ট্রাল এভিনিউ অবরুদ্ধ হয়ে যায়।

  • Share this:

ABHIJIT CHANDA

#কলকাতা: সপ্তাহের প্রথম কাজের দিনেই কলকাতার উত্তর থেকে দক্ষিণ তীব্র যানজট।দুপুর একটার সময় নাগরিকত্ব আইন-এর সমর্থনে বিজেপি রাজ্য কমিটির ডাকে অভিনন্দন যাত্রা রাজা সুবোধ মল্লিক স্কোয়ার থেকে সেন্টাল এভিনিউ হয়ে শ্যামবাজার পর্যন্ত। এই ছিল মিছিলের রুট।আর তার জেরে সকাল থেকেই কলকাতার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ রাস্তায় শুরু হয়ে যায় তীব্র যানজট। সকাল থেকেই শিয়ালদহ স্টেশন, হাওড়া স্টেশন থেকে একের পর এক মিছিল আসতে শুরু করে ওয়েলিংটনে। কলকাতা ট্রাফিক পুলিশ বিভিন্ন রাস্তায় নো এন্ট্রি' বোর্ড ঝুলিয়ে দেয়। বিভিন্ন রাস্তায় ঘুরিয়ে দেওয়া হয় যানবাহন। সকালেই শ্যামবাজার থেকে শোভাবাজার পর্যন্ত সেন্ট্রাল এভিনিউ এর একপাশ বন্ধ করে দেওয়া হয়। বিটি রোড ধরে আসা গাড়ি, বাস, বেলগাছিয়ার দিক থেকে আসা গাড়িগুলোকে রাজা দীনেন্দ্র স্ট্রিট দিয়ে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়। বেলা দুটোয় মিছিল শুরুর পরই ধর্মতলা থেকে শ্যামবাজার পর্যন্ত গোটা সেন্ট্রাল এভিনিউ অবরুদ্ধ হয়ে যায়। এর পাশাপাশি গনেশ চন্দ্র এভিনিউ,লেনিন সরণি,কলেজস্ট্রিট,এস এন ব্যানার্জি রোড, এপিসি রোড, এ জে সি বোস রোড কার্যত বন্ধ হয়ে যায়। সারি সারি গাড়ি বাস দাঁড়িয়ে পড়ে। সোদপুর- এর বর্ণালী গুহ,তৃতীয় শ্রেণীতে পড়া মেয়ে ক্যামেলিয়াকে আনতে দুপুর একটার সময় বউবজার লোরেটো স্কুলে আসেন। দুপুর দুটোর  সময় ছুটি হওয়ার কথা। কিন্তু ছুটির পরই শুরু হয়ে যায় বিপত্তি। গোটা বিবি গাঙ্গুলী স্ট্রিট, সেন্ট্রাল এভিনিউ জুড়ে একের পর এক গাড়ি দাঁড়িয়ে অন্যান্য দিন বউবাজার থেকে হেঁটে শিয়ালদহ স্টেশন পর্যন্ত যান বর্ণালী দেবী। এদিন একপ্রকার বাধ্য হয়েই সেন্ট্রাল স্টেশন থেকে মেট্রো ধরে প্রচন্ড ভিড় ঠেলে দমদমে নামেন। শুধু বর্ণালী দেবীকে নয়,আরও অসংখ্য মানুষকে এদিন ভোগান্তির শিকার হতে হয়। তীব্র ট্রাফিক জ্যামের কারণে অনেকেই শিয়ালদহ বা হাওড়া স্টেশন থেকে ট্রেন মিস করেন। গত এক সপ্তাহ ধরেই কলকাতার বিভিন্ন প্রান্তে এন আর সি, সি এ এ নিয়ে যে আন্দোলন চলছে তার জেরে প্রতিদিনই সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত তীব্র যানজট লেগেই থাকছে।কোনদিন তৃণমূলের মিছিল, তো কোনদিন সিপিএম, কোনদিন আবার বিজেপি। কেউ পক্ষে, কেউবা আবার বিপক্ষে। তবে এসবের বাইরে বেরিয়ে অসংখ্য সাধারণ মানুষের যে চূড়ান্ত ভোগান্তি হচ্ছে প্রতিদিনই তা বলাই বাহুল্য।
Published by:Elina Datta
First published: