Home /News /kolkata /
Partha Chatterjee: 'ওকে জুতো মারতেই এসেছিলাম, মেরেছি, এখন খালি পায়ে ফিরছি', পার্থকে জুতো ছুড়ে বললেন মহিলা

Partha Chatterjee: 'ওকে জুতো মারতেই এসেছিলাম, মেরেছি, এখন খালি পায়ে ফিরছি', পার্থকে জুতো ছুড়ে বললেন মহিলা

যদিও শুভ্রার ছোড়া জুতো পার্থের গায়ে লাগেনি। আর তাই মহিলা আক্ষেপ, '' জুতোটা ওর  টাকে লাগলে শান্তি পেতাম।''

  • Share this:

    #কলকাতা: হাসপাতালের বাইরে তখন টানটান উত্তেজনা! উত্তেজনায় রীতিমতো কাঁপছিলেন শুভ্রা ঘড়ুই নামে জোকা ইএসআই-এ এক আত্মীয়ের চিকিৎসা করাতে আসা ওই মহিলা! আমতলার শুভ্রা যে এখন বহু সাধারণ মানুষের কাছেই  'রিয়েল লাইফ হিরো', তা বোঝা গেল হাসপাতাল চত্বরে হাজির অগুন্তি মানুষের প্রতিক্রিয়া থেকেই! কেউ বলছেন, '' বেশ করেছে'', কেউ বা বলছেন, '' আমি ওকে সমর্থন করি'', কারও বা মত, '' একজন শিক্ষামন্ত্রীর এমন কাজ করা শোভা পায় না!''

    ঠিক কী করেছেন শুভ্রা? বেনজির কাণ্ড! দিনে-দুপুরে, প্রকাশ্য দিবালোকে, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গাড়ি লক্ষ্য করে জুতো ছুড়লেন তিনি। তখন সবে মেডিক্যাল টেস্ট শেষে জোকা ইএসআই হাসপাতালের বাইরে এসেছেন অপসারিত মন্ত্রী পার্থ। যদিও শুভ্রার ছোড়া জুতো পার্থের গায়ে লাগেনি। আর তাই মহিলা আক্ষেপ, '' জুতোটা ওর  টাকে লাগলে শান্তি পেতাম।''

    আরও পড়ুন: মন্ত্রিসভার রদবদলের আগেই দশ দফতরকে নিয়ে জরুরি বৈঠকে মুখ্যসচিব, জোর চর্চা নবান্নে

    হাসপাতালের বাইরে তখন টানটান উত্তেজনা! উত্তেজনায় রীতিমতো কাঁপছিলেন শুভ্রা ঘড়ুই নামে ওই মহিলা! হলুদ শাড়ি, গোলাপি ব্লাউজ, কপালে ছোট্ট টিপ, মুখে মাস্ক আঁটা... আপাতদৃষ্টিতে নিপাট ছা-পোষা চেহারার শুভ্রাই করে ফেললেন বেনজির এক কাজ ! জুতো মারলেন প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে। সাংবাদিকরা ছেঁকে ধরতেই বললেন,'' আমার পেশেন্ট অসুস্থ, আমি ওষুধ নিতে এসেছি। আমায় ছেড়ে দিন।'' কিন্তু তারপরেই তাঁর স্বীকারোক্তি চমকে দেওয়ার মতো, '' আমি ওনাকে জুতো মারতে এসেছি, জুতো মেরে খালি পায়ে ঘরে ফিরছি।''

    সাংবাদিকরা যখন প্রশ্ন করেন, কেন জুতো ছুঁড়ে মারলেন? গর্জে উঠলেন মহিলা, '' কেন জুতো মেরেছি জানেন না? জনসাধারণ, গরিব মানুষের থেকে টাকা নিয়েছে, তারপর ফ্ল্যাট কিনেছে ওই কোটি কোটি রাখার জন্য!'' তাঁর অভিযোগ, '' ওনাকে এসি গাড়ি চরানো হচ্ছে? হুইলচেয়ারে বসানো হচ্ছে! ওনাকে গলায় দড়ি দিয়ে টানতে টানতে নিয়ে আসবেন।'' আমি আরও খুশি হতাম, টাকাটা যদি ওনার টাকে লাগত!''

    আরও পড়ুন: টাকা আমার নয়, অনুপস্থিতিতে- অজান্তে ঘরে টাকা ঢোকানো হয়েছে: বিস্ফোরক অর্পিতা

    আদালতের নির্দেশ অনুসারে ৪৮ ঘণ্টা তফাতে মেডিক্যাল টেস্ট করানো হচ্ছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়-অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে। সেই মতো মঙ্গলবার সকালে দু'জনকে সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্স থেকে নিয়ে আসা হয় ইএসআই হাসপাতালে! এদিন হুইলচেয়ারে করে হাসপাতালে ঢোকার সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নে নীরবই থাকলেন রাজ্যের সদ্য অপসারিত মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। যদিও এর আগে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে এসে সরব হয়েছেন পার্থ! কখনও বলেছেন, ''আমি ষড়যন্ত্রের শিকার', কখনও বা বলেছেন '' টাকা আমার নয়।''

    অন্যদিকে, হাসপাতালে ঢোকার সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে অর্পিতা মুখোপাধ্যায় জানান, 'এই টাকা আমার নয়৷ আমার অনুপস্থিতিতে এবং আমার অজান্তে আমার ঘরে টাকা ঢোকানো হয়েছে৷' যদিও কে সেই টাকা রেখেছে সে বিষয়ে কিছু বলার সুযোগ পাননি অর্পিতা৷ কিন্তু যেহেতু তিনি পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ হিসেবে প্রমাণ পেয়েছে ইডি, তাই অর্পিতার এই স্বীকারোক্তিতে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীর চাপ আরও বাড়ল৷ যদিও অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের এ দিনের দাবি ঘিরে যথেষ্ট প্রশ্ন থাকছেই৷ কারণ তাঁর অনুপস্থিতিতে কেউ কীভাবে তাঁর ফ্ল্যাটে ঢুকে কোটি কোটি টাকা রেখে গেল, সেই প্রশ্ন থেকেই যায়৷ সেক্ষেত্রে তাঁর ঘনিষ্ঠ কারও কাছেই ফ্ল্যাটের চাবি থাকত, এমন সম্ভাবনাই সামনে আসে৷ এই ঘনিষ্ঠ ব্যক্তি কে, সেটাই জানতে চায় ইডি৷

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: Partha Chatterjee

    পরবর্তী খবর