Bengal Cabinet Minister Partha Chatterjee : "আমি শিক্ষা অনেকটা এগিয়ে দিয়েছি, এবার ব্রাত্য ধরবে", শিল্পের ব্যাটন হাতে বললেন পার্থ

'চ্যালেঞ্জ' নেই, বললেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee) বলেন, "যখন শিল্প (Industry) থেকে শিক্ষায়(Education) দিয়েছিল সেটাও তো চ্যালেঞ্জ ছিল। আর শিল্প তো আমার পরিচিত ফিল্ড। আমি সুদীৰ্ঘদিন কর্পোরেটে কাজও করেছি। চ্যালেঞ্জের কিছুই নেই।

  • Share this:

#কলকাতা : মন্ত্রীসভাকে(Bengal Cabinet Ministers) ঢেলে সাজালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। একদিকে যেমন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পেলেন ব্রাত্য বসুরা। তেমনই দায়িত্ব বদল হল পার্থ চট্টোপাধ্যায়দের(Partha Chatterjee)। দফতর হারিয়ে শিক্ষা থেকে ফের শিল্পে ফিরেছেন পার্থ। এদিন নতুন দফতর পেয়ে যেমন নির্লিপ্ত শোনাল তাঁকে, তেমনই পরোক্ষে মনে করালেন পুরনো দফতরে তাঁর সাফল্যের খতিয়ান।

সোমবার রাজ্য মন্ত্রিসভার (West Bengal Cabinet Ministers) দফতর বণ্টনের পর দেখা যায় শিক্ষা থেকে ফের শিল্প দফতরে ফিরেছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। প্রথম তৃণমূল সরকারের শুরুতে এই দফতরের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। যদিও তাঁর সাফল্য নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠতে থাকে। এর পর পার্থবাবুকে সরিয়ে অমিত মিত্রকে শিল্প দফতরের অতিরিক্ত দায়িত্ব দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাতে রাজ্যের শিল্পায়নের ছবির তেমন বদল হয়নি। পুরনো দফতর ফিরে পেয়ে অবশ্য তেমন হেলদোল নেই এমন বার্তায় দিলেন তৃণমূলের প্রবীণ মুখ পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তবে পাশাপাশি ট্যুইট করে শিক্ষা দফতরে ৭ বছর কাজ করার জন্য ও তাঁকে কাজে সহযোগিতার জন্য এদিন ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

এদিন সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, "যখন শিল্প থেকে শিক্ষায় দিয়েছিল সেটাও তো চ্যালেঞ্জ ছিল। আর শিল্প তো আমার পরিচিত ফিল্ড। আমি সুদীৰ্ঘদিন কর্পোরেটে কাজও করেছি। চ্যালেঞ্জের কিছুই নেই। বরং শিক্ষাটা চ্যালেঞ্জ ছিল। তবে তাতেও আমি আমার দীর্ঘদিন ছাত্র আন্দোলন করার অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়েছিলাম। এদিন একইসঙ্গে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, করোনার অতিমারীতে সারা বিশ্বেই শিল্প ও বিনিয়োগের পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। সেখান থেকে শিল্পায়নের যে বার্তা নেত্রী দিয়েছেন তাকে সামনে রেখেই কাজ করতে হবে। তবে শিল্পক্ষেত্রের দায়িত্বে অমিত মিত্রকে বেশ কিছুটা নম্বর দিয়েছেন পোড় খাওয়া রাজনীতিক। তাঁর কথায়, "শিল্পে অমিত দা অনেকটাই এগিয়ে নিয়েছেন তাঁর পরামর্শ নিয়ে কাজ করব।"

নব নিযুক্ত শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু ও ফেলে আসা দফতর প্রসঙ্গে তৃণমূল সরকারের অন্যতম বরিষ্ঠ এই মন্ত্রী শিক্ষা দফতরে তাঁর সাফল্য স্মরণ করান। বলেন, "শিক্ষাকে অনেকটাই এগিয়ে দিয়েছি, ব্রাত্য নিশ্চই সেই ধারাকেই এগিয়ে নিয়ে যাবে।" তবে একইসঙ্গে এদিন তাঁর গলায় ছিল ক্ষোভের সুরও। তাঁর কথায়, "যখন শিক্ষায় ছিলাম তখন শিক্ষা নিয়ে অভিযোগ উঠেছে, আর এখন শিল্পে, এবার শিল্প নিয়ে শুরু হবে অভিযোগ। কিন্তু এখন অভিযোগের সময় নয়। একটা সামগ্রিক অর্থনৈতিক ও শিল্প মন্দা চলছে। সেকথা মাথায় রাখতে হবে।" আগামী দিনে অতিমারী ও তদজনিত সংকটের সঙ্গে লড়াই করে শিল্পায়নের যে রোড ম্যাপ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেখিয়ে দেবেন সেই পথেই একজন সৈনিক হিসেবে এগোবেন বলে এদিন মন্তব্য করেন পার্থ।

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Sanjukta Sarkar
First published: