‘কমিশনার মেরুদণ্ডহীন, শাসকের ভয়েই ভোলবদল', বিরোধীদের তোপের মুখে রাজ্য নির্বাচন কমিশন

‘কমিশনার মেরুদণ্ডহীন, শাসকের ভয়েই ভোলবদল', বিরোধীদের তোপের মুখে রাজ্য নির্বাচন কমিশন
File Photo

মেরুদণ্ডহীন রাজ্য নির্বাচন কমিশনার। পঞ্চায়েত ভোটে মনোনয়নের সময়সীমা বাড়ানোর পর রাত পেরোতেই সে সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার।

  • Share this:

#কলকাতা: মেরুদণ্ডহীন রাজ্য নির্বাচন কমিশনার। পঞ্চায়েত ভোটে মনোনয়নের সময়সীমা বাড়ানোর পর রাত পেরোতেই সে সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার। তার জেরেই এখন বিরোধীদের তোপের মুখে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। তাঁদের সাফ কথা, শাসকের চাপেই সিদ্ধান্ত বদল। তৃণমূলের পালটা যুক্তি, রাজ্যের পঞ্চায়েত আইনকে উপেক্ষা করে একতরফা ভাবে এই বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছিল।

সোমবার রাতে নজিরবিহীন ভাবে পঞ্চায়েত ভোটের মনোনয়ন জমার সময়সীমা বাড়ানোর বিজ্ঞপ্তি জারি করে সবাইকে চমকে দিয়েছিলেন রাজ্য নির্বাচন কমিশনার অমরেন্দ্রকুমার সিং। গুঞ্জন শুরু হয়েছিল, বিরোধীদের চাপেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার। বিজ্ঞপ্তি জারির সঙ্গে সঙ্গে বিজেপির সাংবাদিক সম্মেলন সে জল্পনাকে উস্কে দিয়েছিল।

বিজ্ঞপ্তি জারির পরেই সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন রাজ্যের পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। তাঁর দাবি ছিল, এই নতুন বিজ্ঞপ্তি রাজ্যের পঞ্চায়েত আইনের পরিপন্থী।

সেই অভিযোগ করেই কমিশনকে চিঠি দেয় তৃণমূল ও রাজ্য সরকার।

রাত পেরোতেই বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহার করে কমিশন। রে রে করে ওঠে বিরোধীরা। তাদের অভিযোগ, শাসক দলের চাপেই ভোল বদলালেন নির্বাচন কমিশনার। সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তীর অভিযোগ, সোমবার রাতেই রাজ্য নির্বাচন কমিশনার অমরেন্দ্রকুমার সিংয়ের বাড়িতে যান রাজ্যের চারমন্ত্রী। তাঁকে ভয় দেখানো হয়। একই সুর বিজেপি'র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের গলাতেও।

শুধু রাজনৈতিক দল নয়, বিজ্ঞপ্তি জারির কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই প্রত্যাহারে সংবিধান বিশেষজ্ঞরাও। হাস্যকর এই ঘটনা নির্বাচন কমিশনারের অপদার্থতাই প্রমাণ করছে বলে তাঁদের অভিমত।

First published: 09:04:38 AM Apr 11, 2018
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर