corona virus btn
corona virus btn
Loading

পুজোর আগেই রাজ্যে পুরোহিত ভাতা ঘোষণা, ভোটের রাজনীতি বলে কটাক্ষ বিরোধীদের

পুজোর আগেই রাজ্যে পুরোহিত ভাতা ঘোষণা, ভোটের রাজনীতি বলে কটাক্ষ বিরোধীদের

ইমাম-মোয়াজ্জমদের ভাতা নিয়েও বেশ চর্চা হয়েছিল রাজ্য রাজনীতিতে। বিরোধীদের কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়েছিল শাসক দলকে। এ বার পুরোহিত ভাতা নিয়েও নতুন করে বিতর্ক শুরু হয়েছে

  • Share this:

UJJAL ROY

#কলকাতা: পুরোহিতদের জন্য এ বার ভাতা চালু করল রাজ্য। রাজ্যের আট হাজার পুরোহিতকে মাসে এক হাজার টাকা করে আর্থিক সহায়তা দেওয়ার হবে। সোমবার নবান্নে এ কথা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। সোমবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে একথা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পুজোর মাস থেকেই পুরোহিতদের ভাতা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। পুজোর মাস থেকেই এটা কার্যকর হবে ।

এ দিকে পুরহিত ভাতা ঘোষণা করার সঙ্গে সঙ্গে রাজ্য রাজনীতিতে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। বাম বিজেপি এতে ভোটের গন্ধ পাচ্ছে। যদিও বামফ্রন্টের জোট শরিক কংগ্রেস এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন। কংগ্রেস বিধায়ক মিল্টন রসিদ প্রতিক্রিয়া দিয়ে বলেছেন, "আজ আমার বড়ই আনন্দের দিন। কারণ আমাদের রাজ্য সরকার পুরোহিত ভাতা ঘোষণা করেছে। এই পুরোহিত ভাতার জন্য পশ্চিমবঙ্গের পুরহিত, পণ্ডিতরা আমাকে দায়িত্ব দিয়েছিলেন। পশ্চিমবঙ্গে ২৯৪ জন বিধায়কের মধ্যে এই সংখ্যালঘু বিধায়ককেই তাঁরা জানিয়েছিলেন রাজ্য সরকারের কাছে পুরহিত পণ্ডিতদের ভাতা দেওয়ার দাবি তোলার জন্য। ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসে আমি বিধানসভায় প্রশ্ন আকারে আমি এই দাবি তুলেছিলাম। দলের কাছেও সহযোগিতা পেয়েছিলাম। দেরি হলেও আজ তা ঘোষণা করায় আমি রাজ্য সরকারের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। একইসঙ্গে পন্ডিত ও পুরোহিতদের কাছেও আমি কৃতজ্ঞ আমাকে এই সুযোগ দেওয়ার জন্য।"

কংগ্রেস সমর্থন করলেও এর বিরোধিতা করেছে সিপিএম। বিধানসভার বাম পরিষদীয় নেতা ও সিপিএমের রাজ্য সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য সুজন চক্রবর্তী বলেন, "মুখ্যমন্ত্রী আজকে পুরোহিত ভাতা ঘোষণা করেছেন। ৮০০০ পুরোহিতকে মাসে ১০০০ টাকা করে দেবেন। হঠাৎ ভোটের আগে এটা কেন মনে পড়লো? এটা সরকারের ব্যর্থতার লক্ষণ। ফেল করে গেছি আর পারব না যেখান থেকে হোক যে ভাবে হোক কিছু দিয়ে টিয়ে ভোট ম্যানেজ করা যায় কিনা। এবং ধর্মকে ব্যবহার করছেন নিজের ভোট রাজনীতির স্বার্থে। বরং কোভিড আবহে মানুষকে আর্থিক সাহায্য করা জরুরি ছিল। কেন্দ্র, রাজ্য চুপ। তারা কেউ কিছু করছেন না। যুবকদের কর্মসংস্থানের জন্য টাকা নেই। আর হিন্দুত্ব, মুসলমানত্ব, খ্রিস্টানত্বের জন্য টাকা আছে। বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা বলেন, "এখন মুখ্যমন্ত্রী সবাইকে সন্তুষ্ট করার জন্য পুরোহিত ভাতা, পাদ্রি ভাতা দেবে বলছেন। তা সবই ভোটের জন্য।"

উৎসবের মরশুম শুরুর মুখে বড় ঘোষণা পশ্চিমবঙ্গ সরকারের। এ বার পুরোহিতদেরও ভাতা দেবে সরকার। প্রতি মাসে পুরোহিতদের ১,০০০ টাকা করে ভাতা দেওয়া হবে।

নবান্ন সূত্রে খবর, ভাতার জন্য রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রায় ৮ হাজার পুরোহিত আবেদন করেছেন। প্রাথমিকভাবে তাঁদের প্রত্যেককে মাসিক আর্থিক সহায়তার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য। ভবিষ্যতে আরও নাম জমা পড়লে তা বিবেচনা করে পরবর্তী পদক্ষেপ করা হবে বলে আধিকারিকরা জানিয়েছেন।

ইমাম-মোয়াজ্জমদের ভাতা নিয়েও বেশ চর্চা হয়েছিল রাজ্য রাজনীতিতে। বিরোধীদের কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়েছিল শাসক দলকে। এ বার পুরোহিত ভাতা নিয়েও নতুন করে বিতর্ক শুরু হয়েছে। রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের আগে কোনও পক্ষই কোনও অস্ত্র ছাড়তে নারাজ।

Published by: Simli Raha
First published: September 15, 2020, 8:03 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर