Home /News /kolkata /
পাইকারি বাজারে দাম তেমন না বাড়লেও খুচরো বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে অগ্নিমূল্যে

পাইকারি বাজারে দাম তেমন না বাড়লেও খুচরো বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে অগ্নিমূল্যে

onion

onion

দিনে দিনে বাজারে প্রায় সব জিনিসের দাম আকাশ ছোঁয়া হয়ে যাচ্ছে। সরকার ঘোষণা করা সত্ত্বেও আলুর দাম কমার কোনও লক্ষণ নেই বাজারে। এরপর দাম বাড়তে শুরু করেছে পেঁয়াজেরও।

  • Share this:

#কলকাতা: জোগান রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমাণ। তারপরও খুচরো বাজারে দাম বেড়ে চলেছে পেঁয়াজের। কোলে মার্কেটের পাইকারি বিক্রেতারা বলছেন এর জন্য দায়ী খুচরো বিক্রেতারা। দিনে দিনে বাজারে প্রায় সব জিনিসের দাম আকাশ ছোঁয়া হয়ে যাচ্ছে। সরকার ঘোষণা করা সত্ত্বেও আলুর দাম কমার কোনও লক্ষণ নেই বাজারে। এরপর দাম বাড়তে শুরু করেছে পেঁয়াজেরও। খুচরো বাজারে কোথাও পেঁয়াজের দাম ২৫ টাকা প্রতি কেজি তো আবার কোথাও ৩০ টাকা প্রতি কেজি। অনেক জায়গায় আবার লাল পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে কেজি প্রতি ৩৫ টাকায়। কিন্তু পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দামের তেমন বিশেষ  হেরফের হয়নি।

সোমবার কোলে মার্কেটে নাসিকের পেঁয়াজের দাম ছিল প্রতি ৪০ কেজিতে ৬০০ থেকে  ৬৫০ টাকা, মধ্যপ্রদেশের পেঁয়াজের দাম ছিল প্রতি ৪০ কেজিতে ৬০০ থেকে ৭০০ টাকা। আর দক্ষিণ ভারত থেকে আসা পেঁয়াজ যা ম্যাড্রাসের পেঁয়াজ বা লাল পেঁয়াজ বলে পরিচিত তার দাম ছিল প্রতি ৪০ কেজির ৭০০ থেকে ৭৫০ টাকা। পাইকারি ব্যবসায়ীরা বলছেন, গত এক সপ্তাহে ৪০ কেজিতে গড়ে ৫০ থেকে ১০০ টাকা দাম বেড়েছে পেঁয়াজের। তার কারণ হিসেবে তারা বলছেন রাজ্যে দফায় দফায় লকডাউন, পেট্রোল ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি, বিহারে কিছুদিন আগে বন্যা হবে  পরিবহণ  ব্যবস্থায়  কিছুটা সমস্যা হয়েছে।

পাশাপাশি রাজস্থান থেকে যে পেঁয়াজ রাজ্যে আসে এবার তার জোগান নেই। কারণ এবার সেখান ফলন ভালো হয়নি। কোলে মার্কেটের পাইকারি পেঁয়াজ ব্যবসায়ী তরুণ ভৌমিক বলেন, করোনার জন্য  অনেক দিন  বাংলাদেশ  সীমান্ত  বন্ধ ছিল। সরকার এখন আবার খুলে দিয়েছে। সেখানে অনেক পেঁয়াজ রফতানি হয়েছে। তাই বাজারে যে পরিমাণ পেঁয়াজ মজুদ থাকে তা নেই।' কিন্তু তারপরও খুচরো বাজারে পেঁয়াজের দাম বাড়ার কোনও কারণ নেই বলেই মনে করছেন ব্যবসায়ীরা। অপর ব্যবসায়ী বিকাশ চন্দ্র বলেন, 'এখনও ঠিক মতো রেস্তোরাঁ, বার, ক্যান্টিন খোলেনি। সরকার অনুষ্ঠান বাড়িতে নিমন্ত্রিতের সংখ্যা বেঁধে দিয়েছে। এসব জায়গায় ভাল পরিমাণ পেঁয়াজ লাগত। সে সব প্রায় বন্ধ। ফলে বাজারে পেঁয়াজের চাহিদা তেমন নেই। সবচেয়ে সেরা পেঁয়াজটা আমরা হিসেব মতো কেজি প্রতি ১৬ থেকে ১৮ টাকায় বিক্রি করছি। যেটা খুচরো বাজারে খুব বেশি হলে ২০ থেকে ২২ টাকায় বিক্রি হওয়া উচিত।'

Published by:Pooja Basu
First published:

পরবর্তী খবর