বনধের দিন কি রাস্তায় মিলবে ওলা-উবের?

কর্মক্ষেত্রে যেতে জেন ওয়াইয়ের অন্যতম ভরসা অ্যাপ ক্যাব ৷ দরকারের সময় হাতের স্মার্ট ফোনটি খুলে বুক করলেই হল, দরজায় হাজির ক্যাব ট্যাক্সি ৷

কর্মক্ষেত্রে যেতে জেন ওয়াইয়ের অন্যতম ভরসা অ্যাপ ক্যাব ৷ দরকারের সময় হাতের স্মার্ট ফোনটি খুলে বুক করলেই হল, দরজায় হাজির ক্যাব ট্যাক্সি ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: কর্মক্ষেত্রে যেতে জেন ওয়াইয়ের অন্যতম ভরসা অ্যাপ ক্যাব ৷ দরকারের সময় হাতের স্মার্ট ফোনটি খুলে বুক করলেই হল, দরজায় হাজির ক্যাব ট্যাক্সি ৷ কিন্তু আগামী শুক্রবারও কি এই সুবিধাই পাবে কলকাতা নাকি অ্যাপ ক্যাব সংস্থাগুলি অন্যরকম কিছু ভাবছে!

    আগামী ২ সেপ্টেম্বর বামপন্থী ট্রেড ইউনিয়নগুলির ডাকা বনধে স্তব্ধ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে শহরের ৷ অন্যান্য বনধের দিনগুলির মতো রাস্তায় পাবলিক ট্রান্সপোর্ট অমিল হলে অফিসযাত্রীদের একমাত্র ভরসা হতে চলেছে অ্যাপ ক্যাব ৷ কিন্তু শহরের অ্যাপ ক্যাব সংস্থাগুলি সেদিন রাস্তায় গাড়ি নামাবে কিনা সে বিষয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্তে পৌঁছতে পারেনি ৷ বুধবার পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছে ওলা-উবের-এর মতো শহরের অ্যাপ ক্যাব সংস্থাগুলির শীর্ষে থাকা কর্তা ব্যক্তিরা ৷ উবেরের পক্ষ থেকে অবশ্য বলা হয়েছে, যে যেভাবেই হোক ক্যাব পরিষেবা চালু রাখতে তারা সব রকমভাবে চেষ্টা করবে ৷ যাত্রীরা যাতে নিরাপদে এবং কোনও বাধা ছাড়াই নিজেদের গন্তব্যে পৌঁছতে পারেন, সেই চেষ্টাই করা হবে ৷ এই বনধের দিন শহরে হাজারেরও বেশি উবের ড্রাইভার দিন-রাত সুষ্ঠু পরিষেবা দেওয়ার ব্যাপারে বদ্ধপরিকর ৷

    যদিও ২ সেপ্টেম্বর বনধে শহর সচল রাখতে মরিয়া প্রচেষ্টা চালাচ্ছে সরকার ৷ নজিরবিহীনভাবে কলকাতা পুরসভার তরফ থেকে বিজ্ঞাপন দিয়ে বনধ ব্যর্থ করতে দোকানবাজার খুলে রাখার এবং রাস্তায় যানবাহন চালানোর অনুরোধ করা হয়েছে ৷ খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বনধের দিন কোনও ক্ষতি হলে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথাও বলেছেন ৷

    বনধে রাস্তায় গাড়ি নামিয়ে কোনওরকম ক্ষতি হলে, সরকারী তরফে কোনও ক্ষতিপূরণ পাওয়া যাবে কি না এই বিষয়টিই জানতে চায় অন ডিমান্ড ক্যাব সংস্থাগুলি ৷ সাধারণ এই ধরনের সংস্থাগুলি ঝাঁ চকচকে দামী গাড়িই ক্যাব হিসেবে ব্যবহার করে ৷ যাত্রীদের চাহিদা মতো ডিজায়ার থেকে ইনোভা গাড়ি পরিবহণের জন্য পাঠায় এই ধরনের অ্যাপ ক্যাব ৷ বনধের দিন পথে গাড়ি নামিয়ে কোনও সমস্যা হলে ক্যাব ড্রাইভাররা বড় ক্ষতির সম্মুখীন হবেন ৷ সেই বিষয়টিই নিয়ে নিশ্চিত হতে চায় ক্যাব সংস্থা গুলি ৷ তাই বনধের দিন চাইলেই আপনি ওলা বা উবেরের পরিষেবা পাবেন কিনা তা জানতে আরও ২৪ ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে ৷

    তবে যদি বনধের দিন অ্যাপ ক্যাব সংস্থাগুলি রাস্তায় গাড়ি না চালায়, তাহলে বড় সমস্যার মুখে পড়বেন সরকারি অফিসযাত্রী থেকে শিল্পতালুক এবং আইটি সেক্টরের কর্মীরা ৷ ইতিমধ্যেই বনধের দিন সরকারি কর্মীদের হাজিরা নিশ্চিত করতে জারি হয়েছে গেজেট নোটিফিকেশন। যানবহন সচল রাখতে বাড়তি উদ্যোগ নিচ্ছে পরিবহণ দফতরও। ধর্মঘটীদের হাতে ব্যক্তিগত সম্পত্তির ক্ষতি হলে তার দায়ও নেওয়ার কথা জানিয়েছে রাজ্য সরকার।

    First published: