সামনে বসে কাউন্সিলার, কথা বলতে বলতেই মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়লেন বৃদ্ধা

সামনে বসে কাউন্সিলার, কথা বলতে বলতেই মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়লেন বৃদ্ধা

গোটা দৃশ্যটাই মোবাইলে ক্যামেরাবন্দি করছিলেন এক ব্যক্তি

  • Share this:

Abhijit Chanda

#কলকাতা: এও কি সম্ভব! কাকতালীয়,নাকি মৃত্যুর আগে শেষ ইচ্ছাপূরণ! মর্মান্তিক এক ঘটনার ছবি উঠে এলো কলকাতা দেশপ্রিয় পার্কে। সোমবার রাতে 'দিদিকে বলো' কর্মসূচির অঙ্গ হিসাবে দেশপ্রিয় পার্কের এক বস্তিতে ৭০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধার বাড়িতে যান কলকাতা পুরসভার দোর্দন্ডপ্রতাপ কাউন্সিলর তথা মেয়র পারিষদ উদ্যান দেবাশীষ কুমার। দরিদ্র বৃদ্ধার সুবিধা-অসুবিধার কথা জানতে চান তিনি। গোটা দৃশ্যটাই মোবাইলে ক্যামেরাবন্দি করছিলেন এক ব্যক্তি।

মেয়র পারিষদ দেবাশীষ কুমারকে পাশে পেয়ে তার দুর্দশার ঝুলি উপচে দিচ্ছিলেন ওই বৃদ্ধা। তার তিন মেয়ে। দুই মেয়ে তার দেখাশোনা করেন না, এক মেয়ে-জামাই তার দেখাশোনা করেন ও খাওয়া পড়ার ব্যবস্থা করেন‌৷ বাকি দুই মেয়ে এই ঘর থেকে তাকে উৎখাত করার সমস্ত চেষ্টা চালাচ্ছেন৷ এই অভিযোগ তিনি কাউন্সিলরকে জানাচ্ছিলেন। তার পাশে থাকাপ আশ্বাস দেন দেবাশীষ কুমার৷ এমনকি ওই বৃদ্ধাকে ওই ঘরে থেকে কেউ উৎখাত করতে পারবেন না এমন আশ্বাসও দেন দেবাশীষবাবু৷ সেই সময় আস্তে আস্তে বৃদ্ধার কথা জড়িয়ে যাচ্ছিল হঠাৎই বিপত্তি৷ যে খাটে বসে কথা বলছিলেন তিনি সেখানেই হঠাৎ পড়ে যান। দ্রুত তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা জানান হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে ।

আরও পড়ুনফোনে শেষবার হায়দরাবাদের গণধর্ষিতা যা বলেছিলেন বোনকে...

গোটা ঘটনাতেই হতবাক হয়ে যান পৌরসভার কাউন্সিলর তথা মেয়র পারিষদ দেবাশীষ কুমার৷ তবে ঘটনার আকস্মিকতায় হতভম্ব হয়ে গেল গেলেও ভবিষ্যতে এই পরিবারের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন দেবাশীষ কুমার।

First published: 10:00:53 AM Dec 04, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर