• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • রাজ্যে শীঘ্রই নামছে আরও ১৫০ ইলেকট্রিক বাস

রাজ্যে শীঘ্রই নামছে আরও ১৫০ ইলেকট্রিক বাস

ই-বাসের ভাড়া ঠিক করে দেবে বিশেষজ্ঞ কমিটি। জোর দেওয়া হচ্ছে আসানসোল, দুর্গাপুর ও শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়িতে ৷

ই-বাসের ভাড়া ঠিক করে দেবে বিশেষজ্ঞ কমিটি। জোর দেওয়া হচ্ছে আসানসোল, দুর্গাপুর ও শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়িতে ৷

ই-বাসের ভাড়া ঠিক করে দেবে বিশেষজ্ঞ কমিটি। জোর দেওয়া হচ্ছে আসানসোল, দুর্গাপুর ও শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়িতে ৷

  • Share this:

#কলকাতা:  ই-বাসের ভাড়া দুরত্ব পিছু কত হবে তা ঠিক করবে বিশেষজ্ঞ কমিটি। বায়ু দূষণের মোকাবিলায় রাজ্য সরকার কলকাতা, শিলিগুড়ি, হলদিয়া, দুর্গাপুর, আসানসোলে বেশি করে ইলেকট্রিক বাস চালাতে চায়। এই সমস্ত রুটে ইলেকট্রিক বাসের ভাড়া রাজ্য সরকার চায় বিশেষজ্ঞরাই তৈরি করে দিক।

ইলেকট্রিক বাস চালাতে ইতিমধ্যেই টেন্ডার ডেকেছে রাজ্য পরিবহণ দফতর। টেন্ডার প্রক্রিয়াতে অংশগ্রহণকারী সংস্থা দুরত্ব পিছু ভাড়া কত হবে তা দাখিল করেছে। কিন্তু তাদের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর না করে রাজ্য চাইছে বিশেষজ্ঞ সংস্থা দিয়ে তা যাচাই করতে। তার পরেই বেসরকারি সংস্থাকে বাস চালাতে দেওয়া হবে। ইলেকট্রিক বাস নিয়ে সম্পূর্ণ সিদ্ধান্ত জানানো হবে আগামী সপ্তাহের শুরুতেই।

 বায়ু দুষণ মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় সরকার চাইছে পেট্রোল-ডিজেল চালিত বাসের বদলে রাস্তায় আরও বেশি করে চলুক ই-বাস। কেন্দ্রীয় সরকারের ভারী শিল্পোদ্যোগ মন্ত্রক “ফেম” বা “ফাস্টার অ্যাডপশন অ্যান্ড ম্যানুফ্যাকচারিং অফ ইলেকট্রিক ভেহিকেলস ইন ইন্ডিয়া” প্রকল্পে ই-বাসের জন্য বিশেষ আর্থিক ছাড় দিয়ে থাকে। এই প্রকল্পে রাজ্য সরকার শুধুমাত্র কলকাতার জন্য প্রথম ধাপে ৮০ সরকারি বাস পেয়েছে। যা এই মুহূর্তে অপারেট করছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য পরিবহণ নিগম। তবে বিশেষ আর্থিক ছাড়ের নিয়মে এবার বদল হয়েছে। নয়া নিয়মে কোনও পরিবহণ নিগম নয় ই-বাস নির্মাণকারী সংস্থা এই বিশেষ আর্থিক ছাড় পাবে।

চালক এবং বাস রক্ষণাবেক্ষণ করবে ওই সংস্থাই। কন্ডাক্টর থাকবে রাজ্য সরকারের। টিকিট বিক্রির টাকা প্রতিদিন জমা পড়বে রাজ্য সরকারের কাছে। মাসের শেষে চুক্তি অনুযায়ী বাস মালিককে কিলোমিটার প্রতি ভাড়ার টাকা মিটিয়ে দেবে রাজ্য সরকার। যদি টিকিট বিক্রি থেকে সেই টাকা না আয় হয় তাহলে রাজ্যের কোষাগার থেকে মেটাতে হবে সেই টাকা। তবে ই-বাসকে নুন্যতম ৫ হাজার কিলোমিটার চলতেই হবে। দ্বিতীয় দফায় এই প্রকল্পে রাজ্যে আসতে চলেছে মোট ১৫০ ই-বাস। তার মধ্যে ৫০ ই-বাস চলবে নিউটাউন ও কলকাতার মধ্যে। বাকি সংখ্যক বাস চলবে আসানসোল, দুর্গাপুর, শিলিগুড়ি এই সমস্ত অংশে। রাজ্য সরকার বাস চালানোর জন্য ই-মার্কেটিং পোর্টালের মাধ্যমে টেন্ডার প্রকাশ করেছে। নিউটাউন ও কলকাতা বাদে বাকি জায়গার জন্য মাত্র একটি সংস্থা টেন্ডারে অংশগ্রহণ করেছিল। তাই ফের টেন্ডার ডাকা হয়। তার পরিপ্রক্ষিতে কোন সংস্থা বাস চালাবে সেই সিদ্ধান্ত আগামী সপ্তাহের শুরুতেই নেওয়া হবে। সেখানেই যাবে আগামী দিনে ই-বাসের ভাড়া ঠিক কত হবে।

Abir Ghoshal

First published: