• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • আজ থেকে শিয়ালদহ ডিভিশনে বাড়ল লোকাল ট্রেন

আজ থেকে শিয়ালদহ ডিভিশনে বাড়ল লোকাল ট্রেন

শিয়ালদহ ডিভিশন সূত্রে খবর, অফিস টাইমে ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানো হবে। সকাল ৮ টা থেকে ১১টা ও বিকেল ৪ টে থেকে সন্ধ্যা ৭টা অবধি চলবে ঘন ঘন ট্রেন।

শিয়ালদহ ডিভিশন সূত্রে খবর, অফিস টাইমে ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানো হবে। সকাল ৮ টা থেকে ১১টা ও বিকেল ৪ টে থেকে সন্ধ্যা ৭টা অবধি চলবে ঘন ঘন ট্রেন।

শিয়ালদহ ডিভিশন সূত্রে খবর, অফিস টাইমে ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানো হবে। সকাল ৮ টা থেকে ১১টা ও বিকেল ৪ টে থেকে সন্ধ্যা ৭টা অবধি চলবে ঘন ঘন ট্রেন।

  • Share this:

#কলকাতা: বাড়ছে শিয়ালদহ ডিভিশনে ট্রেনের সংখ্যা। আজ থেকে বাড়ানো হচ্ছে ট্রেন। শিয়ালদহ উত্তর, দক্ষিণ, মেন,  শাখায় বাড়ছে ট্রেন। সপ্তাহের প্রথম কাজের দিন থেকেই ট্রেন চলবে ৮৬০টি। বিশেষ করে শিয়ালদহ-কৃষ্ণনগর-লালগোলা সেকশনে বাড়ানো হচ্ছে ট্রেন। শিয়ালদহ ডিভিশন সূত্রে খবর, অফিস টাইমে ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানো হবে। সকাল ৮ টা থেকে ১১টা ও বিকেল ৪ টে থেকে সন্ধ্যা ৭টা অবধি চলবে ঘন ঘন ট্রেন। বিশেষ করে বড় বড় স্টেশনে ভিড়ের কথা চিন্তা করেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আপাতত পরিষেবা বেশি ট্রেন চালিয়ে স্বাভাবিক করতে চায় রেল।  আগামী ১১ নভেম্বর  থেকে রাজ্যে শুরু হয়েছে লোকাল ট্রেন চলাচল। আজ থেকে শিয়ালদহ ডিভিশনে বাড়ছে লোকাল ট্রেনের সংখ্যা। এতদিন শিয়ালদহ উত্তর ও দক্ষিণ শাখায় দিনে ৬৫৪ টি লোকাল ট্রেন চালানো হচ্ছিল। এবার আরও ২০৬ টি ট্রেন চালু করা হচ্ছে। চালু হচ্ছে ১২ টি ‘লেডিজ স্পেশ্যাল’ ট্রেনও।

গত ১১ নভেম্বর থেকে রাজ্যে পরিষেবা শুরুর পর শিয়ালদহ ডিভিশনে ধাপে ধাপে বেড়েছে লোকাল ট্রেনের সংখ্যা। ভিড় সামাল দিতে সকাল এবং সন্ধ্যার অফিস টাইমে ১০০ শতাংশ ট্রেন চালানো হতে থাকে। শুধুমাত্র দুপুর এবং রাতের দিকে ট্রেনের সংখ্যা অনেকটাই কম থাকছিল। এবার সেই সংখ্যাটাই বাড়ানোর পথে হেঁটেছে রেল। শিয়ালদহের তিন শাখা মিলিয়ে  আজ থেকে ৮৬০ টি ট্রেন চলবে।শিয়ালদহ উত্তরের লালগোলা, কৃষ্ণনগর, রানাঘাট, ব্যারাকপুর, নৈহাটি, বনগাঁ, বারাসত, হাসনাবাদ-সহ সব শাখায় পরিষেবা বাড়ানো হচ্ছে। একইভাবে শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখার ডায়মন্ড হারবার, লক্ষ্মীকান্তপুর, বারুইপুর, ক্যানিং, সোনারপুর, বজবজ-সহ সকল শাখায় লোকাল ট্রেনের সংখ্যা বাড়ালো রেল। ‘লেডিজ স্পেশ্যাল’ ট্রেনগুলিও আগের সময় মতোই চালানো হবে। হাওড়া থেকে খড়গপুর, মেদিনীপুর, পাঁশকুড়া, আমতা শাখায় শুরু হয়েছে লোকাল ট্রেন পরিষেবা। এছাড়া শালিমার, সাঁতরাগাছি, দীঘা থেকেও চালানো হচ্ছে বেশ কয়েকটি লোকাল। বিভিন্ন ছোট, মাঝারি স্টেশনের ঢোকা-বেরনোর গেট পরীক্ষা করা হচ্ছে। একাধিক জায়গায় বসানো হচ্ছে থারমাল স্ক্যানার। জি আর পি ও আর পি এফ যৌথ সহযোগিতা মাধ্যমে একাধিকবার পরীক্ষা চালাচ্ছেন। নজর রাখা হচ্ছে যেন কোনও ভাবেই হকার ভেতরে প্রবেশ করতে না পারে। এছাড়া মাস্ক পড়ে আছেন কিনা তা দেখার জন্য নজরদারি রাখা হচ্ছে সিসি ক্যামেরায়। দক্ষিণ পূর্ব রেল সূত্রে খবর, আগামী কয়েকদিনে ট্রেনের সংখ্যা আরও বাড়ানো হবে।কাটোয়া-আজিমগঞ্জ, রামপুরহাট-বর্ধমান, আসানসোল-বর্ধমান শাখায় ট্রেন চলাচল ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: