EXCLUSIVE: এবার পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়াদের জন্য টেলিফোনে ক্লাস, আগামী সপ্তাহ থেকেই শুরুর পরিকল্পনা

EXCLUSIVE: এবার পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়াদের জন্য টেলিফোনে ক্লাস, আগামী সপ্তাহ থেকেই শুরুর পরিকল্পনা
আগামী সপ্তাহ থেকেই এই পরিকল্পনা কার্যকরী করা হবে বলেই রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে।

আগামী সপ্তাহ থেকেই এই পরিকল্পনা কার্যকরী করা হবে বলেই রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে।

  • Share this:

#কলকাতা: নবম-দশম এর পর এবার পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ুয়াদেরও টেলিফোনে ক্লাস নেওয়ার উদ্যোগ নিল রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর। আগামী সপ্তাহ থেকেই এই পরিকল্পনা কার্যকরী করা হবে বলেই রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে। ইতিমধ্যেই কিভাবে টেলিফোনে ক্লাস নেওয়া হবে তা নিয়ে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ পর্ব শেষ হয়েছে।

রাজ্যজুড়ে গত এক মাসেরও বেশি সময় সীমা ধরে নবম ও দশম শ্রেণীর পড়ুয়াদের টেলিফোনে ক্লাস নেওয়া শুরু হয়েছে। মূলত অনলাইন ক্লাসের বিকল্প হিসেবে এই টেলিফোনে ক্লাস নেওয়ার ভাবনা রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতরের। প্রাথমিকভাবে নবম ও দশম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের টেলিফোনে ক্লাস নেওয়ার সফল হওয়ায় এবার রাজ্য পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ুয়াদের টেলিফোনের মাধ্যমে ক্লাস নিতে চাইছে। পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়াদের এই টেলিফোনে ক্লাস নেওয়ার জন্য রাজ্যজুড়ে তিন হাজারেরও বেশি শিক্ষক অংশগ্রহণ করবে। এর জন্য একটি বিশেষ হেল্পলাইন নম্বর চালু করবে রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতরের আধিকারিকরা।

ইতিমধ্যেই প্রত্যেকদিনই গড়ে কয়েক হাজার ছাত্র টেলিফোনে ক্লাস করছেন রাজ্য জুড়ে। রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতরের আধিকারিকদের দাবি নবম ও দশম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের এই টেলিফোনের মাধ্যমে ক্লাস নেওয়ার সফলতা অনেকটাই সাড়া ফেলেছে। সিদ্ধান্ত হয়েছে দ্বিতীয় সামেটিভ ইভ্যালুয়েশন পর্ব পর্যন্ত যে যে অংশগুলি স্কুলগুলিতে পড়ানোর কথা সেই সেই অংশগুলির ওপরেই টেলিফোনে ক্লাস নেওয়া হবে। অর্থাৎ স্কুল খোলা থাকলে আগস্ট মাস পর্যন্ত যে যে অংশগুলি ক্লাস নিতেন শিক্ষক-শিক্ষিকারা সেই অংশগুলি পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণীর পড়ুয়াদের জন্য টেলিফোন মারফত ক্লাস নেবেন শিক্ষক-শিক্ষিকারা।


সাধারণত টেলিফোনে ছাত্রছাত্রীরা ফোন করলে কোন প্রশ্ন নিয়েই ফোন করছেন অন্তত নবম দশম শ্রেণির ক্লাস নেওয়ার ক্ষেত্রে এমনটাই অভিজ্ঞতা হয়েছে স্কুল শিক্ষা দফতরের আধিকারিকদের। কিন্তু পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের জন্য শুধুমাত্র কোন বিষয় নিয়ে প্রশ্ন নয় কোন অধ্যায় সম্পর্কে বুঝতে চাইল শিক্ষক-শিক্ষিকারা তা বুঝিয়ে দেবেন। অর্থাৎ যেমনভাবে ক্লাসরুমে কোন শিক্ষক শিক্ষিকা কোন অধ্যায় সম্পর্কে ব্ল্যাকবোর্ডে লিখে বোঝান ঠিক তেমনভাবেই টেলিফোনে ক্লাস নিয়েই শিক্ষক-শিক্ষিকারা যতটা সম্ভব বুঝিয়ে দেবেন।

স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে খবর আগামী সপ্তাহ থেকেই এই পদ্ধতিতে রাজ্যজুড়ে তিন হাজারেরও বেশি শিক্ষক ক্লাস নেবেন। কিভাবে বাকি পদ্ধতিতে ক্লাস নিতে হবে সেই সম্পর্কে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন জেলার শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ পর্ব শেষ হয়ে গেছে। রাজ্যের বিভিন্ন জেলার বিভিন্ন প্রান্তে অনলাইনে ক্লাস নেওয়া কার্যত সমস্যা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। বিশেষত প্রান্তিক জেলার বিভিন্ন অংশে অনলাইনে ক্লাস নেওয়া সম্ভব নয় কারণ ইন্টারনেট সংযোগ দুর্বল। তার জেরে প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছাত্রছাত্রীরা অনেকটাই পিছিয়ে পড়ছেন। সে ক্ষেত্রে পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণীর পড়ুয়াদের টেলিফোনে মারফত ক্লাস নিলে অনেকটাই সুবিধা হবে অন্তত প্রত্যন্ত অঞ্চলের ছাত্র ছাত্রীদের ক্ষেত্রে।

স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে খবর, সেপ্টেম্বর মাস জুড়ে স্কুল বন্ধ থাকলেও অক্টোবর মাসে আদৌও স্কুল চালু হবে নাকি তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। সেক্ষেত্রে নবম,দশম, একাদশ ও দ্বাদশ ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে ক্লাস শুরু হলেও নিচুস্তরের অর্থাৎ পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের আদৌও কবে ক্লাস শুরু হবে সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না।ফলে এখন টেলিফোনে মারফত ক্লাস নেওয়া কি এখন অন্যতম মাধ্যম হিসেবেই ভাবছে দফতরের আধিকারিকরা। যদিও এর পাশাপাশি রেডিওর মাধ্যমে ক্লাস নেওয়া যায় নাকি তা নিয়েও ভাবনাচিন্তা শুরু হয়েছে স্কুল শিক্ষা দফতরের আধিকারিকদের মধ্যে।

 সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Elina Datta
First published: