• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • চালু হল নয়া পদ্ধতিতে কলকাতা পুরসভার সম্পত্তি কর

চালু হল নয়া পদ্ধতিতে কলকাতা পুরসভার সম্পত্তি কর

কলকাতায় নয়া কর ব্যবস্থা চালু হতে চলেছে ১ এপ্রিল থেকে ৷ কলকাতা পুরসভায় চালু হচ্ছে এলাকাভিত্তিক কর সংগ্রহ বা ইউনিট এরিয়া অ্যাসেসমেন্ট।

কলকাতায় নয়া কর ব্যবস্থা চালু হতে চলেছে ১ এপ্রিল থেকে ৷ কলকাতা পুরসভায় চালু হচ্ছে এলাকাভিত্তিক কর সংগ্রহ বা ইউনিট এরিয়া অ্যাসেসমেন্ট।

কলকাতায় নয়া কর ব্যবস্থা চালু হতে চলেছে ১ এপ্রিল থেকে ৷ কলকাতা পুরসভায় চালু হচ্ছে এলাকাভিত্তিক কর সংগ্রহ বা ইউনিট এরিয়া অ্যাসেসমেন্ট।

  • Share this:

    #কলকাতা: কলকাতায় নয়া কর ব্যবস্থা চালু হতে চলেছে ১ এপ্রিল থেকে ৷ কলকাতা পুরসভায় চালু হচ্ছে এলাকাভিত্তিক কর সংগ্রহ বা ইউনিট এরিয়া অ্যাসেসমেন্ট। যিনি যে এলাকার বাসিন্দা, নতুন ব্যবস্থায় তিনি সেই এলাকার নির্ধারিত করই দেবেন। এলাকায় পুর পরিষেবার মান খতিয়ে দেখেই করের হার নির্ধারণ হবে। এর জন্য পুরসভা এলাকাকে ৭টি ইউনিট এলাকায় ভাগ করা হবে। সম্পত্তিরদামের ভিত্তিতে কর সংগ্রহ উঠে গিয়েই চালু হচ্ছে নতুন ব্যবস্থা। ১ এপ্রিল থেকে নতুন কর সংগ্রহ শুরু করবে পুরসভা।

    এর আগে ২০০৬ সালে বাম ফ্রন্ট ক্ষমতায় থাকাকালীন বিধানসভায় পাশ হয়েছিল ‘The Kolkata Municipal Corporation Bill' ৷ ১৬ ডিসেম্বর পাশ হল এই বিলের সংশোধনী ৷ বদলে যাচ্ছে কলকাতা পুরসভার পুরকর সংগ্রহের পদ্ধতি। সম্পত্তির দামের ভিত্তিতে করের পরিবর্তে চালু হচ্ছে এলাকাভিত্তিক কর। চলতি বছরের ১ এপ্রিল থেকে এই পদ্ধতি পুরকরের হার নির্ধারণ করবে পুরসভা।

    মঙ্গলবার পুরবোর্ডের বৈঠকে নয়া কর প্রস্তাব চূড়ান্ত হল। নতুন ব্যবস্থায় ঢেলে সাজানো হচ্ছে কর সংগ্রহের পদ্ধতি।

    - নয়া ব্যবস্থায় ৭টি ইউনিট এবং ২৯৩টি ব্লকে ভাগ করা হয়েছে পুর এলাকা - রাস্তা, জল, বিদ্যুৎ, যোগাযোগ, বাণিজ্যিক এলাকার ভিত্তিতে ইউনিট ঠিক হবে - এক একটি ইউনিটে আলাদা সম্পত্তি কর - সম্পত্তির কার্পেট এরিয়ার উপর ঠিক হবে করের পরিমাণ - বাড়ি কত বছরের পুরনো, কতগুলো পরিবার থাকে, ভাড়াটিয়া আছে কিনা এসব বিষয়ও কর নির্ধারণে গুরুত্ব পাবে

    নতুন ব্যবস্থায় বিভিন্ন ধাপে হিসাব করা হবে সম্পত্তিকর।

    নতুন হারে পুরকর ন্যূনতম কর - এলাকা ভিত্তিক কর + সম্পত্তির ধরণ + কার্পেট এরিয়া + করের হার (শতাংশের হিসাবে)

    নতুন যে ওয়ার্ডগুলি কলকাতা পুরসভায় সংযোজিত হচ্ছে, সেখানে অবশ্য শুধুমাত্র এলাকা ভিত্তিক করভিত্তিক করই চালু করার পরিকল্পনা কলকাতা পুরসভার।

    পুরসভা সূত্রে খবর, এতে কর ব্যবস্থা সরলীকরণ হবে ৷ নতুন কর ব্যবস্থায় বৈষম্য কমবে ৷ পাশাপাশি পুর-কোষাগারের কথা ভেবে এই সংশোধনী ৷ এর জেরে বেশি কিছু এলাকায় সম্পত্তি কর বাড়বে ৷ আবার কিছু এলকায় তা কমবে ৷ পুর সভার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে ভারসাম্য বজায় রাখা ৷ বেশি কর নিলে যেমন সাধারণ মানুষ সমস্যায় পড়তে পারেন, তেমনই কম কর নিলে টান পড়তে পারে পুর কোষাগারে ৷ তাই নতুন করা ব্যবস্থা বা এলাকাভিত্তিক কর চালু করতে চলেছে পুরসভা ৷

    ‘কর ব্যবস্থা সরলীকরণ হবে ৷ নতুন কর ব্যবস্থায় বৈষম্য কমবে ৷ ইনস্পেক্টররাজের অবসান হবে ৷ উন্নত পরিষেবা পেতে চায় মানুষ ৷ পুরসভাগুলোর আর্থিক অবস্থা ভাল হওয়া দরকার ৷ সেজন্যই কর ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানো জরুরি’, বললেন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় ৷

    অনেকে যেমন এই নয়া নিয়মকে স্বাগত জানিয়েছে তেমনই অনেকের মধ্যে রয়েছে সংশয় ৷ নতুন এই কর ব্যবস্থায় সাধারণের মানুষের কী কোনও উপকার হবে ? সেটা এখন সময়ই বলবে ৷

    First published: