কলকাতা মেট্রোয় নামানো হল কম্যান্ডো বাহিনী

কলকাতা মেট্রোয় নামানো হল কম্যান্ডো বাহিনী
ল্যাপটপ বোমার মত আধুনিক মারণাস্ত্র নিয়ে মেট্রোয় হামলা ঠেকাতে বুধবার থেকেই কবি সুভাষ থেকে নোয়াপাড়া পর্যন্ত প্রত্যেক স্টেশনেই মোতায়েন করা হচ্ছে প্রশিক্ষিত কমান্ডো বাহিনী।

ল্যাপটপ বোমার মত আধুনিক মারণাস্ত্র নিয়ে মেট্রোয় হামলা ঠেকাতে বুধবার থেকেই কবি সুভাষ থেকে নোয়াপাড়া পর্যন্ত প্রত্যেক স্টেশনেই মোতায়েন করা হচ্ছে প্রশিক্ষিত কমান্ডো বাহিনী।

  • Share this:

    #কলকাতা: রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্গ মেট্রো স্টেশনে জোড়া বিস্ফোরণে ১১ জনের মৃত্যুর পর কলকাতাতেও মেট্রোর নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন রেল। ল্যাপটপ বোমার মত আধুনিক মারণাস্ত্র নিয়ে মেট্রোয় হামলা ঠেকাতে বুধবার থেকেই কবি সুভাষ থেকে নোয়াপাড়া পর্যন্ত প্রত্যেক স্টেশনেই মোতায়েন করা হচ্ছে প্রশিক্ষিত কমান্ডো বাহিনী। যদিও মেট্রো রেলের মাথাব্যাথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে কুড়িটিরও বেশি বিকল লাগেজ স্ক্যানার।

    ৩ এপ্রিল জোড়া বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছিল রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্গ মেট্রো স্টেশন। জঙ্গি নাশকতায় প্রাণ হারিয়েছিলেন ন জন। বিস্ফোরণের অভিঘাতে দুমড়ে মুচড়ে গিয়েছিল মেট্রোর কামরা। যার জেরে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল সব মেট্রো পরিষেবা।

    এর আগেই সম্ভাব্য জঙ্গি নাশকতা ঠেকাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তরফে ল্যাপটপ নিয়ে বিমানে সফরও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। গোটা বিশ্বজুড়ে নিত্যনতুন উপায়ে জঙ্গি সন্ত্রাসের কথা মাথায় রেখে এবার টনক নড়েছে এ শহরের মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষের।


    প্রতিদিন মেট্রো ব্যবহারকারী কয়েক লক্ষ যাত্রীর নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে এবার প্রতি স্টেশনে মোতায়েন করা হচ্ছে প্রশিক্ষিত কমান্ডো বাহিনী। তবে, এখনই আধুনিক বিস্ফোরক খুঁজতে যে প্রযুক্তির প্রয়োজন তা করা সম্ভব হচ্ছে না। কারণ, আর্থিক সমস্যা।

    মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষের দাবি, স্টেশনে ঢোকা ও বেরনোর পথে নজরদারি বাড়িয়ে আপাতত নিরাপত্তা আঁটোসাঁটো করা হচ্ছে। এদিকে বিভিন্ন মেট্রো স্টেশনে ২৩টি লাগেজ স্ক্যানার বিকল হয়ে পড়ে রয়েছে। যা নিরাপত্তা নিয়ে কর্তৃপক্ষের অন্যতম মাথাব্যথা। তবে, যাত্রীদের সুরক্ষা নিয়ে কোনও আপস করতে নারাজ মেট্রো। তাই, বিশেষ প্রশিক্ষিত কমান্ডো বাহিনী দিয়েই আপাতত দ্বিস্তরীয় নিরাপত্তা বলয়ে মুড়ে ফেলা হচ্ছে কলকাতার লাইফলাইন।

    First published: