• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • নেপাল থেকে তৃণমূল কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ পেলেন মুখ্যমন্ত্রী

নেপাল থেকে তৃণমূল কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ পেলেন মুখ্যমন্ত্রী

 আবারও তৃণমূল কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ ৷ এবারেও দেশের সীমারেখার বাইরে থেকে এল অভিযোগ  ৷

আবারও তৃণমূল কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ ৷ এবারেও দেশের সীমারেখার বাইরে থেকে এল অভিযোগ ৷

আবারও তৃণমূল কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ ৷ এবারেও দেশের সীমারেখার বাইরে থেকে এল অভিযোগ ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা:  আবারও তৃণমূল কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ ৷ এবারেও দেশের সীমারেখার বাইরে থেকে এল অভিযোগ  ৷ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পর এবার নেপালের দুই ব্যবসায়ী তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ আনলেন ৷

    বাড়ি, অটো, চাষের পর এবার ভোজ্য তেলেও তোলাবাজি ৷ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে বজবজের তিন কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ জমা পড়ল।

    নেপালের দুটি সংস্থা মুখ্যমন্ত্রীকে  ইমেল-এর মাধ্যমে কাউন্সিলর দীপক ঘোষ, প্রতিমা ধাড়া ও ছোটেলাল সাউয়ের বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ জানিয়েছেন ।

    নেপালের এই দুটি সংস্থা এ রাজ্যে দুটি সংস্থা ভোজ্য তেলের ব্যবসা করে।  বিদেশ থেকে তেল এনে কলকাতায় মজুত করে। সেই ভোজ্য তেল এতদিন তারা ট্যাঙ্কার করে সড়কপথে নেপালে সরবরাহ করত। খরচ কমাতে সংস্থা দুটি রেলপথে ভোজ্য তেল সরবরাহ শুরু করে। বজবজের গুদাম থেকে ট্যাঙ্কারে বোঝাই হয়ে দুটি সংস্থার পণ্য যায় মাঝেরহাট স্টেশনে। বজবজের গুদাম থেকে মাঝেরহাট স্টেশনে ট্রাকে তাদের পণ্য পৌঁছয়।

    তাদের অভিযোগ, তেল ট্যাঙ্কার সংগঠন পণ্য পরিবহণে বাধা দিচ্ছে। এর পিছনে রয়েছেন বজবজের তিন কাউন্সিলর- দীপক ঘোষ, প্রতিমা ধাড়া ও ছোটলাল সাউ। এই অভিযোগ ইমেলে মুখ্যমন্ত্রীকে জানিয়েছে নেপালের দুটি সংস্থা।

    তারা লিখিত অভিযোগ জানিয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারকেও। প্রতিকার খুঁজতে এর আগেই আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন সংস্থা দুটির কর্তারা। হাইকোর্টের বিচারপতি দীপঙ্কর দত্ত পণ্য পরিবহণের সময় পুলিশি নিরাপত্তা দেওয়ার নির্দেশ দেন। অভিযোগ, এর পর তেল ট্যাঙ্কার সংগঠন হুমকি দেওয়া শুরু করে। পণ্য পরিবহণে বাধা পাওয়ায় ব্যবসা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

    পুলিশি নিরাপত্তার নির্দেশের বিরুদ্ধে আপিল মামলা করে তেল ট্যাঙ্কার সংগঠন। প্রধান বিচারপতি মঞ্জুলা চেল্লুর বুধবার এই মামলার শুনানিতে পুলিশের ভূমিকায় অসন্তোষ প্রকাশ করেন। এ নিয়ে ব্যাখ্যা চেয়ে তিনি দক্ষিণ ২৪ পরগনার পুলিশ সুপারকে তলব করেছেন। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে দশটায় হাইকোর্টে হাজিরা দিতে হবে পুলিশ সুপারকে।

    সম্প্রতি রাজ্যজুড়ে ব্যাপক ধরপাকড় শুরু হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী কড়া হাতে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সামলাচ্ছেন। বিদেশি দুই সংস্থার ইমেলের জেরে কোপে পড়তে পারেন তেল ট্যাঙ্কার সংগঠনের পিছনে থাকা জনপ্রতিনিধিরা।

    First published: