Football World Cup 2018

বিচ্ছিন্ন উত্তর-দক্ষিণবঙ্গ, ২০ অগাস্ট পর্যন্ত বন্ধ রেল, বিকল্প পথে বাস চালানোর চেষ্টা

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Aug 16, 2017 06:49 PM IST
বিচ্ছিন্ন উত্তর-দক্ষিণবঙ্গ, ২০ অগাস্ট পর্যন্ত বন্ধ রেল, বিকল্প পথে বাস চালানোর চেষ্টা
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Aug 16, 2017 06:49 PM IST

#কলকাতা: উত্তরবঙ্গে বন্যা পরিস্থিতিতে দারুণ ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক ও রেল যোগাযোগ। কার্যত বিচ্ছিন্ন উত্তর ও দক্ষিণ। মালদহের পর থেকেই উত্তরবঙ্গের অন্যান্য জেলা ও উত্তরপূর্ব ভারতে ঢোকার রাস্তা পুরোপুরি বন্ধ। মালদহের সঙ্গে উত্তর দিনাজপুর দক্ষিণ দিনাজপুরের সড়ক যোগাযোগ কার্যত বন্ধ। বিকল্প রাস্তা দিয়ে জারি ক্ষীণ যোগাযোগ। ২০ অগাস্ট পর্যন্ত বন্ধ রেল পরিষেবাও।

দক্ষিণ ও উত্তর বঙ্গের যোগাযোগ থমকে গিয়েছে মালদহে। সেখানে আটকে উত্তরবঙ্গের অন্যান্য জেলা ও উত্তর-পূর্ব ভারতের বহু মানুষ। মালদহে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে যোগাযোগ জারি। কিন্তু, ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের মাধ্যমে মালদহ-রায়গঞ্জ সরাসরি বাস যোগাযোগ বন্ধ

বুধবার মালদহ থেকে রায়গঞ্জ বাস চালানোর চেষ্টা করে এনবিএসটিসি। ৬ সরকারি বাস ও বহু বেসরকারি মাস রায়গঞ্জ রওনা দেয়। কিন্তু, বেলা বাড়তেই কালোমাটি এলাকায় ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের ওপর দিয়ে একাধিক নদীর জল বইতে শুরু করে ৷

ফলে, রায়গঞ্জ ঢোকার পঁচিশ কিলোমিটার আগেই থেমে যায় যোগাযোগ। মালদহ ডিপোয় ফিরিয়ে আনা হয় ৩ বাস। জলের জেরে মাঝরাস্তাতেই বিকল হয়ে পড়ে অন্য ২ বাস। মালদহ থেকে রায়গঞ্জ পর্যন্ত যোগাযোগ না থাকলেও, ইটাহার পর্যন্ত বাস চালানো হচ্ছে। বামনগোলায় পুনর্ভবা নদীর জলে ডুবে গিয়েছে মালদহ-নালাগোলা রাজ্য সড়ক

ফলে, মালদহ ও দক্ষিণ দিনাজপুরের যোগাযোগ বন্ধ। উত্তর দিনাজপুরে ডালখোলা থেকে উত্তরবঙ্গের অন্যান্য জেলায় যাওয়ার জন্য ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক খোলা। ৩৪ ও ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কের মাধ্যমে রায়গঞ্জ ও শিলিগুড়ির যোগাযোগ ক্ষীণ ভাবে চালু রয়েছে। বিকল্প হিসেবে, বুনিয়াদপুর হয়ে রায়গঞ্জের শিলিগুড়ি মোড় পর্যন্ত কিছু গাড়ি চালানো হচ্ছে।

তবে, বিচ্ছিন্ন উত্তর দিনাজপুর ও কলকাতার মধ্যে বাস যোগাযোগ ৷ বুধবার, যাত্রা শুরু করেও ইটাহারের আগেই আটকে পড়ে কলকাতাগামী ২৮ বাস। ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের মাধ্যমে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ায় বিকল্প রাস্তা দিয়ে কিছু যানবাহন চালানো হচ্ছে। বিহার এড়িয়ে ডালখোলা ও বোতলবাড়ির বেঙ্গল টু বেঙ্গল রোডের মাধ্যমে যোগাযোগ জারি রয়েছে।কিন্তু, চুনামারি এলাকায়, সুদানি নদীর কাছে আরও একটি সেতু ভেঙে পড়েছে ৷ ফলে, বন্ধ দোমোহনার বেঙ্গল টু বেঙ্গল রোড ৷

ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ থাকায় সমস্যা চরমে। বুধবার, আরও পাঁচটি ট্রেন বাতিল করা হয়। আগামী ২০ অগাস্ট পর্যন্ত ট্রেন চালানো সম্ভব নয় বলে জানিয়েছে উত্তর-পূর্ব রেল। বুধবার, অবশ্য ডালখোলা থেকে গুয়াহাটি যাওয়ার একটি বিশেষ ট্রেন ছাড়ে। বিদেশ-বিভুঁইয়ে এমন পরিস্থিতিতে আটকে পড়ে ভয়াবহ বিপদে পড়েছেন বহু মানুষ।

First published: 06:49:09 PM Aug 16, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर