Home /News /kolkata /
North 24 Parganas:অশনি-র রক্তচক্ষু ! দুর্যোগ মোকাবিলায় একগুচ্ছ পদক্ষেপ এনকেডিএ ও হিডকো-র

North 24 Parganas:অশনি-র রক্তচক্ষু ! দুর্যোগ মোকাবিলায় একগুচ্ছ পদক্ষেপ এনকেডিএ ও হিডকো-র

ঘূর্ণিঝড় অশনির প্রভাবে সোমবার সকাল থেকেই বৃষ্টি শুরু হয়েছে শহর জুড়ে। আগামী দু-তিনদিন বৃষ্টি ও ঝড়ের দাপট দুটোই বাড়বে বলে পূর্বাভাস আলিপুর আবহাওয়া দফতরের

  • Share this:

    #উত্তর ২৪ পরগনা:  ঘূর্ণিঝড় অশনির প্রভাবে সোমবার সকাল থেকেই বৃষ্টি শুরু হয়েছে শহর জুড়ে। আগামী দু-তিনদিন বৃষ্টি ও ঝড়ের দাপট দুটোই বাড়বে বলে পূর্বাভাস আলিপুর আবহাওয়া দফতরের। ঝড়- বৃষ্টিতে জনজীবন যাতে কোনওভাবে ব্যহত না হয়, সেজন্য সচেষ্ট বিধাননগর পুর নিগম-সহ হিডকো ও নিউটাউন কলকাতা উন্নয়ন পর্ষদ। সোমবার জরুরি বৈঠক বসে হিডকো ভবনে। সেখানে হিডকোর ম্যানেজিং ডিরেক্টর দেবাশিস সেন-সহ এনকেডিএ, পিএইচই, দমকল, পুলিশ, বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের আধিকারিকরা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে ঠিক হয়, বিপর্যয় মোকাবিলার জন্য একাধিক টিম তৈরি থাকবে।

    প্রতিটি টিমেই থাকবে গাছ কাটার সরঞ্জাম, পে লোডার, ডাম্পার, বড় ল্যাডার। কর্মীদের কয়েকটা গ্রুপে ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। বিধাননগর পুর নিগম সূত্রে খবর, বিপর্যয় মোকাবিলা নিয়ে ইতিমধ্যেই পুর চেয়ারম্যান কৃষ্ণা চক্রবর্তী মেয়র পারিষদ ও পুরনিগমের ইঞ্জিনিয়দের নিয়ে বৈঠক করেছেন। অভিযোগ, সামান্য ঝড় বৃষ্টিতেই সল্টলেকের রাস্তায় গাছ পড়ে যায় এবং জল জমে। সোমবার সকালের বৃষ্টিতে সেক্টর ফাইভ, করুনাময়ী-সহ বেশ কিছু জায়গায় জল জমে যায়। সেই জল দ্রুত বার করার জন্য করুনাময়ী ও সল্টলেকের অন্যান্য জায়গার পুর কর্মীরা রাস্তায় নামেন।

    আরও পড়ুন: ধেয়ে আসছে 'অশনি', কোমর বেঁধে প্রস্তুত NDRF! কোন কোন জেলায় সতর্কতা?

    সেক্টর ফাইভের কলেজ মোড়, টেকনোপলিস, উইপ্রো মোড়ে কাজ করে নবদিগন্ত কর্তৃপক্ষ। পুর নিগমের রাজারহাট, গোপালপুর অংশে কাউন্সিলর ও বরো অফিসগুলিকে বলা হয়েছে পরিস্থিতির ওপর নজর রাখতে। সমস্ত কর্মীদের ছুটি বাতিল করেছে পুর কর্তৃপক্ষ। অন্যদিকে, অশনি ঝড়ের কথা ভেবে হিডকো ভবনে একটি চব্বিশ ঘণ্টার কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। বাসিন্দারা সেই কন্ট্রোল রুমে ফোন করে সুবিধা-অসুবিধার কথা জানাতে পারবেন।

    আরও পড়ুন: '২৪ ঘণ্টা প্রস্তুত আছি, যখন ডাকবে, চলে যাব', কী প্রসঙ্গে বললেন অর্জুন সিং?

    পাশাপাশি, এলাকার হাল হকিকত সম্পর্কেও ওয়াকিবহাল হতে পারবেন। কন্ট্রোল রুম থেকেই পরিস্থিতি অনুযায়ী নির্দেশ যাবে বিভিন্ন প্রান্তে। প্রাকৃতিক দুর্যোগের পরিস্থিতি দেখার জন্য রাস্তায় লাগানো সিসিটিভির ফুটেজও ঘন ঘন পরীক্ষা করা হবে বলে জানানো হয়েছে কর্তৃপক্ষের তরফে। সোমবার সকালে সামান্য বৃষ্টি ও দমকা হাওযায় ডিএ ব্লকের ২৭২ নম্বর স্ট্রিটের ওপর একটি বড় কৃষ্ণচূড়া গাছ ভেঙে পড়ে। খবর পেয়ে এনকেডিএ-র কর্মীরা গিয়ে সেই গাছ কেটে রাস্তা পরিষ্কার করেন। অন্যদিকে, সিই ব্লকের রাস্তার কিছু অংশে জল জমে যায়। গালিপিটে আবর্জনা জমার দরুন এমনটা হয়েছে বলে মত কর্মীদের। বৃষ্টির মধ্যেই গালিপিট থেকে সেই আবর্জনা পরিষ্কার করেন এনকেডিএর সাফাই কর্মীরা। এর আগে ইয়াস কিংবা তারও আগে আম্ফানের সময় প্রাকৃতিক দুর্যোগের হাত থেকে নিউটাউনবাসীকে সুরক্ষিত রাখতে একগুচ্ছ পদক্ষেপ নিয়েছিল কর্তৃপক্ষ। এবারও ঠিক তেমনই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। পর্যাপ্ত জেনারেটর, পাম্প সেট রাখা হয়েছে দ্রুত জমা জল সরানোর জন্য। বিপর্যয় মোকাবিলা করার জন্য যা-যা করা দরকার, তা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন এনকেডিএ-র চেয়ারম্যান দেবাশিস সেন।

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: North 24 Parganas

    পরবর্তী খবর