BREAKING: অনলাইন নয়, সশরীরেই পরীক্ষা নেওয়ার কথা ভাবছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়

BREAKING: অনলাইন নয়, সশরীরেই পরীক্ষা নেওয়ার কথা ভাবছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়
বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক অধ্যাপিকাদের এমনটাই বার্তা দেওয়া হয়েছে। যদিও এখনও পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় তরফে এই নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক অধ্যাপিকাদের এমনটাই বার্তা দেওয়া হয়েছে। যদিও এখনও পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় তরফে এই নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

  • Share this:

#কলকাতা: সব ঠিকঠাক থাকলে এবার কি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ ছাত্রছাত্রীরা কলেজেই পরীক্ষা দেবেন? অন্তত তেমনটাই প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে বলেই কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর।কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় বিএ, বিএসসি, বিকম এর প্রথম, তৃতীয়,পঞ্চম সেমিস্টারের পরীক্ষা নিতে চলেছে মার্চের মাঝামাঝি বা শেষ সপ্তাহে। অনলাইনের বদলে বিশ্ববিদ্যালয় চাইছে যাতে ছাত্রছাত্রীরা কলেজেই পরীক্ষা দিতে পারেন। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক অধ্যাপিকাদের এমনটাই বার্তা দেওয়া হয়েছে। যদিও এখনও পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় তরফে এই নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। প্রসঙ্গত কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় চূড়ান্ত বর্ষের ছাত্রছাত্রীদের পরীক্ষা অনলাইনেই নিয়েছিল।

গত বছরের ডিসেম্বর মাসের শেষ দিক থেকেই কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের খোলার দাবি নিয়ে একাধিক ছাত্রসংগঠন পথে নেমেছে। সোমবারও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ক্যাম্পাসের সামনে অবস্থান বিক্ষোভ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার দাবি নিয়ে এসএফআই। সম্প্রতি বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় রিসার্চ স্কলার দের জন্য দুটি হস্টেল খোলার নির্দেশিকা জারি করলেও পরে অবশ্য তা প্রত্যাহার করে নেয়। সে ক্ষেত্রে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় কবে থেকে খুলবে সেই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত রাজ্যের তরফ থেকে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। যদিও সম্প্রতি শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় দাবি করেছিলেন রাজ্য সরকার বললেই বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ খুলে দেওয়া হবে। সে ক্ষেত্রে হস্টেলগুলিতে কিভাবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব তা নিয়ে অবশ্য শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এর কাছে সংশয় প্রকাশ করেছেন রাজ্যের বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য রা। সে ক্ষেত্রে অনলাইনে ক্লাস শুরু করার কথা ইতিমধ্যেই বলেছেন শিক্ষা মন্ত্রী। তবে অনলাইনে ক্লাস করেও কতটা উপযোগী হচ্ছে তা নিয়েও অধ্যাপক অধ্যাপিকাদের একাংশ প্রশ্ন তুলছেন। সম্প্রতি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় অনলাইনে পরীক্ষা নিয়েছিল। সেক্ষেত্রে বাড়িতে বসেই ছাত্রছাত্রীরা অনলাইনে পরীক্ষা দিয়েছে। চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হতে দেখা যায়  বেশিরভাগ ছাত্র ছাত্রী প্রচুর নম্বর পেয়েছেন। টাইগার বাড়িতে বসে অনলাইনে পরীক্ষা দিলেও সে ক্ষেত্রে ছাত্র-ছাত্রীদের সঠিক মূল্যায়ন হল নাকি তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন ইতিমধ্যে অধ্যাপক অধ্যাপিকা দের একাংশ।

ফলতো এবার পরীক্ষামূলক ভাবে এগোতে চাইছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় বলেই সূত্রের খবর। তাই অনলাইনের বদলে যাতে সশরীরে কলেজে এসে ছাত্রছাত্রীরা পরীক্ষা দিতে পারে তার চিন্তাভাবনা শুরু করেছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তার জন্যই অধ্যাপক অধ্যাপিকা দের একাংশকে প্রস্তুতি নিতে বলেছে বলেই বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর। সেক্ষেত্রে সশরীরে ছাত্রছাত্রীরা কলেজে পরীক্ষা দিতে আসলে কী কী ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন সহ যাবতীয় পরিকল্পনা নিতে বলা হয়েছে অধ্যাপক অধ্যাপিকা দের একাংশকে। এ প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অধ্যাপক বলেন " চেষ্টা হচ্ছে অফলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার। আমাদের প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে"। যদিও একাংশের মতে স্বশরীরে পরীক্ষা নিতে হলে বিশ্ববিদ্যালয়কে উচ্চশিক্ষা দপ্তরের অনুমতি নিতে হবে। সূত্রের খবর ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝি এই বিষয় নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে নেবে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়।


 সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Elina Datta
First published: