Home /News /kolkata /
লকডাউনে বিমান পরিষেবা বন্ধই থাকবে এ রাজ্যে

লকডাউনে বিমান পরিষেবা বন্ধই থাকবে এ রাজ্যে

লকডাউনে বিমানবন্দর খোলা থাকবে কি না, তা নিয়ে বুধবার দিনভর টানাপড়েন চলেছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ এবং পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মধ্যে।

  • Share this:

#কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গে লকডাউনের দিনগুলিতে বন্ধ থাকবে বিমানের ওঠানামা। দীর্ঘ টানাপড়েনের পরে শুক্রবার এ কথা জানিয়ে দিল বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের তরফে ট্যুইট করে জানান হয়েছে যে, রাজ্য সরকারের অনুরোধে লকডাউনের দিনগুলিতে বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

লকডাউনে বিমানবন্দর খোলা থাকবে কি না, তা নিয়ে বুধবার দিনভর টানাপড়েন চলেছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ এবং পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মধ্যে। লকডাউনের মধ্যে বিমান বন্ধ রাখারই পক্ষে ছিল রাজ্য সরকার। কিন্তু বিমান সংস্থাগুলি বেঁকে বসায় শেষমেশ বিমান চললে যাত্রীদের যাতায়াতে অনুমতি দিতে রাজি হয় রাজ্য সরকার। কিন্তু অনুমতি দিলেও পর্যাপ্ত পরিবহণ ব্যবস্থা ছিল না বিমানবন্দরে। চূড়ান্ত হয়রানির মুখে পড়েন যাত্রীরা।

পুরোদস্তুর লকডাউনের নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও কী ভাবে বিমান পরিষেবা চালু রইল, তা নিয়ে প্রশাসনিক মহলে উষ্মাপ্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। এর পরেই নড়েচড়ে বসেন রাজ্য প্রশাসনের পদস্থ কর্তারা। বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখার অনুরোধকরা হয় অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রকের কাছে। একধাপ এগিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয় লকডাউনের দিনগুলিতে বিমান পরিষেবার এনওসি দেবে না রাজ্য সরকার। এরপরেই বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের তরফে লকডাউনের দিনগুলিতে পরিষেবা বন্ধ রাখার কথা জানানো হয়। আপাতত ২৫ এবং ২৯ জুলাই বন্ধ থাকবে বিমান পরিষেবা। এর পরে রাজ্য সরকার যে সব দিন লকডাউন ঘোষণা করবে, ওই সব দিনে বন্ধ রাখা হবে উড়ান।

বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের তরফে এক কর্তা বলেন, "কোভিডের প্রকোপ আটকাতে পুরোপুরি লকডাউন করতে চাইছে রাজ্য সরকার। বিমান পরিষেবা চালু রেখে তা সম্ভব নয়। সে কারণেই তারা বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখার জন্য অনুরোধ করেছিলেন। কেন্দ্রও রাজ্যের মতামতের সঙ্গে একমত। তাই, লকডাউনের দিনগুলিতে আপাতত বন্ধই থাকবে যাত্রীবাহী উড়ান।"

SHALINI DATTA

Published by:Debalina Datta
First published:

পরবর্তী খবর