corona virus btn
corona virus btn
Loading

দূরদর্শনে ক্লাস নয়, স্কুল পড়ুয়াদের জন্য বড় সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করলেন শিক্ষামন্ত্রী

দূরদর্শনে ক্লাস নয়, স্কুল পড়ুয়াদের জন্য বড় সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করলেন শিক্ষামন্ত্রী
শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়

গত ১৫ মার্চ থেকে করোনা আতঙ্কে রাজ্যের স্কুল কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলি বন্ধ রয়েছে। ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রায় এক মাসেরও বেশি সময় ধরে স্কুলগুলি বন্ধ থাকার জেরে ছাত্র-ছাত্রীদের পঠন-পাঠনের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে।

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা আতঙ্কে রাজ্য জুড়ে চলছে লকডাউন। তারই মধ্যে নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের জন্য শুক্রবার ঘোষণা করেছিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বিশেষত আগামী ৭ এপ্রিল থেকে ১৩  এপ্রিল পর্যন্ত দূরদর্শন মারফত ক্লাস নেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিলেন। ঘোষণার ২৪ ঘন্টা যেতে না যেতেই সেই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

প্রত্যাহারের কারণ হিসেবে শিক্ষা মন্ত্রী জানিয়েছেন,  'অনেকেই মতামত দিচ্ছেন এই এক ঘন্টা ক্লাস করে ছাত্র-ছাত্রীদের খুব একটা লাভজনক হবে না। এ বিষয়ে অনেক অভিভাবকরাও আমাকে ব্যক্তিগতভাবে জানিয়েছেন। তাই দূরদর্শনের ক্লাস নেওয়ার সিদ্ধান্ত আপাতত স্থগিত রাখা হচ্ছে। কিন্তু স্কুুুুল শিক্ষা দফতরের পোর্টালের মাধ্যমে যে সিদ্ধান্তগুলির কথা জানানো হয়েছিল তা কার্যকরি থাকবে। ' শনিবার শিক্ষামন্ত্রী প্রত্যাহারের ঘোষণা কিছুটা হলেও চিন্তিত স্কুল পড়ুয়ারা।

করোনা আতঙ্কে দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। পাশাপাশি এ রাজ্যেও করোনা মোকাবিলায় জারি আছে লকডাউন। গত ১৫ মার্চ থেকে করোনা আতঙ্কে রাজ্যের স্কুল কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলি বন্ধ রয়েছে। ১৫  এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রায় এক মাসেরও বেশি সময় ধরে  স্কুলগুলি বন্ধ থাকার জেরে ছাত্র-ছাত্রীদের পঠন-পাঠনের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। বিশেষত নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত পড়ুয়াদের সিলেবাস পরবর্তীকালে শেষ করতে অনেকটাই সমস্যা তৈরি হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন শিক্ষকরা।

এই সমস্যা কাটাতে টিভি চ্যানেল মারফত ক্লাস নেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা শুক্রবার ঘোষণা করেছিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। মূলত বৃহস্পতিবারই রাজ্যের সরকারি ও সরকারি নিয়ন্ত্রিত স্কুলগুলিতে প্রথম থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত কোনও ছাত্রছাত্রীকে ফেল করানো হবে না বলে ঘোষণা করেছেন শিক্ষামন্ত্রী।

ফলত, নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রীদের কিভাবে সিলেবাস শেষ করা যায় তা নিয়ে ভাবনাচিন্তা শুরু হয়েছিল। কিন্তু শুক্রবার দূরদর্শন মারফত ১ ঘন্টা করে ক্লাস নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও ২৪ ঘন্টা না যেতেই এই সিদ্ধান্ত স্থগিত করার ঘোষণা করলেন শিক্ষা মন্ত্রী। ছাত্র-ছাত্রীদের এই এক ঘন্টার ক্লাস লাভজনক হবে না বলেই এই ক্লাস নেওয়ার সিদ্ধান্ত স্থগিত করা হয়েছে বলেই দাবি করেছেন শিক্ষা মন্ত্রী। যদিও 'বাংলার শিক্ষা' পোর্টাল-এর মাধ্যমে ক্লাস নেওয়ার যে কথা বলা হয়েছে তা জারি থাকবে বলেও জানিয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রী।

SOMRAJ BANDOPADHYAY

First published: April 4, 2020, 5:30 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर