corona virus btn
corona virus btn
Loading

বাড়তি টাকা চেয়ে অত্যাচার, খাস কলকাতায় পণের বলি সদ্যবিবাহিতা তরুণী

বাড়তি টাকা চেয়ে অত্যাচার, খাস কলকাতায় পণের বলি সদ্যবিবাহিতা তরুণী
বাড়তি টাকা চেয়ে অত্যাচার, খাস কলকাতায় পণের বলি সদ্যবিবাহিতা তরুণী
  • Share this:

 #কলকাতা: খাস কলকাতায় পণের বলি! তরুণীর মৃত্যুর পর ধুন্ধুমার হরিদেবপুর। শ্বশুরবাড়ি ভাঙচুর। পূজা দাসের পরিবারের অভিযোগ, টাকা, গয়নার দাবিতে বিয়ের পর থেকেই অত্যাচার চলত। বাড়তি টাকা না পেয়েই খুন করা হয়েছে। ঘটনায় গ্রেফতার স্বামী।

দুমাস আগে, ২৮ নভেম্বর বেহালার পূজা দাসের সঙ্গে হরিদেবপুরের বাসিন্দা স্বপন দাসের বিয়ে হয়। বিয়েতে পণ বাবদ দু'লক্ষ টাকাও দেওয়া হয়। কিন্তু, বিয়ের পর থেকেই শুরু হয় অত্যাচার। পূজার পরিবার ও বন্ধুদের অভিযোগ,

-টাকা, গয়নার জন্য বারবার চাপ দিত শ্বশুরবাড়ির লোকজন

-টাকা না পাওয়ায় অত্যাচারের মাত্রা আরও বাড়ে -মাকেও কয়েকবার অত্যাচারের কথা জানান পূজা -২ দিন ধরে নির্যাতন চরমে ওঠে

রবিবার সকালে পূজার অসুস্থতার কথা জানিয়ে শ্বশুরবাড়িতে ফোন করে স্বপন দাস। বাঙুর হাসপাতালে গিয়ে মেয়েকে মৃত অবস্থায় দেখেন পূজার বাড়ির লোকজন। পরিবারের অভিযোগ, আত্মহত্যা নয়, খুন করা হয়েছে পূজাকে। তাঁর শরীরের একাধিক জায়গায় আঘাতের চিহ্ন থাকায় সন্দেহ আরও বেড়েছে। পূজার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে স্বপন দাসকে গ্রেফতার করেছে হরিদেবপুর থানার পুলিশ।

ঘটনার পরই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে তরুণীর বাড়ির লোকজন। শ্বশুরবাড়ি গিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করা হয়। ভেঙে ফেলা হয় আসবাবপত্র। তবে পাড়ায় ভাল ছেলে বলেই সুনাম রয়েছে পেশায় এলআইসির এজেন্ট স্বপন দাসের।

মাত্র দু'মাস আগে একরাশ স্বপ্ন নিয়ে নতুন জীবন শুরু করেছিলেন পূজা। কিন্তু, শ্বশুরবাড়ির লোভ বাঁচতে দিল না বছর বাইশের তরুণীকে।

First published: January 29, 2018, 4:31 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर