কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

মুম্বইয়ের ধাঁচেই এবার নয়া রেক চলবে শিয়ালদহ ডিভিশনে  

মুম্বইয়ের ধাঁচেই এবার নয়া রেক চলবে শিয়ালদহ ডিভিশনে  

করোনা পরিস্থিতিতে সংক্রমণ এড়াতে মাস্ক, ফেস শিল্ডের ব্যবহার থাকলেও। মুক্ত বাতাস প্রয়োজন বলছেন চিকিৎসকরা।

  • Share this:

#কলকাতা: মুক্ত বিশুদ্ধ বাতাস চলাচল। বসার ও দাঁড়ানোর প্রশস্ত জায়গা। করোনা অধ্যায়ে লোকাল ট্রেন চলাচল শুরু হলে এমনই রেক দিয়ে পরিষেবা দেওয়া হবে। ইতিমধ্যেই শিয়ালদহ ডিভিশনে এসে গিয়েছে এমনই রেক। চেন্নাইয়ের ইন্টিগ্রাল কোচ ফ্যাক্টরি ও বম্বার্ডিয়ারের তৈরি করা এই নয়া রেক চালানো হবে। যা অনেকটাই মুম্বাইয়ের লোকাল ট্রেনের ধাঁচে। আপাতত শিয়ালদহ ডিভিশনের বারাসত কারশেডে চলছে এই রেকের ট্রায়াল রান। শীঘ্রই চালানো হবে স্টাফ স্পেশাল হিসাবে। তারপর যাত্রী পরিষেবা চালু হলে এই রেক দৌড় শুরু করবে।

করোনা পরিস্থিতিতে সংক্রমণ এড়াতে মাস্ক, ফেস শিল্ডের ব্যবহার থাকলেও। মুক্ত বাতাস প্রয়োজন বলছেন চিকিৎসকরা। সেই বিষয়টি মাথায় রেখে এই ট্রেনের ছাদ হচ্ছে আধুনিক। মেট্রোরেলের বাতানুকূল যন্ত্রের ধাঁচে এই কামরায় থাকছে বিশেষ রুফ মাউন্টেড এয়ার প্যানেল। ডিভিশন সূত্রে খবর, ঘন্টায় প্রায় ১৬ হাজার ঘন মিটার বাতাস কামরায় এর ফলে ঢুকতে পারবে। এছাড়া এই নয়া রেক স্টেনলেস স্টিলের হওয়ার কারণে অনেক হালকা৷ গতি সর্বাধিক ১১০ কিলোমিটার।

নতুন রেকে যাত্রীদের বসার জায়গা অনেক প্রশস্ত। মুখোমুখি বসার আসনের মধ্যে দুরত্ব অনেকটাই। এমনকি যে সব যাত্রী দাঁড়িয়ে যাবেন তাদের জন্যেও আছে যথাযথ ফাঁকা জায়গা। রেল আশাবাদী ভিড় নিয়ন্ত্রণ করে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখেই এই কামরায় বা নয়া রেকে যাতায়াত করা যাবে। ট্রেন জিপিএস নিয়ন্ত্রিত। ফলে বিভিন্ন স্টেশন স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতেই ঘোষণা হবে। প্রতি কামরায় থাকছে এল ই ডি আলো।  থাকছে ডিস-প্লে বোর্ড। মহিলা কামরায় থাকছে সিসি ক্যামেরা। এই ট্রেন ডিসি মোটরের বদলে এসি থ্রি ফেজে চলবে। রিজেনারেটিং ব্রেকিং সিস্টেম থাকায়  এই রেক অনেক বেশি এনার্জি এফিসিয়েন্ট। বছর দেড়েক আগে থেকে এই রেক চলছে মুম্বাইয়ে। এবার শিয়ালদহ ডিভিশনেও চালানো হবে এই রেক। রেল সূত্রে খবর, শীঘ্রই লোকাল ট্রেন চলাচল নিয়ে রাজ্যের সাথে বৈঠক হতে চলেছে।

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: September 19, 2020, 11:53 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर