corona virus btn
corona virus btn
Loading

নেতাজিনগরে বৃদ্ধ দম্পতি খুনে ক্রমশ দানা বাঁধছে রহস্য

নেতাজিনগরে বৃদ্ধ দম্পতি খুনে ক্রমশ দানা বাঁধছে রহস্য
Netajinagar murder case, Photo: News 18 Bangla

প্রতিবেশীদের দাবি, এই মিশুকে দম্পতির বাড়িতে সকলেরই ছিল অবাধ যাতায়াত। ব্যাঙ্কে রাখা টাকা থেকেই চলত তাঁদের সংসার।

  • Share this:

#কলকাতা: বৃদ্ধের মোবাইলের সিম উধাও। মিলছে না বৃদ্ধার মোবাইলও। তদন্তে বিভ্রান্ত করতেই কী নয়া পন্থা? নেতাজিনগরে বৃদ্ধ দম্পতি খুনে ক্রমশ দানা বাঁধছে রহস্য। কয়েকদিন আগেই বাড়িতে রং-প্লাস্টারের কাজ হয়েছে। সবদিক খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

নেতাজিনগরে বৃদ্ধ দম্পতি খুনের ঘটনায় নয়া তথ্য। তদন্তকারীরা জানতে পেরেছেন, দোতলায় সব মিলিয়ে ১০টি আলমারি রয়েছে। ন'টি আলমারি ভেঙে লুঠপাট চালায় আততায়ী। একটি আলমারি খুলতে পারেনি। সেই আলমারি থেকে আড়াই লক্ষ টাকা, সোনা ও তিরিশ লক্ষ টাকার ফিক্সড ডিপোজিটের নথি উদ্ধার করেছে পুলিশ। দোতলায় ১০টি আলমারি রয়েছে৷ ৯টি আলমারি ভেঙে লুঠ৷ ১টি আলমারি খুলতে পারেনি দুষ্কৃতীরা৷ আলমারি থেকে আড়াই লক্ষ টাকা উদ্ধার৷ মিলেছে গয়না৷ উদ্ধার ৩০ লক্ষ টাকার এফডির নথি৷

আরও পড়ুনএনআরএসের ঘটনায় বয়ান রেকর্ডের আবেদন

প্রতিবেশীদের দাবি, এই মিশুকে দম্পতির বাড়িতে সকলেরই ছিল অবাধ যাতায়াত। ব্যাঙ্কে রাখা টাকা থেকেই চলত তাঁদের সংসার। ব্যাঙ্ক থেকে টাকা তুলতে পরিচিত কাউকেই নিয়ে যেতেন ষাটোর্ধ্ব দিলীপ মুখোপাধ্যায়।

মিশুকে দম্পতি হিসেবেই পরিচিত৷ ব্যাঙ্কের সঞ্চয় থেকে সংসার খরচ৷ পরিচিতদের নিয়ে ব্যাঙ্কে যেতেন বৃদ্ধ৷

আরও পড়ুন ম্যান্ডেভিল গার্ডেন্স-এর নয়া নাম সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় সরণি

সম্প্রতি বৃদ্ধ দম্পতির বাড়িতে রং-প্লাস্টারের কাজ হয়। ঠিকাদার একজন হলেও, কর্মীদের প্রায়ই বদল করা হত। ঘরের মধ্যে তাঁদেরও অবাধ যাতায়াত ছিল। ফলে, দম্পতির গতিবিধি সম্পর্কে তাঁদেরও ধারনা থাকতে পারে।

প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, বাড়িতে কেউ এলে, বৃদ্ধা স্বপ্না মুখোপাধ্যায় দোতলার জানলা দিয়ে প্রথমে দেখতেন। তারপরই দরজা খুলতেন। তাহলে কী খুনের পিছনে পরিচিত কেউ? সন্দেহের তালিকায় রয়েছেন বাইরের লোকও। এলাকার একটি সিসিটিভি ফুজেট খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

First published: July 31, 2019, 1:58 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर