• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • NARENDRA MODI IS MOST POWERFUL LEADER IN WORLD SUVENDU ADHIKARI SAID ON MAMATA BANERJEES DELHI VISIT SB

Suvendu Adhikari on Narendra Modi: 'মোদি বিশ্বের সর্বশক্তিমান নেতা!', মমতাকে বিঁধতে গিয়ে শুভেন্দুর দাবিতে চাঞ্চল্য

মোদিতে মুগ্ধতার শেষ নেই শুভেন্দুর

Suvendu Adhikari on Narendra Modi: শুভেন্দু অধিকারীর কটাক্ষ, 'একজন নন এমএলএ মুখ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন। ভোট তো অনেক দূরে। তিন বছর বাকি এখনও লোকসভা ভোটের। অথচ কলকাতার কিছু লোক এমন করছে যেন এই বছর নভেম্বর মাসে ভোট।' তাঁর মোদি স্তুতিতে অবাক রাজনৈতিক মহল।

  • Share this:

    #কলকাতা: মুকুল রায়ের বিধায়কপদ খারিজের দাবিতে বিজেপির আবেদনের দ্বিতীয় শুনানিতে গিয়ে নরেন্দ্র মোদিকে ফের বিশ্বের সর্বশক্তিমান নেতা বলে দাবি করলেন বাংলার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। আগের বারের মতো এদিনও মুকুল রায়ের বিধায়ক পদ খারিজের দাবিতে করা শুনানিতে হাজির হয়েছিলেন শুভেন্দু। শুনানি শেষে তাঁকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিল্লি সফর নিয়ে প্রশ্ন করা হলে নন্দীগ্রামের বিধায়ক বলেন, 'আগেও ওসব জোট, ফোট করা হয়েছে। ফল দেখা গিয়েছে। নরেন্দ্র মোদি শুধু শ্রেষ্ঠ প্রধানমন্ত্রীই নন, বিশ্বের সর্বশক্তিমান নেতা। মোদিকে হঠানো অত সহজ নয়।' বিধানসভা ভোটের আগেও বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই শুভেন্দুর মোদি-স্তুতি আলাদা করে নজরে পড়েছে রাজনৈতিক মহলের। যা এখনও অব্যাহত রয়েছে।

    শুভেন্দুর কটাক্ষ, 'একজন নন এমএলএ মুখ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন। ভোট তো অনেক দূরে। তিন বছর বাকি এখনও লোকসভা ভোটের। অথচ কলকাতার কিছু লোক এমন করছে যেন এই বছর নভেম্বর মাসে ভোট। এখনও অনেক বাকি। এখন বরং কোভিড নিয়ে, কর্মসংস্থান নিয়ে কথা হোক।' যদিও শুভেন্দুর মোদি-স্তুতিকে কটাক্ষ করেছে তৃণমূল।

    অপরদিকে, এদিনের শুনানিতে বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপির আবেদন গ্রহণ করেছেন বলে জানান শুভেন্দু। গত ১৬ জুলাই বিজেপির আবেদনের প্রথম শুনানিতে নথিপত্র জমা দেওয়া সইসাবুদের পর্ব চলেছিল। সেদিন স্পিকারের ঘরে মাত্র ৫ মিনিট কাটিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। শুক্রবার অবশ্য প্রায় ২৫ মিনিট স্পিকারের ঘরে ছিলেন বাংলার বিরোধী দলনেতা।

    বাইরে এসে তাঁর দাবি, ‘আমাদের কাছে যাবতীয় প্রমাণ রয়েছে। আমরা তা স্পিকারের কাছে জমা দিয়েছি। তিনি দ্রুত সিদ্ধান্ত না নিলে আমরা আদালতের পথে হাঁটব।' এই প্রসঙ্গেই তিনি তুলে আনেন দীপালি বিশ্বাসের কথা। তাঁর বিরুদ্ধে বামেদের দলত্যাগবিরোধী আইন প্রয়োগের দাবির ২৩ বার শুনানি হয়েছিল, সেই প্রসঙ্গ তুলে শুভেন্দু বলেন, 'সেটা আমরা এবার হতে দেব না।’

    মুকুলের সদস্যপদ খারিজের ব্যাপারে আগেই অবস্থান স্পষ্ট করেছে বিজেপি। শুভেন্দু অধিকারী জানিয়েছেন, দিনের পর দিন শুনানি চললে আদালতে যাবেন তাঁরা। ইতিমধ্যে বিজেপি এ ব্যাপারে আইনি পদক্ষেপ করার প্রস্তুতি শুরু করেছে বলেই সূত্রের খবর।

    Published by:Suman Biswas
    First published: