• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • NARADA SCAM CASE CBI INCLUDES MAMATA BANERJEES NAME AS A PARTY SB

Mamata Banerjee in Narada Scam Case: নিজাম প্যালেসে যাওয়াই কারণ? নারদ স্থানান্তর মামলায় মমতাকে 'পক্ষ' করল CBI!

নিজাম প্যালেসে মমতা

narada scam case-এ মামলার স্থান পরিবর্তনের আবেদনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) পক্ষ করল সিবিআই (CBI)।

  • Share this:

    #কলকাতা: এবার নারদ মামলায় (Narada Scam Case) নাম জুড়ল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee)। বুধবার কলকাতা হাইকোর্টে দুটি আবেদনের শুনানি রয়েছে। প্রথমটি হল, নারদ মামলা এ রাজ্য থেকে ভিন রাজ্যে নিয়ে যাওয়ার আবেদন, অপরটি ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim), সুব্রত মুখোপাধ্যায় (Subrata Mukherjee), মদন মিত্র (Madan Mitra) ও শোভন চট্টোপাধ্যায়ের (Sovan Chatterjee) জামিনের আবেদন। এই প্রেক্ষিতে প্রথম আবেদনটি, অর্থাৎ মামলার স্থান পরিবর্তনের আবেদনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পক্ষ করল সিবিআই। একইভাবে রাজ্যের আইনমন্ত্রী মলয় ঘটক ও তৃণমূল সাংসদ তথা আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে পার্টি করেছে সিবিআই।

    প্রসঙ্গত, সোমবার সকাল বেলা ফিরহাদ, মদন মিত্রদের সিবিআই গ্রেফতার করার পরপরই সাড়ে দশটা নাগাদ নিজামে প্যালেসে পৌঁছে যান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে সিবিআই আধিকারিকদের তিনি বলেন, 'আমাকেও গ্রেফতার করতে হবে।' এরপর প্রায় ৬ ঘণ্টা নিজাম প্যালেসে ছিলেন তিনি। বেরোনোর সময় অবশ্য বলেন, 'আদালত যা সিদ্ধান্ত নেবে, সেটাই শেষ কথা।'

    এরপর নিম্ন আদালতে ফিরহাদ জামিন পেয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু প্রায় সঙ্গেসঙ্গেই হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় সিবিআই। সেখানে মদন মিত্রদের প্রভাবশালী আখ্যা দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নিজাম প্যালেসে বসে থাকা, তৃণমূল কর্মীদের প্রবল বিক্ষোভের প্রসঙ্গগুলি তুলে মামলা ভিনরাজ্যে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার আবেদন করে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। সেই আবেদনের শুনানি রয়েছে আজ। কিন্তু তার আগেই ওই মামলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, মলয় ঘটক ও কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়কেও পক্ষ করা হল। ফলে নারদ মামলা আরও 'অন্যদিকে' যে মোড় নিল, তা বলাই বাহুল্য।

    প্রসঙ্গত, নারদ কাণ্ডে (Narada Scam) ধৃত চার নেতা বিশেষ সিবিআই আদালতে জামিন পেলেও সোমবার রাতেই সেই নির্দেশের উপর স্থগিতাদেশ জারি করেছিল কলকাতা হাইকোর্ট৷ মঙ্গলবার ফের ধৃতদের আইনজীবীরা কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হলে মামলা বুধবার শোনার কথা জানান কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি। প্রসঙ্গত, ধৃত তিন তৃণমূল নেতা এবং শোভন চট্টোপাধ্য়ায়ের হয়ে হাইকোর্টে সওয়াল করেন কংগ্রেস নেতা তথা আইনজীবী অভিষেক মনু সিংভি৷ তাঁর সঙ্গে ছিলেন তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এদিনও অভিষেক মনু সিংভি ও সিদ্ধার্থ লুথরা চার হেভিওয়েটের হয়ে সওয়াল করবেন, অপরদিকে সিবিআই-এর হয়ে সওয়াল করবেন সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহেতা।

    Published by:Suman Biswas
    First published: