Jagdeep Dhankhar Tweet: জন্মদিনে গেটের বাইরে ভেড়ার পাল, রাজভবনে বসে ক্ষোভে ফুঁসছেন ধনখড়!

ভেড়ায় ক্ষুব্ধ ধনখড়

ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে আগেই সরব হয়েছিলেন পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় (West Bengal Governor Jagdeep Dhankhar)। তীব্র আক্রমণ শানিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) ও তাঁর সরকারকে। এবার এরই মধ্যে শুরু হয়েছে নারদ মামলা (Narada Scam Case) নিয়ে তীব্র সংঘাত।

  • Share this:

    কলকাতা: রাজ্য বনাম রাজ্যপাল সংঘাত চরমে উঠেছে। ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে আগেই পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় (West Bengal Governor Jagdeep Dhankhar) তীব্র আক্রমণ শানিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) ও তাঁর সরকারকে। এরই মধ্যে শুরু হয়েছে নারদ নিয়ে তীব্র সংঘাত। রাজ্যপালের অনুমতি নিয়েই ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim), সুব্রত মুখোপাধ্যায় (Subrata Mukherjee), মদন মিত্র (Madan Mitra) ও শোভন চট্টোপাধ্যায়কে (Sovan Chatterjee) গ্রেফতার করেছে CBI। ফলে শাসক দলের রোষের মুখে জগদীপ ধনখড়। এই পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার দুপুরে রাজভবনের সামনে আজব কাণ্ডের দেখা মিলেছিল। আচমকাই একদল ভেড়া চলে এসেছিল রাজভবনের (Raj Bhavan) সামনে। মূলত রাজ্যপালের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ দেখাতেই ওই ভেড়ার পাল নিয়ে রাজভবনের সামনে আসেন এক ব্যক্তি। যাদের তাড়াতে গিয়ে রীতিমতো নাজেহাল নিরাপত্তারক্ষী থেকে শুরু করে পুলিশ কর্মীদের। আর বুধবার সেই ঘটনা নিয়েও ক্ষোভে ফুঁসছেন রাজ্যপাল।

    বুধবার সকালে এই ঘটনা নিয়ে ট্যুইটারে ধনখড় লেখেন, 'রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা কোথায় পৌঁছেছে, তা এই ঘটনাতেই দেখা যাচ্ছে। রাজভবনের সামনে ভেড়া নিয়ে গণ্ডগোল করা হচ্ছে। কলকাতা পুলিশ চুপচাপ দাঁড়িয়ে রয়েছে।' ট্যুইটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও ট্যাগ করেছেন ধনখড়। রাজভবনের গেটে ওই ব্যক্তির ভেড়া নিয়ে বিক্ষোভের দৃশ্যও ট্যুইট করে ধনখড় লিখেছেন, 'রাজভবনের গেটে এই দৃশ্য, অথচ কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হল না।'

    জানা গিয়েছে, ভেড়ার পাল নিয়ে রাজভবনের গেটে বিক্ষোভ দেখায় সিটিজেন এগেনস্ট ডার্টি পলিটিকিস অ্যান্ড কোর্পোরেশ নামে একটি সংগঠন। কিন্তু, কেন এমন উদ্ভট কর্মসূচি তাঁদের? সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে, 'করোনায় বিপর্যস্ত গোটা বাংলায়। চারিদিকে হাহাকার। হাসাপাতলে বেড নেই, অক্সিজেন মিলছে না। আর এই পরিস্থিতিতে করোনা নয়, বরং রাজনীতি করতে নেমেছেন রাজ্যপাল। নোংরা রাজনৈতিক খেলা চলছে এই রাজ্যে।' যদিও ভেড়ার পাল নিয়ে প্রতিবাদের কিছুক্ষণের মধ্যেই ওই সংগঠনের কর্মীদের রাজভবনের সামনে থেকে সরিয়ে দেয় পুলিশ।

    সোমবারের আগে তো বটেই, নারদ কাণ্ডে ফিরহাদ হাকিম, মদন মিত্ররা গ্রেফতার হতেই রাজ্যপালের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়ে তৃণমূল। ধনখড়কে অতৃপ্ত আত্মা, পাগলা কুকুর বলে আক্রমণ শানান তৃণমূল নেতারা। বিজেপির এজেন্ট বলে তাঁকে আক্রমণ শানানো হয়। সূত্রের খবর, রাজ্যপালকে অপসারণের দাবিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠিও লিখতে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এমনকী বিধানসভাতেও রাজ্যপালের বিরুদ্ধে প্রস্তাব আনার ভাবনাচিন্তা চলছে। এই পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার, জন্মদিনের দিন রাজভবনের গেটে ভেড়ার পাল দেখে প্রবল ক্ষুদ্ধ রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

    Published by:Suman Biswas
    First published: