• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • নারদকর্তাকে ঘিরে আটক-মুক্তির নাটক, আইনি পথে যাওয়ার হুমকি ম্যাথুর আইনজীবীর

নারদকর্তাকে ঘিরে আটক-মুক্তির নাটক, আইনি পথে যাওয়ার হুমকি ম্যাথুর আইনজীবীর

নারদকাণ্ডে এখন টানটান উত্তেজনায় ভরপুর। প্রতি মূহুর্তে বদলে যাচ্ছে সম্ভাবনা। সেই অনুযায়ী আইনি প্রক্রিয়াও নির্ধারিত হচ্ছে।

নারদকাণ্ডে এখন টানটান উত্তেজনায় ভরপুর। প্রতি মূহুর্তে বদলে যাচ্ছে সম্ভাবনা। সেই অনুযায়ী আইনি প্রক্রিয়াও নির্ধারিত হচ্ছে।

নারদকাণ্ডে এখন টানটান উত্তেজনায় ভরপুর। প্রতি মূহুর্তে বদলে যাচ্ছে সম্ভাবনা। সেই অনুযায়ী আইনি প্রক্রিয়াও নির্ধারিত হচ্ছে।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: নারদকাণ্ডে এখন টানটান উত্তেজনায় ভরপুর। প্রতি মূহুর্তে বদলে যাচ্ছে সম্ভাবনা। সেই অনুযায়ী আইনি প্রক্রিয়াও নির্ধারিত হচ্ছে। দুবাই থেকে দিল্লি ফিরে বিমানবন্দরে নাটকীয়ভাবে আটক ম্যাথু স্যামুয়েল। ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই আবার নাটকীয়ভাবে মুক্তিও পেলেন।

    গ্রেফতারির প্রস্তুতি নিয়েছিল কলকাতা পুলিশ। সেই অনুযায়ী লুক আউট নোটিস জারি করা হয়। সেই লুক আউট নোটিশের ভিত্তিতেই দিল্লি বিমানবন্দরে আটক করা হয় নারদকর্তা ম্যাথু স্যামুয়েলসকে। আটক করার পর গ্রেফতারি ছিল স্রেফ সময়ের অপেক্ষা। কিন্তু বাধা হয়ে দাঁড়াল হাইকোর্টের নির্দেশ। হাইকোর্ট তদন্তে স্থগিতাদেশ দেওয়ার আগেই কলকাতা পুলিস লুকআউট নোটিশ জারি করে। কিন্তু হাইকোর্টের নির্দেশ জারি হওয়ায় শেষ পর্যন্ত ম্যাথুকে ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কলকাতা পুলিশ।

    নারদ নিউজের সিইও ম্যাথু স্যামুয়েল। বিধানসভা নির্বাচনের মুখে তাঁর দেখানো ভিডিও নিয়ে হইচই পড়েছিল। একাধিকবার আইনি নোটিশ পাঠালেও গুরুত্ব দেননি ম্যাথু। কলকাতা পুলিশ তাঁর নামে লুকআউট নোটিশ জারি করেছিল। শনিবার দুবাই থেকে দিল্লি ফিরতেই আটক নারদ সিইও। সন্ধে ৬টা ৫০ নাগাদ বিমানবন্দরে নামতেই তাঁকে ঘিরে ধরেন অভিবাসন দফতরের আধিকারিকরা।

    নারদকর্তার আটকের খবর পেয়ে ম্যাথুর আইনজীবী শামিম আহমেদ লালবাজারে যান। কলকাতা হাইকোর্টের স্থগিতাদেশের নথি জমা দেন তিনি। নথি পাওয়ার পর দিল্লি পুলিশের সঙ্গে কথা হয় কলকাতা পুলিশের। লালবাজার দিল্লি পুলিশকে বলে ম্যাথুকে ছেড়ে দিতে। সাড়ে তিন ঘণ্টা আটক থাকার পর রাত দশটা কুড়ি নাগাদ ছেড়ে দেওয়া হয় নারদ সিইওকে।

    আদালতের স্থগিতাদেশের অনেক আগেই লুকআউট নোটিশ জারি করেছিল কলকাতা পুলিশ। হাইকোর্টের নির্দেশের কপি এখনও কোনও পক্ষের হাতে না পৌঁছয়নি। নির্দেশের কপি এখনও আদালতের ওয়েবসাইটেও আপলোড হয়নি। এ কারণেই ম্যাথুকে ঘিরে তৈরি হয় বিভ্রান্তিকর পরিস্থিতি।

    গোটা ঘটনায় কলকাতা পুলিশ ও তদন্তকারী দলের প্রধান রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন ম্যাথু স্যামুয়েলস। তাঁর আইনজীবী শামিম আহমেদ জানিয়েছেন, ‘আমরা পুলিসের বিরুদ্ধে মামলা করব ৷’

    First published: