• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • নাকতলার ডাকাতিতে রয়েছে প্রোমোটারি যোগ, অনুমান পুলিশের

নাকতলার ডাকাতিতে রয়েছে প্রোমোটারি যোগ, অনুমান পুলিশের

নাকতলায় মঙ্গলবার রাতে চিকিত্সকের বাড়িতে ডাকাতিতে প্রোমোটারি যোগের বিষয়টি এখন অনেকটাই স্পষ্ট। বাড়িতে টাকা রয়েছে জেনেই নাকতলার ওই বাড়িতে হানা দিয়েছিল দুষ্কৃতীরা।

নাকতলায় মঙ্গলবার রাতে চিকিত্সকের বাড়িতে ডাকাতিতে প্রোমোটারি যোগের বিষয়টি এখন অনেকটাই স্পষ্ট। বাড়িতে টাকা রয়েছে জেনেই নাকতলার ওই বাড়িতে হানা দিয়েছিল দুষ্কৃতীরা।

নাকতলায় মঙ্গলবার রাতে চিকিত্সকের বাড়িতে ডাকাতিতে প্রোমোটারি যোগের বিষয়টি এখন অনেকটাই স্পষ্ট। বাড়িতে টাকা রয়েছে জেনেই নাকতলার ওই বাড়িতে হানা দিয়েছিল দুষ্কৃতীরা।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: নাকতলায় মঙ্গলবার রাতে চিকিত্সকের বাড়িতে ডাকাতিতে প্রোমোটারি যোগের বিষয়টি এখন অনেকটাই স্পষ্ট। বাড়িতে টাকা রয়েছে জেনেই নাকতলার ওই বাড়িতে হানা দিয়েছিল দুষ্কৃতীরা। ঘটনায় যুক্ত চার জনের মধ্যে অন্তত দু’জন পরিবারের পরিচিত ছিল বলেই নিশ্চিত পুলিশ। তবে বেশ কিছু সূত্র হাতে এলেও ডাকাতিতে জড়িত কাউকেই এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

    মঙ্গলবার রাত আটটা নাগাদ নাকতলার চিকিৎসকের বাড়িতে চড়াও হয়েছিল চার ডাকাত। এদের মধ্যে অন্তত দু’জন পরিবারের পরিচিত বলেই অনুমান পুলিশের। ঘরের নকশা সম্পর্কে অনেকটাই অবহিত ছিল ওই চারজন। এমনকী ঘরের পিছন দিয়ে যে টয়লেটের রাস্তা রয়েছে তাও অজানা ছিল না তাদের। বাড়িতে আনাগোনা না থাকলে এমনটা সম্ভব নয় বলেই মত তদন্তকারীদের।

    -ওই পরিবার যে মুদির দোকানে কেনাকেটা করত, তা জানা ছিল দুষ্কৃতীদের  -এলাকায় রেইকিও করে তারা - বাড়ির কোন অংশে কী রয়েছে সে ব্যাপারেও ধারণা ছিল -বাড়িতে টাকা রয়েছে, দুষ্কৃতীরা তা জানত - কোন জায়গায় ক’টি আলমারি আছে, তাও জানা ছিল

    দুষ্কৃতীদের একজন পরিচিত বলে সোমবারই দাবি করেছিলেন গৃহকত্রী। নতুন করে এব্যাপারে মুখ খুলতে নারাজ চিকিৎসক ও তাঁর পরিবার। পুলিশি তদন্তে ভরসা রাখার কথাই জানাচ্ছেন তাঁরা।

    Naktala Decoity 3

    তদন্তে নেমে আলমারি ও তালায় ডাকাতদের আঙুলের ছাপ পেয়েছিলেন তদন্তকারীরা। আপাতত পরিবারের বিবরণের সঙ্গে এটাও পুলিশের অন্যতম ভরসা।

    First published: