সরকারি প্রকল্পে আরও গতি, নির্দেশিকায় নতুন নিয়ম জারি রাজ্য প্রশাসনের

সরকারি প্রকল্পে আরও গতি, নির্দেশিকায় নতুন নিয়ম জারি রাজ্য প্রশাসনের
  • Share this:

অর্ণব হাজরা 

#কলকাতা: সরকারি প্রকল্পে আরও গতি বাড়াতে আরও এক কদম রাজ্যের। রাজ্যের কোণায় কোণায় সরকারি প্রকল্পের সুবিধা কতটা পৌঁছেছে তা প্রত্যন্ত এলাকার মানুষের মুখ থেকে জানতে চায় প্রশাসন। মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক পর্যালোচনা বৈঠকের ধাঁচে এবার ব্লকে ব্লকে চলবে পর্যালোচনা বৈঠক৷ শনিবার মুখ্য সচিবের দপ্তর থেকে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। সমস্ত জেলা শাসকদের নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে এবার থেকে প্রতি ব্লকে হবে প্রশাসনিক পর্যালোচনা বৈঠক। ব্লকের একেকটি গ্রাম পঞ্চায়েতে পর্যায়ক্রমে বৈঠক করার কথা বলা হয়েছে। পূর্বনির্ধারিত বৈঠকের পাশাপাশি থাকছি সারপ্রাইজ ভিজিটও। জেলাশাসকদের সঙ্গে একটি আধিকারিকদের দলও যাবে বৈঠকে। গ্রামের মানুষ এলাকায় তাদের নিজেদের সমস্যার কথা সরাসরি জানাতে পারবেন জেলাশাসককে।নবান্ন

মহকুমা শাসকদের একইরকমভাবে পুরসভা এলাকায় প্রশাসনিক পর্যালোচনা বৈঠক করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন সরকারি প্রকল্প, প্রজেক্ট, প্রতিষ্ঠানের কাজের অগ্রগতি হিসেবও নেওয়া হবে এই বৈঠকগুলিতে। প্রত্যন্ত এলাকার মানুষের মুখ থেকে সরকারি প্রকল্পের সুবিধা -অসুবিধা জানার ব্যবস্থা থাকছে। প্রতিটি গ্রাম পঞ্চায়েতে একজন করে নোডাল অফিসার নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নবান্ন। সংশ্লিষ্ট বিডিওরা নোডাল অফিসার নিয়োগ করবেন পঞ্চায়েত গুলিতে। নোডাল অফিসাররা অফলাইন এবং অনলাইন ব্যবস্থাপনায় গ্রামের বাস্তব চিত্র উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে তুলে ধরবেন।

আরও পড়ুন একটানা ১০ ঘণ্টা ওভারহেড তারে যুবক, পুলিশ-জিআরপিকে নাস্তানাবুদ, অবশেষে উদ্ধার দমকলের

Loading...

১৪ নভেম্বর রাজ্যের প্রশাসনিক বৈঠক হয় নবান্ন সভা করে। ওই বৈঠকে সব মন্ত্রী, আমলা, পুলিশকর্তা ছাড়াও উপস্থিত থাকতে বলা হয় জেলাশাসকদের। ১৪ নভেম্বর রাজ্যের প্রশাসনিক বৈঠক থেকেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জেলায় প্রশাসনিক বৈঠকে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী একাধিক অভিযোগ পেয়েছেন। লোকসভা ভোটের ফল বেরোনোর পর কাটমানি অভিযোগে নাজেহাল হতে হয়েছে শাসক দলকে। দুর্নীতির সঙ্গে অভিযুক্তদের কোন ভাবেই রেয়াত নয় হুঁশিয়ারি দিয়েছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী। জেলাশাসক-দের গ্রামে পাঠিয়ে প্রশাসনিক ব্যবস্থাকে আরো স্বচ্ছ করে তোলাই লক্ষ্য এখন নবান্নের।

First published: 11:39:14 AM Dec 01, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर