• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • MUKUL ROYS WIFE KRISHNA ROY SHIFTED TO CHENNAI BY AIR AMBULANCE FOR LUNG TRANSPLANT SDG

Mukul Roy Wife Health: মুকুলপত্নীর ফুসফুস প্রতিস্থাপন কবে? চেন্নাই হাসপাতালে বৈঠক মেডিক্যাল বোর্ডের

মুকুল রায়ের (Mukul Roy) স্ত্রী কৃষ্ণা রায়কে (Mukul Roy Wife Health) নিয়ে চেন্নাই (Chennai) রওনা দিল এয়ার অ্যাম্বুলেন্স (Air Ambulance)।

মুকুল রায়ের (Mukul Roy) স্ত্রী কৃষ্ণা রায়কে (Mukul Roy Wife Health) নিয়ে চেন্নাই (Chennai) রওনা দিল এয়ার অ্যাম্বুলেন্স (Air Ambulance)।

  • Share this:

#কলকাতা: মুকুল রায়ের (Mukul Roy) স্ত্রী কৃষ্ণা রায়কে (Krishna Roy) নিয়ে চেন্নাই (Chennai) রওনা দিল এয়ার অ্যাম্বুলেন্স (Air Ambulance)। বৃহস্পতিবার সকালে অ্যাপোলো হাসপাতাল থেকে গ্রিন করিডর করে বিশেষ অ্যাম্বুল্যান্স রওনা দেয় কলকাতা বিমানবন্দরের উদ্দেশ্যে। সকাল ৭:৫০ মিনিট নাগাদ বিমান বন্দরে পৌঁছয় সেই অ্যাম্বুল্যান্স। মুকুল রায়ের স্ত্রীকে নিয়ে ৮:২১ মিনিটে এয়ার অ্যাম্বুল্যান্সে রওনা হয় চেন্নাইয়ের উদ্দেশ্যে। মুকুল রায়ের স্ত্রী  ছাড়াও চিকিৎসক-সহ মেডিক্যাল বোর্ডের সাত সদস্য সঙ্গে গিয়েছেন। মুকুল রায়ের পুত্র শুভ্রাংশু রয়েছেন চেন্নাইতেই।

বুধবার চিকিৎসার জন্য কৃষ্ণা রায়কে নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল চেন্নাই। সেইমতো সব আয়োজন ছিল প্রস্তুত। তবে চেন্নাইয়ের আবহাওয়া অনুকূল না থাকায়, মুকুল রায়ের স্ত্রীকে চেন্নাই নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়নি। কলকাতা বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের কাছে চেন্নাইয়ের আবহাওয়া অনুকূল না থাকার  খবর আসতেই চেন্নাই যাত্রা স্থগিত করা হয়। হাসপাতাল থেকে জানানো জানানো হয় চেন্নাইয়ের আবহাওয়ার পরিস্থিতি অনুকূল হলেই পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। সেইমতো আজ বিমানবন্দরের সবুজ সঙ্কেত মিলতেই কলকাতা থেকে মেডিক্যাল টিম চেন্নাইয়ের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় মুকুল রায়ের স্ত্রীকে নিয়ে।

প্রসঙ্গত, করোনা আক্রান্ত কৃষ্ণা রায়কে অত্যন্ত সঙ্কটজনক অবস্থায়  কলকাতার অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল। তিনি করোনামুক্ত হলেও তাঁর ফুসফুস ভীষণ রকম ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বিগত কয়েক দিন ধরেই  তাঁকে একমো সাপোর্টে রাখা হয়েছে। তাতেও অবস্থার কোনও পরিবর্তন হয়নি। এর মধ্যেই চেন্নাই থেকে চিকিৎসকদের একটি দল এসে তাঁকে দেখে যান। চিকিৎসকেরা জানান, ফুসফুস প্রতিস্থাপন করেই তাঁকে সুস্থ করে তোলা সম্ভব। তারপর থেকেই সেই প্রস্তুতি চলছিল। এরপর আজ তাঁকে এয়ার অ্যাম্বুল্যান্সে করে চেন্নাই নিয়ে যাওয়া হল।

করোনা ভাইরাসের আক্রমণে কার্যক্ষমতা নষ্ট হয়ে গিয়েছে ফুসফুসের। ফলে বিগত কয়েক দিন ধরেই কৃষ্ণা রায়ের ফুসফুস প্রতিস্থাপনের (Lung Transplant) কথা ভাবছিলেন চিকিৎসকেরা। খোঁজ চলছিল দাতার। কিন্তু শারীরিক অবস্থা ক্রমশ অবনতি হওয়ায় সেই প্রতিস্থাপন দ্রুত করার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। কিন্তু রাজ্যের কোনও হাসপাতালেই ফুসফুস প্রতিস্থাপনের পরিকাঠামো না থাকায় কৃষ্ণা রায়কে চেন্নাইয়ে নিয়ে যাওয়া হল। সেখানেই তাঁর ফুসফুস প্রতিস্থাপন হওয়ার  কথা। আজই চেন্নাই হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন।  শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, মুকুল রায়ের স্ত্রী পৌঁছে গিয়েছেন চেন্নাইয়ের হাসপাতালে। বিশেষ মেডিক্যাল বোর্ড গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

VENKATESWAR  LAHIRI 

Published by:Shubhagata Dey
First published: