• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • MUKUL ROY WANTS TO LEAVE HIS SECURITY ALLOTTED BY CENTRE WRITES LETTER TO HOME MINISTER PBD

Mukul Roy Security: 'কেন্দ্রীয় বাহিনী প্রয়োজন নেই', অমিত শাহর দফতরকে জানালেন মুকুল

শুক্রবার থেকেই মুকুল রায়ের নিরাপত্তায় রাজ্য পুলিশের তরফে নিরাপত্তাকর্মী মোতায়েন করার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরাও মুকুল রায়ের নিরাপত্তায় এখনও মোতায়েন রয়েছে।

শুক্রবার থেকেই মুকুল রায়ের নিরাপত্তায় রাজ্য পুলিশের তরফে নিরাপত্তাকর্মী মোতায়েন করার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরাও মুকুল রায়ের নিরাপত্তায় এখনও মোতায়েন রয়েছে।

  • Share this:

#কলকাতা: মুকুল রায়কে  Z ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দেবে রাজ্য। মুকুল পুত্র শুভ্রাংশু পাবে ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তা। যদিও এ বিষয়ে এখনও কোনও চূড়ান্ত অর্ডার বেরোয়নি। তবে সূত্রের খবর, খুব শিগগিরই এই নিরাপত্তা ব্যবস্থা মোতায়েন হতে চলেছে। পাশাপাশি দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করেই মুকুল রায় কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ছাড়তে চেয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে চিঠি পাঠিয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে। যদিও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক এখনও সেই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে কোনও পদক্ষেপ করেনি।

স্বাভাবিকভাবেই শুক্রবার থেকেই মুকুল রায়ের  নিরাপত্তায় রাজ্য পুলিশের তরফে নিরাপত্তাকর্মী মোতায়েন করার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরাও  মুকুল রায়ের নিরাপত্তায় এখনও মোতায়েন রয়েছে। শুক্রবারই তৃণমূল ভবনে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সহ অন্যান্য প্রথম সারির নেতাদের উপস্থিতিতে গেরুয়া শিবির ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেন একসময়ের তৃণমূলের সেকেন্ড ইন কমান্ড মুকুল রায়। রাতেই নিজের বাড়ি কাঁচরাপাড়ায় চলে যান মুকুল। শনিবার সকালে সেখান থেকে তাঁর কনভয় রওনা দেয় সল্টলেকের উদ্দেশ্যে। কাঁচরাপাড়া থেকে সল্টলেকের বিডি ব্লকের হাউস নম্বর ফিফটি ওয়ানে এসে পৌঁছান মুকুল রায়। কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা প্রত্যাহারের আবেদন জানিয়ে মুকুল রায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে আবেদন করলেও এদিন সকালে তাঁর কাঁচরাপাড়া এবং সল্টলেকের বাড়ির সামনে দেখা যায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা মোতায়েন রয়েছেন। পাশাপাশি রাজ্য পুলিশের নিরাপত্তা বাহিনীও। সল্টলেকের বাড়ির সামনে বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেটের  তিনজন কনস্টেবল ও একজন এ এস আই মুকুল রায়ের  নিরাপত্তায় মোতায়েন করা হয়েছে।

কাঁচরাপাড়া থেকে বের হওয়ার সময় মুকুল রায়ের কনভয়ে ছিল মোট চারটি গাড়ি। মুকুল রায়ের গাড়ি ছাড়াও একটি পাইলট, একটি লাল রঙের রাজ্য পুলিশের নিরাপত্তা কর্মীদের নিয়ে গাড়ি৷ অন্যটি কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনীর জাওয়ানদের সাদা গাড়ি। প্রসঙ্গত, শুক্রবারই তৃণমূলের নতুন ইনিংস শুরু করেছেন মুকুল রায়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁকে শুধু কাছেই টেনে নেননি। বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি আগের মতোই অপরিহার্য। মমতার আপ্তবাক্য ছিল 'ওল্ড ইজ গোল্ড'। এদিকে মুকুল বাড়ি ফিরতেই তাঁর অনুগামী ও শুভানুধ্যায়ীরা মুকুলকে শুভেচ্ছা জানাতে একে একে আসছেন তাঁর বাসভবনে। কারও হাতে ফুলের তোড়া। কারও হাতে মিষ্টি।

Published by:Pooja Basu
First published: